Naya Diganta

২০১৯ সালের প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষার প্রস্তুতি : পর্বসংখ্যা-৪৩

প্রিয় প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনীর শিক্ষার্থী বন্ধুরা, শুভেচ্ছা নিয়ো। আজ তোমাদের ইসলাম ও নৈতিক শিক্ষা বিষয়ের ‘দ্বিতীয় অধ্যায় : ইবাদত’ থেকে আরো ২টি বর্ণনামূলক প্রশ্ন ও উত্তর নিয়ে আলোচনা করা হলো ।
প্রশ্ন : পাঁচ ওয়াক্ত সালাতের সময় বর্ণনা করো।
উত্তর : সময়মতো সালাত আদায় করা আল্লাহর হুকুম। নিচে সালাতের ওয়াক্তের বিবরণ দেয়া হলোÑ
১. ফজর : ফজর সালাতের সময় শুরু হয় সুবহে সাদিক হওয়ার সাথে সাথে এবং সূর্য উদয়ের পূর্ব দিগন্তে লম্বা আকৃতির যে আলোর রেখা দেখা যায় তাকেই বলে সুবহে সাদিক।
২. জোহর : দুপুরের সূর্য পশ্চিম আকাশে হেলে পড়লেই জোহরের ওয়াক্ত শুরু হয়। ছায়া আসলি বাদে কোনো বস্তুর ছায়া দ্বিগুণ হওয়া পর্যন্ত এর সময় থাকে। কোনো বস্তুর ঠিক দুপুরের সময় যে ক্ষুদ্র ছায়া থাকে তাকেই বলে ছায়া আসলি বা আসল ছায়া। জুমার সালাতের আলাদা কোনো ওয়াক্ত নেই। জোহরের সময়ই জুমার সালাত আদায় করতে হয়।
৩. আসর : জোহরের সময় শেষ হলেই আসরের সময় শুরু হয় এবং সূর্যাস্তের আগ পর্যন্ত বিদ্যমান থাকে। তবে সূর্যের রঙ হলুদ হওয়ার আগেই আসর আদায় করতে হয়।
৪. মাগরিব : সূর্যাস্তের পর থেকে মাগরিবের সময় শুরু হয় এবং পশ্চিম আকাশে যতক্ষণ লালিমা বিদ্যমান থাকে ততক্ষণ সময় থাকে।
৫. এশা : মাগরিবের সময় শেষ হলেই এশার সালাতের ওয়াক্ত শুরু হয় এবং সুবহে সাদিকের আগ পর্যন্ত বিদ্যমান থাকে। এশার সালাত আদায়ের পরে বিতর সালাত আদায় করতে হয়।
প্রশ্ন : সালাতের আহকামগুলো লিখ।
উত্তর : সালাত শুরু করার আগে যে ফরজ কাজগুলো আছে, সেগুলোকে সালাতের আহকাম বা শর্ত বলে। আহকাম সাতটিÑ
১. শরীর পাক : প্রয়োজন মতো অজু, গোসল বা তায়াম্মুমের মাধ্যমে শরীর পাক-পবিত্র করা।
২. কাপড় পাক : পরিধানের কাপড় পাক হওয়া।
৩. জায়গা পাক : সালাত আদায়ের স্থান পাক হওয়া।
৪. সতর ঢাকা : পুরুষের নাভি থেকে হাঁটুর নিচ পর্যন্ত এবং স্ত্রীলোকের মুখমণ্ডল, হাতের কব্জি এবং পায়ের পাতা ছাড়া সমস্ত শরীর ঢাকা।
৫. কেবলামুখী হওয়া : কাবার দিকে মুখ করে সালাত আদায় করা।
৬. ওয়াক্ত হওয়া : সালাতের নির্ধারিত সময় হওয়া।
৭. নিয়ত করা : যে ওয়াক্তের সালাত আদায় করবে মনে মনে তার নিয়ত করা।