Naya Diganta

মাদারীপুরসহ বিভিন্ন স্থানে নিহত ৯

মাদারীপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় দু’জন নিহত ও তিনজন আহত হয়েছেন। দেশের অন্যান্য স্থানে দুর্ঘটনায় আরো ৭ জন নিহত হন।
মাদারীপুর সংবাদদাতা জানান, জেলার কালকিনিতে সড়ক দুর্ঘটনায় দু’জন নিহত হয়েছেন। এতে আহত হন কমপক্ষে আরো তিনজন যাত্রী। আহতদের উদ্ধার করে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গতকাল বেলা সাড়ে ১১টায় কালকিনি উপজেলার ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের কর্ণপাড়া নামকস্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেনÑ পৌর এলাকার মিনাজদি গ্রামের মোতালেব মাতুব্বর (৫০) ও উপজেলার বালিগ্রাম এলাকার পশ্চিম মাইজপাড়া গ্রামের লাল মিয়ার স্ত্রী উম্মে হানি (৬০)।
জানা গেছে, একটি যাত্রীবাহী সুগন্ধা পরিবহন বরিশাল থেকে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে আসে। বাসটি উপজেলার বালিগ্রাম এলাকার কর্ণপাড়া নামকস্থানে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি ব্যাটারিচালিত ভ্যানকে চাপা দেয়। এ সময় উম্মেহানি, মোতালেব মাতুব্বর ও ফেরদাউসসহ পাঁচ যাত্রী গুরুতর আহত হন। পরে স্থানীয় লোকজন তাদের উদ্ধার করে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক উম্মেহানি ও মোতালেব মাতুব্বরকে মৃত্যু ঘোষণা করেন।
সাতক্ষীরা সংবাদদাতা জানান, সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজেলার বহেরা ইটের ভাটা এলাকায় গতকাল সকালে একটি ট্রাক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সাথে ধাক্কা খেলে ট্রাকে অবস্থানকারী মাছ ব্যবসায়ী ফিরোজ শেখ (৪৬) ঘটনাস্থলে নিহত হয়েছেন। এ সময় মারাত্মক আহত হন ট্রাক চালক ও হেলপার। নিহত ফিরোজ শেখ পাবনার সুজানগর উপজেলার মৃত আবেদ আলীর ছেলে।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, সকালে কালিগঞ্জ থেকে ছেড়ে আসা সাতক্ষীরাগামী ট্রাকটি (ঢাকা মেট্রো ট-১৬-৬১৯৩) গাছের সাথে ধাক্কা খেলে এ দুর্ঘটনা ঘটে। আহতদের উদ্ধার করে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
রানীনগর (নওগাঁ) সংবাদদাতা জানান, নওগাঁর রানীনগরে ট্রাক্টরের ধাক্কায় মোটরসাইকেলে থাকা মেরী বেগম (৩৫) নামে এক গৃহবধূ নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হন তার স্বামী বিদ্যুৎ হোসেন ও তার ছেলে। গত শনিবার সন্ধ্যায় উপজেলার ঝিনা রাস্তায় এ ঘটনাটি ঘটে। আত্রাই উপজেলার সাহাগোলা গ্রামে তাদের বাড়ি।
জানা গেছে, বিদ্যুৎ তার স্ত্রী ও সন্তান নিয়ে মোটরসাইকেলে করে শ্বশুরবাড়ি সান্তাহার থেকে বাড়ি ফিরছিলেন। এ সময় রানীনগর উপজেলার ঝিনা ব্রিজ মোড়ের পাশে রাস্তায় একটি ট্রাক্টরের সাথে ধাক্কা লেগে তারা দুর্ঘটনায় পড়েন। এ সময় স্ত্রী মেরী বেগমের ওপর দিয়ে ট্রাক্টরের চাকা চলে গেলে তিনি গুরুতর আহত হন। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে নওগাঁ সদর হাসপাতালে ভর্তি করালে সন্ধ্যায় তার মৃত্যু ঘটে।
বান্দরবান সংবাদদাতা জানান, বান্দরবানে যাত্রীবাহী বাসের ধাক্কায় মোটরসাইকেল চালক এক পুলিশ কনস্টেবল নিহত হয়েছেন। তার নাম ইমরান হোসেন জনি (২৭)। ঘটনাটি ঘটে গত শনিবার রাতে শহরের রোয়াংছড়ি বাস স্টেশন সংলগ্ন এলাকায়। ঘটনায় ঘাতক বাস চালক মোহাম্মদ সাইফুলকে (৩২) আটক ও বাসটি জব্দ করা হয়েছে। সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শহীদুল ইসলাম জানিয়েছেন রাতে বালাঘাটা পুলিশ লাইন থেকে কনস্টেবল ইমরান মোটরসাইকেল নিয়ে শহরের দিকে আসছিলেন।। ঘটনার পর গুরুতর আহত ইমরানকে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানে তার মৃত্যু হয়। নিহত কনস্টেবলের বাড়ি ফেনী জেলার ছাগলনাইয়া এলাকায়।
