Naya Diganta

বাঘের প্রাণ রক্ষার আপিল খারিজ

ভারতের মহারাষ্ট্র রাজ্যে মানুষ শিকারি একটি বাঘিনীকে বাঁচাতে উচ্চ আদালতে আপিল করেন বন্যপ্রাণী সংরকরা। ওই বাঘিনীকে যেন গুলি করে হত্যা না করা হয়, সে আবেদন করেছিল তারা। তবে আবেদনটি খারিজ করে দিয়েছেন দেশটির সুপ্রিম কোর্ট। আদালতের ভাষ্য, বনরীরা যদি বাঘটি ধরতে ব্যর্থ হয়ে গুলি করে হত্যা করে আদালত তাতে হস্তপে করবেন না।
মহারাষ্ট্র রাজ্যে বনভূমির কাছে গরু-ছাগল চরানোর সময় ওই বাঘিনীর আক্রমণে পাঁচজন নিহত হয়েছে। বনরীরা বাঘিনীটিকে বাগে আনার চিন্তা করার পর বন্যপ্রাণী সংরণকর্মীরা বাঘটির জীবন বাঁচানোর আবেদন নিয়ে উচ্চ আদালতে যান। ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে একে প্রাণভিার আবেদন বলে অভিহিত করা হয়।
সংরণকর্মীরা বলেন, বন বিভাগ এটি প্রমাণ করতে ব্যর্থ হয়েছে যে, গ্রামবাসীদের মৃত্যুর জন্য বাঘিনীটিই দায়ী। ভারতের কিছু সংবাদমাধ্যমে বলা হয়, বাঘিনীটির হামলায় অন্তত ১৩ জন নিহত হয়েছে। তবে বিশেষজ্ঞদের দাবি, একটিমাত্র বাঘের হাতে এত লোক আক্রান্ত হওয়া অস্বাভাবিক। ভারতে প্রাণী সংরণ নীতির ফলে বাঘের সংখ্যা এখন বাড়ছে। তবে বনভূমি কমে আসায় বাঘের সাথে মানুষের সংঘাতও বাড়ছে। ইন্টারনেট।