২৪ নভেম্বর ২০২০

ঠিক জায়গায় বল ফেলতে চেয়েছি : নাঈম

টেস্টের প্রথম দিনে গতকাল চার উইকেট নিয়ে বাংলাদেশ শিবিরে স্বস্তি এনে দিয়েছেন অফ স্পিনার নাঈম হাসান : এএফপি -

ঘরের মাঠে দুই স্পিনার নিয়ে খেলেছে বাংলাদেশ। মিরপুরে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজের একমাত্র টেস্টের একাদশে সেই অর্থে কোনো চমক ছিল না। সাত ব্যাটসম্যান, দুই স্পিনার আর দুই পেসার নিয়ে একাদশ সাজিয়েছে টাইগাররা। বিসিএলের চর্তুথ রাউন্ডে দুই ইনিংসেই সেঞ্চুরি করা ইয়াসির আলী রাব্বি দলে ডাক পেলেও একাদশে জায়গা হয়নি মিডল অর্ডার এই ব্যাটসম্যানের। পেস আক্রমণে সুযোগ মেলেনি তাসকিন আহমেদ ও মুস্তাফিজুর রহমানের। তাদের বদলে দায়িত্ব পালন করেছেন আবু জায়েদ রাহী ও এবাদত হোসেন। স্পিন আক্রমণে সেই তাইজুল ইসলামের ওপরই ছিল ভরসা। তার সাথে অফস্পিনিং অলরাউন্ডার হিসেবে জায়গা পেয়েছেন নাইম হাসান। তার কারণেই আনন্দে দিন শেষ করতে পেরেছে বাংলাদেশ।
প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে অভিষেক ২০১৭ সালে। ছোট্ট এই ক্যারিয়ারে তিনবার ইনিংসে ৮ উইকেট পেয়েছেন তিনি। মাত্র ১৯ বছর বয়সী নাঈম বিস্ময় ছড়িয়েই যাচ্ছেন। টেস্ট ক্যারিয়ারের অভিষেকে আলো ছড়ানো ডানহাতি স্পিনার জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে মিরপুর টেস্টে আরেকবার দেখালেন তার সামর্থ্য। তার দুর্দান্ত বোলিংয়েই প্রথম দিন শেষে একটু হলেও এগিয়ে থাকল বাংলাদেশ।
পথের সবচেয়ে বড় কাঁটা সেঞ্চুরিয়ান আরভিনও ফিরেছেন দিনের শেষ বেলায়, দুই ওভার আগে। তাকে ফিরিয়ে স্বস্তি নিয়ে দিন শেষ করেছে বাংলাদেশ। আরভিনের সেঞ্চুরির দিনে বল হাতে দ্যুতি ছড়িয়েছেন স্পিনার নাঈম হাসান ও পেসার আবু জায়েদ চৌধুরী রাহী। নাঈম ৩৬ ওভারে ৬৮ রান খরচায় নিয়েছেন ৪ উইকেট। মেডেন ওভার ছিল ৮টি। অপর দিকে পেসার আবু জায়েদ রাহী ১৬ ওভারে ৫১ রান খরচায় ৪ মেডেনে পেয়েছেন ২ উইকেট।
স্বভাবতই ম্যাচ পরবর্তী সংবাদ সমেমলনে এলেন নাঈম হাসান। প্রশ্নের জবাবে ছোট ছোট বাক্যেই দিলেন। উইকেট প্রাপ্তি নিয়ে কোনো আকর্ষণ কিংবা পরিকল্পনা ছিল না এই স্পিনারের। জানালেন একটাই উদ্দেশ্য ছিলÑ সঠিক জায়গায় বল ফেলা। তার কথায়, ‘আমি চেয়েছি সঠিক জায়গায় বল ফেলতে। আর টানা ওভার করলে সে কাজটি সহজ হয়। উইকেট পাবো কি পাবো না সেদিকে কোনো লক্ষ্য ছিল না। লেন্থ ঠিক রাখাই ছিল মূল কাজ।’
প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে ২১ উইকেট পাওয়া নাঈম বলেন, ‘আগামীকালও (আজ) কাজ হবে নির্দিষ্ট জায়গায় বল ফেলা। তাদের যত তাড়াতাড়ি সাজঘরে পাঠানো যায় সেটি হবে আমাদের জন্য ভালো। আর ৩০-৪০ রানের মধ্যে আটকে দিতে পারলে আমাদের পথ সহজ হবে এবং আমরা সেপথেই এগোব।’
স্কোর কার্ড
বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে
টস : জিম্বাবুয়ে
জিম্বাবুয়ে প্রথম ইনিংস
রান বল ৪ ৬
মাসভাউরে ক ও ব নাঈম ৩ ৫ ০ ০
কাসুজা ক নাঈম ব আবু জায়েদ ০ ২ ০ ০
আরভিন ব নাঈম ১০৭ ২২৭ ১৩ ০
ব্রেন্ডন টেলর ব নাঈম ১০ ১১ ১ ০
সিকান্দার ক লিটন ব নাঈম ১৮ ৬২ ৩ ০
মারুমা এলবিডব্লিউ ব আবু জায়েদ ৭ ৩৫ ১ ০
রেগিস চাকাভা অপরাজিত ৯ ২৫ ১ ০
ত্রিপানো অপরাজিত ০ ৪ ০ ০
অতিরিক্ত -১১

মোট (৬ উই:, ৯০ ওভার) ২২৮
উইকেট পতন : ৭/১, ১১৮/২, ১৩৪/৩, ১৭৪/৪, ১৯৯/৫, ২৬/৬
বোলিং : এবাদত হোসেন ১৭-৮-২৬-০, আবু জায়েদ ১৬-৪-৫১-২, নাঈম হাসান ৩৬-৮-৬৮-৪, তাইজুল ইসলাম ২১-১-৭৫-০।

 


আরো সংবাদ