হবিগঞ্জ সংবাদদাতা জানান, হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জে গাড়ির নিচে চাপা পড়ে সাবেত্রী সরকার (৪৫) নামে এক নারী নিহত হয়েছেন। সাবেত্রী শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার সম্ভুর গ্রামের অভিমণ্ডল সরকারের স্ত্রী। গতকাল দুপুরে ঢাকা সিলেট মহাসড়কের নছরতপুর রেলগেইট এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।
শায়েস্তাগঞ্জ হাইওয়ে থানার ওসি মো: লিয়াকত আলী জানান, সিলেট থেকে ছেড়ে যাওয়া একটি দ্রুতগামী হায়েস গাড়ি ঘটনাস্থলে রাস্তার পাশে থাকা এক নারীকে চাপা দিয়ে চলে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই ওই নারীর মৃত্যু হয়।
গাজীপুর সংবাদদাতা জানান, গাজীপুরের কালিয়াকৈরে গতকাল সকালে দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকের পেছনে প্রাইভেটকারের ধাক্কা লেগে ওই প্রাইভেটকারের চালক নিহত হয়েছেন। নিহত চালক তুষার শাহ (৩২) টাঙ্গাইল সদর উপজেলার শাবালিয়া গ্রামের রতন শাহের ছেলে।
সালনা হাইওয়ে থানার ওসি মজিবুর রহমান জানান, প্রাইভেটকারটি চন্দ্রা এলাকার ওয়ালটন কারখানার সামনে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ট্রাকের পেছনে সজোরে ধাক্কা দেয়। এতে প্রাইভেটকারটি দুমড়ে মুচড়ে যায় এবং চালক তুষার গুরুতর আহত হন। পরে পথচারীরা তাকে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজ উদ্দিন আহমেদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে।
বড়াইগ্রাম (নাটোর) সংবাদদাতা জানান, নাটোরের বড়াইগ্রামে দ্রুতগামী বাসের ধাক্কায় আক্কাস আলী (৮০) নামে এক পথচারী নিহত হয়েছেন। গতকাল দুপুরে বনপাড়া-হাটিকুমরুল-ঢাকা মহাসড়কের বড়াইগ্রাম থানা মোড় এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত আক্কাস আলী বড়াইগ্রাম মহল্লার মৃত ফজর আলীর ছেলে।
স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর রফিকুল ইসলাম জানান, আক্কাস আলী পায়ে হেঁটে মহাসড়ক পার হচ্ছিলেন। এ সময় পাবনা থেকে ঢাকাগামী ঈশ^রদী এক্সপ্রেসের একটি বাস তাকে ধাক্কা দিলে তিনি মহাসড়কে ছিটকে পড়ে গুরুতর আহত হন। তাকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে আহম্মেদপুর এলাকায় তিনি মারা যান।
ফরিদপুর সংবাদদাতা জানান, জেলা শহরে অটোবাইকের সাথে ধাক্কা খেয়ে সড়কের পাশের কার্নিশে আঘাত পেয়ে মারা গেছেন মোটরসাইকেল আরোহী মো: নাসির শেখ (৩৬)। গতকাল রোববার বিকেলে শহরের হাবেলী গোপালপুর মহল্লার শহীদুল হাসানের বাড়ির সামনে মুজিব সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।
নাসির শেখ ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা উপজেলার গোপালপুর ইউনিয়নের কুচিয়া গ্রামের আবদুর রাজ্জাকের ছেলে। তিনি ফরিদপুরে পোস্টাল অপারেটর হিসেবে কর্মরত ছিলেন।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, নাসির তার এক সহযোগী মো: তৌহিদকে নিয়ে ফরিদপুর শহরের টেপাখোলার দিকে যাচ্ছিলেন। ওই সময় সামনের দিকে থেকে আসা একটি অটোবাইকের সাথে ধাক্কা লেগে ছিটকে সড়কের পাশের নর্দমার কার্নিশে গিয়ে তার মাথায় আঘাত লাগলে তিনি গুরুতর আহত হন। হাসপাতালে নিলে তাকে চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষণা করেন।