Naya Diganta

৪০ বছর পর তুরস্কের পথে লিবীয় জাহাজ

চার দশকের মধ্যে প্রথমবারের মতো লিবিয়ার মিসরাতা বন্দর থেকে তুরস্কের ইজমির প্রদেশের উদ্দেশে একটি যাত্রীবাহী জাহাজ ছেড়ে গেছে। বুধবার এটি যাত্রা শুরু করে। দীর্ঘ ২৫ বছর ধরে লিবিয়ায় কোনো আন্তর্জাতিক জাহাজ চলাচল করেনি। ২০১১ সালে একনায়ক মুয়াম্মার গাদ্দাফির পতনের পর দেশটিতে পর্যটন খাত ভেঙে পড়ে। এ ছাড়া গাদ্দাফির শাসনামলে ১৯৬৯ সাল থেকে লিবিয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা ছিল। এর কারণে পর্যটকদের জন্য লিবিয়ার দুয়ার এক প্রকার বন্ধ হয়ে যায়।
তুরস্কের সাথে যাত্রীবাহী এ জাহাজ চালু করেছে লিবিয়ার প্রতিষ্ঠান কেভালে। এটি তুরস্কে পৌঁছাতে ৪৮ ঘণ্টা লাগবে। এ জাহাজ আবার ফিরে আসবে ৭ ডিসেম্বর। মিসরাতা বন্দরের কর্মকর্তা তাহা হাদিদ বলেন, মিসর ও তিউনিসিয়ায় এ ধরনের সেবা চালুর বিষয়ে আমাদের চুক্তি রয়েছে। মিসরাতা লিবিয়ার তৃতীয় বৃহত্তম শহর। এটি দেশটির রাজধানী ত্রিপোলি থেকে ২০০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। যেখানে তুরস্কের অসংখ্য ব্যবসায়ী বাস করেন।
লিবিয়ায় বিমান সেবাও ধীরে ধীরে চালু হচ্ছে। মধ্যপ্রাচ্যের দেশটিতে গৃহযুদ্ধে বিমানবন্দর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ফলে বহু রুটে ফ্লাইট বাতিল করতে বাধ্য হয়েছে কর্তৃপক্ষ।
তবে ২০২০ সালে যুদ্ধবিরতি কার্যকর হওয়ার পর থেকে তুরস্কের সহায়তায় কিছু কিছু ফ্লাইট আবার চালু হয়েছে।