Naya Diganta

শ্রীপুরে কুকুরের কামড়ে অটোরিকশাচালকের মৃত্যু

গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার তেলিহাটি ইউনিয়নের টেপিরবাড়ি গ্রামে পাগলা কুকুরের কামড়ে আবুল হোসেন (৪৫) নামে এক অটোরিকশা চালকের মৃত্যু হয়েছে।

রোববার বিকেল সাড়ে চারটার দিকে নিজ বাড়িতে তিনি মারা যান। মৃত আবুল হোসেন টেপিরবাড়ী গ্রামের আব্দুল বাতেনের ছেলে।

পরিবারিক সূত্রে জানা যায়, গত কোরবানির ঈদের পঞ্চম দিনে রান্না ঘরের চুলায় তরকারি বসিয়েছিলেন আবুল হোসেনের স্ত্রী পারভীন আক্তার। এ সময় একটি পাগলা কুকুর পারভীনকে কামড় দিয়ে টেনে ধরে। তার চিৎকারে আবুল হোসেন দৌড়ে গিয়ে ঝাড়ু দিয়ে কুকুরকে আঘাত করে। এতে কুকুর আবুল হোসেনকেও কামড় দেয়। তিনি লাঠি দিয়ে কুকুরটি মেরে ফেলেন। এরপর স্থানীয় একটি ক্লিনিক থেকে আবুল হোসেনের স্ত্রী পারভীনকে ভ্যাকসিন দেয়া হয়। এ ভ্যাকসিন নেয়ার পর পারভীন সুস্থ হয়ে ওঠে। কিন্তু আবুল হোসেন কোনো চিকিৎসা গ্রহণ করেনি। এক মাস পর তার শরীর ও হাত ব্যাথা শুরু হলে তিনি বিভিন্ন ফার্মেসি থেকে ওষুধ সেবন করেন।

নিহতের স্ত্রী পারভীন জানান, গত পাঁচ ছয় দিন ধরে তার শরীর বেশী খারাপ হতে থাকলে তাকে ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়। সেখান থেকে বাড়িতে নিয়ে এলে তিনি ছটফট ও পাগলামী শুরু করেন। একপর্যায়ে তাকে শিকল দিয়ে বেঁধে রাখা হয়।

রোববার সকাল থেকে তার মুখ দিয়ে লালা বের হতে থাকে। সারাদিন ছটফট করে বিকেলে তিনি মারা যান।

তেলিহাটি ইউনিয়ন পরিষদের ৯ নম্বর ওয়ার্ড সদস্য আফসার উদ্দিন বলেন, ইদানিং চারদিকে কুকুরের উপদ্রুপ বেড়ে গেছে। প্রশাসনের পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা উচিত।

এ বিষয়ে অধ্যাপক ডা: রফিকুল ইসলাম বাচ্চু বলেন, ওই এলাকায় একাধিক ব্যক্তি কুকুরের কামড়ে জলাতঙ্ক হয়ে একজন মারা গেছেন। তাই জরুরি ভিত্তিতে কুকুর নিধনের উদ্যোগ নেয়া প্রয়োজন।