Naya Diganta

ভাষাশহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা

ফরিদপুরে শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করছেন খন্দকার মোশাররফ হোসেন হনয়া দিগন্ত

সারা দেশে যথাযোগ্য মর্যাদায় অমর একুশে ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপিত হয়েছে। সারা দেশে নানা কর্মসূচির মাধ্যমে দিবসটি উদযাপন ও বাংলা ভাষার জন্য সর্বোচ্চ আত্মত্যাগকারী বীর সন্তানদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হয়।
ফরিদপুর সংবাদদাতা জানান, আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও জাতীয় শহীদ দিবস উপলক্ষে ফরিদপুরের অম্বিকা ময়দানে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্বরে জনতার ঢল নেমেছে। শহীদ মিনারে পুষ্পমাল্য অর্পণ করতে তার আগে থেকেই সেখানে সমবেত হন সবাই। রাত ১২টা ১ মিনিটে কানায় কানায় ভরে উঠে পুরো চত্বর।
১ মিনিট নিরবতা পালনের মধ্য দিয়ে পুষ্পমাল্য অর্পণ শুরু হয়। জেলা প্রশাসক অতুল সরকার, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান লোকমান হোসেন মৃধা, পুলিশ সুপার আলিমুজ্জামান, ফরিদপুর জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, শহর আওয়ামী লীগ, ফরিদপুর প্রেস ক্লাবসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের পক্ষ থেকে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়।
অমর একুশে উপলক্ষে জেলা প্রশাসন দিনব্যাপী কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। এর বাইরে বিভিন্ন সংগঠনের উদ্যোগে দিবসটি যথাযোগ্য মর্যাদা ও শ্রদ্ধার সাথে পালিত হচ্ছে।
জামায়াতের আলোচনা সভা
মাতৃভাষা দিবস ও জাতীয় শহীদ দিবস উপলক্ষে ফরিদপুরে জামায়াতে ইসলামের উদ্যোগে আলোচনা সভা ও দোয়ার অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। আজ শুক্রবার (২১ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৯টার দিকে শহরস্থ জামায়াত কার্যালয়ে এ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়।
ফরিদপুর পৌরসভা জামায়াতের আমির এস এম আবুল বাশারের সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন কেন্দ্রীয় মজলিশে শূরা সদস্য ও জেলা শাখার সেক্রেটারি ইমতিয়াজ উদ্দিন আহমেদ, জেলা শাখার সাংগাঠনিক সেক্রেটারি আবু হারিস মোল্যা, সদর উপজেলা শাখার আমির মুহাম্মাদ জসীমউদ্দীন, ছাত্রশিবিরের শহর শাখার সভাপতি হাফিজুর রহমান, সরকারি রাজেন্দ্র কলেজের সাবেক শিক্ষক অধ্যাপক বেলাল হোসেন, মুন্সী গোলাম রসুল প্রমুখ। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন পৌরসভা শাখার প্রচার সম্পাদক ইব্র্রাহিম মুন্তাজির তাকিম।
কুষ্টিয়া সংবাদদাতা জানান, কুষ্টিয়ার সর্বত্র মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বিভিন্ন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। রাত ১২টা ১ মিনিটে কালেক্টরেট চত্বরে অবস্থিত কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে শহীদদের প্রতি সম্মান জানান জেলা প্রশাসক মো: আসলাম হোসেন ও পুলিশ সুপার এস এম তানভীর আরাফাত। এ সময় জেলা আওয়ামী লীগ, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, কুষ্টিয়া প্রেস ক্লাবসহ বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে ফুল দিয়ে সম্মান জানানো হয়। সেখানে শহীদদের রূহের মাগফেরাত কামনা করে দোয়া করা হয়। দুপুর পর্যন্ত বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী এবং সাধারণ মানুষেরা ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান শহীদদের প্রতি। এ দিকে জেলা প্রশাসন আয়োজিত তিন দিনের বইমেলা শহীদ মিনার পাদদেশে গতকাল রাতে শেষ হয়। সন্ধ্যায় শহীদ মিনারে আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও পুরস্কার বিতরণ করা হয়।
মাগুরা সংবাদদাতা জানান, মাগুরায় জাতীয় শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস একুশে ফেব্রুয়ারি পালিত হয়েছে।
দিবসটি উপলক্ষে গতকাল সকাল ৭টায় জেলা প্রশাসনের আয়োজনে কালেক্টরেট চত্বর থেকে প্রভাতফেরির র্যালি বের হয়। র্যালিটি শহর প্রদক্ষিণ শেষে সরকারি কলেজের শহীদ মিনার চত্বরে গিয়ে শেষ হয়। প্রভাতফেরির র্যালিতে অংশ নেন মাগুরা-১ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট সাইফুজ্জামান শিখর, জেলা প্রশাসক ড. আশরাফুল আলম, জেলা পুলিশ সুপার খান মুহাম্মদ রেজোয়ানসহ শহরের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা।
এ ছাড়া সকাল ১০টায় সৈয়দ আতর আলী গণগ্রন্থাগারে জেলা একাডেমির আয়োজনে শিশুদের আবৃত্তি, সুন্দর হাতের লেখা ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।
