Naya Diganta

অ্যাপলের এআর হেডসেট আসবে আগামী বছর

অ্যাপলের এআর হেডসেট আসবে আগামী বছর

অ্যাপল ২০২২ সালে নতুন অগমেন্টেড রিয়ালিটি (এআর) হেডসেট উন্মুক্ত করবে বলে গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে বেশ কিছু দিন ধরেই। ম্যাক কম্পিউটারের এম১ চিপের সমতুল্য কম্পিউটিং ক্ষমতা থাকবে ওই হেডসেটের। তাইওয়ানভিত্তিক প্রযুক্তি পণ্যের বাজার বিশ্লেষক মিং-চি কুও ‘বিশ্বের সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য অ্যাপল বিশ্লেষক। কুও’র গবেষণার নথি দেখে ম্যাকনিউমার ও ৯টু৫ম্যাক বলছে, ২০২২ সালের চতুর্থ প্রান্তিকে বাজারে আসবে অ্যাপলের নতুন এআর হেডসেট।
দু’টি প্রসেসর থাকবে ডিভাইসটিতে। এর মধ্যে একটির কম্পিউটিং ক্ষমতা অ্যাপলের এম১ চিপের সমতুল্য হবে বলে জানিয়েছেন কুও। দ্বিতীয় প্রসেসর চিপটি বিভিন্ন সেন্সর থেকে পাওয়া ইনপুট নিয়ে কাজ করবে। কুও বলেন, ডিভাইসে ‘চলমান ভিডিও সি-থ্রু এআর সেবার জন্য অন্তত ছয় থেকে আটটি অপটিক্যাল মডিউল একসাথে কাজ করবে।’ হেডসেটটিতে সনির নির্মিত দু’টি ৪কে ওএলইডি মাইক্রোডিসপ্লে থাকবে।
কুও বলছেন, ম্যাক-সমতুল্য কম্পিউটিং ক্ষমতা থাকবে হেডসেটটিতে। তারবিহীন সংযোগ এবং বিভিন্ন খাতে এর কার্যকর ব্যবহার অ্যাপলের নতুন পণ্যটিকে প্রতিযোগীদের চেয়ে আলাদা করে তুলবে। এআর হেডসেটটি পুরোপুরি স্বাধীনভাবে কাজ করতে সক্ষম কোনো ডিভাইস হবে নাকি আইফোন বা অন্য কোনো ডিভাইসের ওপর নির্ভর করবে, সে বিষয়ে বিভিন্ন সূত্র থেকে বিপরীতমুখী খবর মিলছে।
হেডসেটটি স্বাধীন ডিভাইস হিসেবেই কাজ করবে বলে মনে করছেন কুও। কুও’র মতে, ‘এআর হেডসেটটি যদি ম্যাক আইফোনের অ্যাক্সেসরি হিসেবে দেখানো হয় তবে পণ্যের প্রসারে কোনো ভূমিকা রাখবে না এটি। একটি এআর হেডসেট স্বাধীনভাবে কাজ করতে সক্ষম হলে পণ্যটির নিজস্ব ইকোসিস্টেম থাকবে এবং ব্যবহারকারীকে পরিপূর্ণ অভিজ্ঞতা দেবে।