Naya Diganta

ভারতের পেট্রাপোল বন্দরে স্পট করোনা পরীক্ষায় দুর্ভোগে বাংলাদেশী যাত্রীরা

বাংলাদেশী ৫০ জন পাসপোর্টধারী যাত্রীর স্পট করোনা পরীক্ষা করার জন্য নমুনা সংগ্রহ করেছে।

ভারতের পেট্রাপোল বন্দরে পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই হঠাৎ করে বাংলাদেশী পাসপোর্ট যাত্রীদের স্পট করোনা পরীক্ষা করায় দুর্ভোগে পড়েছেন তারা।

আজ বুধবার সকাল সাড়ে ৯টার সময় এ কার্যক্রম শুরু করেছে ভারতের পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষ।

চেকপোস্ট সূত্রে জানা গেছে, আজ সকালে ভারতীয় ইমিগ্রেশন বাংলাদেশী ৫০ জন পাসপোর্টধারী যাত্রীর স্পট করোনা পরীক্ষা করার জন্য নমুনা সংগ্রহ করেছে। যাদের নমুনা নেয়া হয়েছে তাদের মধ্যে যদি কারো শরীরে করোনার উপস্থিতি না থাকে তাহলে আর কারো স্পট করোনার পরীক্ষা করা হবে না। তবে উক্ত ৫০ জনের মধ্যে কারো শরীরে করোনার রিপোর্টে পজেটিভ আসে তাহলে বাংলাদেশ থেকে ভারতে যাওয়া প্রত্যেক যাত্রীকে পরীক্ষা করা হবে।

ভারত ফেরত বাংলাদেশী পাসপোর্ট যাত্রী গোপাল চন্দ্র বলেন, আমি এক সপ্তাহ আগে ভারতে যাই। আজ দেশে ফেরার সময় দেখতে পেলাম বাংলাদেশ থেকে যাওয়া প্রায় ৫০-৬০ জন যাত্রীকে করোনা পরীক্ষার জন্য তাদের বসিয়ে রেখেছে। এতে করে যাত্রীদের দীর্ঘ লাইন পড়ে গেছে।

বেনাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ রাজু আহম্মেদের কাছে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, শুনছি পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশ স্পট করোনা পরীক্ষা করছে। এর বেশি কিছু জানা নেই।