এ ছাড়াও একুশের প্রথম প্রহরে রাত ১২টা ১ মিনিটে মাগুরা হোসেন শহীদ সোহরাওয়াদী সরকারি কলেজের শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন মাগুরা-১ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট সাইফুজ্জামান শিখর। তারপর জেলা প্রশাসন, পুলিশ সুপার, জেলা আওয়ামী লীগ, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ, শ্রমিক লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ, ছাত্রলীগ, মাগুরা প্রেস ক্লাব, জেলা জাতীয় পার্টি, জেলা জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি), জেলা ছাত্রদল, যুবদল, জেলা আইনজীবী সমিতি, সরকারি, বেসরকারি কার্যালয়, শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।
ময়মনসিংহ অফিস জানায়, যথাযোগ্য মর্যাদায় ও ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে ময়মনসিংহে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হয়। এ উপলক্ষে একুশের প্রথম প্রহরে টাউনহল কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে ভাষাশহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানান গৃহায়ন ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহমেদ, সংসদ সদস্য মনিরা সুলতানা, ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের মেয়র ইকরামুল হক টিটু, ভারপ্রাপ্ত বিভাগীয় কমিশনার নিরঞ্জন দেবনাথ, অতিরিক্ত ডিআইজি ড. আক্কাস উদ্দিন ভূইয়া, জেলা প্রশাসক মিজানুর রহমান, পুলিশ সুপার আহমার উজ্জামান, সাবেক ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান, জেলা আ’লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট জহিরুল হক খোকা প্রমুখ।
কিশোরগঞ্জ সংবাদদাতা জানান, কিশোরগঞ্জে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে রাত ১২টা এক মিনিট থেকে দুপুর পর্যন্ত শহরের সরকারি গুরুদয়াল কলেজ মাঠের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, সরকারি প্রতিষ্ঠান, ছাত্র সংগঠন ও সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের পক্ষ থেকে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। প্রথমে কিশোরগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক, পরে জেলা প্রশাসনের পক্ষে জেলা প্রশাসক মো: সারওয়ার মুর্শেদ চৌধুরী প্রমুখ।
মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়
মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। রাত ১২টা ১ মিনিটে বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় ভিসি প্রফেসর ড. মো: আলাউদ্দিন, বিশ^বিদ্যালয়ের ডিন, রেজিস্ট্রার, হল প্রভোস্ট, শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারী ও ছাত্রছাত্রীদের নিয়ে ভাষাশহীদদের শ্রদ্ধা জানিয়ে ক্যাম্পাস্থ শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। এরপর বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনুষদ, হল, বিভাগ, মাওলানা ভাসানী রিসার্স সেন্টার, আইসিটি সেল, আইকিউএসি, শিক্ষক সমিতি, বঙ্গবন্ধু পরিষদ, অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশন, ভাসানী পরিষদ, তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণী কর্মচারী সমিতি, বিশ^বিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ এবং ছাত্রছাত্রীদের বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকেও শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়।
চুয়াডাঙ্গা সংবাদদাতা জানান, মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের প্রথম প্রহরে চুয়াডাঙ্গার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন সর্বস্তরের মানুষ।
রাত ১২টা ১ মিনিটে চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য সোলায়মান হক জোয়ার্দার ছেলুন শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান। এরপর জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার, পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার ফুল দিয়ে শহীদবেদিতে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।
ধামরাই (ঢাকা) সংবাদদাতা জানান, গতকাল শুক্রবার ধামরাই উপজেলায় যথাযোগ্য মর্যদায় মহান একুশে ফেব্রুয়ারি পালিত হয়েছে।
সকালে ধামরাই উপজেলা প্রশাসন পক্ষ থেকে নির্বাহী কর্মকর্তা মো: সামিউল হক ধামরাই উপজেলা চত্বর শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণের মধ্য দিয়ে দিনের কর্মসূচি শুরু হয়। এরপর স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠন পক্ষ থেকে স্থানীয় এমপি বেনজীর আহমদ ও পৌরমেয়র গোলাম কবির পুষ্পস্তবক অর্পণ করে। উপজেলা প্রশাসন একুশে ফেব্রুয়ারি উপলক্ষে আলোচনা সভা আয়োজন করে। এতে স্থানীয় এমপি, মেয়র ও উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা আলোচনায় অংশ নেন। এ ছাড়া বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, সংগঠন, ধামরাই সরকারি বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ও বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ে শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণের মধ্য দিয়ে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করে।