Naya Diganta

অশ্লীল ছবি ও ভিডিও ধারণ করে টাকা হাতিয়ে নেয়ার মামলায় কলেজছাত্র গ্রেফতার

গ্রেফতারকৃত রিয়ন

অনলাইন যোগাযোগমাধ্যমে প্রেমের সম্পর্কের অভিনয়। পরে অভিনব কায়দায় প্রতারণার মাধ্যমে টাকা ও স্বর্ণালংকার হাতিয়ে নেয়া। এই অভিযোগে বগুড়া সদর থানায় পর্নোগ্রাফি আইনে দায়ের করা মামলায় জেলার দুপচাঁচিয়া উপজেলা থেকে এক কলেজছাত্রকে গ্রেফতার করেছে বগুড়া গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) সাইবার পুলিশ।

শুক্রবার তাকে আদালতে হাজির করে অধিক তথ্যের জন্য সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়েছে।

গ্রেফতারকৃত যুবক তানজিমুল ইসলাম রিয়ন (২২) দুপচাঁচিয়া জাহানারা কামরুজ্জামান ডিগ্রি কলেজের (জেকে) বিবিএস প্রথম বর্ষের ছাত্র ও নওগাঁ সদর থানার চকদেবপাড়ার মৃত তাজুল ইসলামের ছেলে।

তিনি দুপচাঁচিয়া উপজেলা সদরের তিনমাথা চৌধুরীপাড়ার বাসিন্দা নানা আবু সাইদ ফকিরের বাসায় বসবাস করতেন।

বগুড়া ডিবি পুলিশ জানায়, বগুড়া সদর থানায় মামলার প্রেক্ষিতে জেলা পুলিশ সুপার মো: আলী আশরাফ ভূঞার (বিপিএম-বার) দিকনির্দেশনায় পুলিশ পরিদর্শক মো: এমরান মাহমুদ তুহিনের নেতৃত্বে সাইবার পুলিশ বগুড়ার একটি টিম বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে তাকে গ্রেফতার করে।

এ সময় তার কাছ থেকে একটি আইফোন ও দুটি সিমকার্ড জব্দ করা হয়। তাকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ও জব্দকৃত ডিভাইস চেক করে দেখা যায় একাধিক মেয়ের সাথে তার প্রেমের সম্পর্ক আছে। তারমধ্যে ২০ জনের অধিক মেয়ের (অধিকাংশই হাইস্কুলের ছাত্রী) শরীরের বিভিন্ন অংশের অশ্লীল স্থিরচিত্র ও অশ্লীল ভিডিওচিত্র তার ফেসবুক আইডির মেসেঞ্জারে সংরক্ষিত অবস্থায় আছে। যা তাদের সাথে অনলাইনভিত্তিক বিভিন্ন যোগাযোগমাধ্যমে ভিডিও কলে কথা বলার সময় ভিডিওচিত্র ও স্থিরচিত্র ধারণ করে পরে ব্ল্যাকমেইল করে টাকা-পয়সা ও স্বর্ণালংকার হাতিয়ে নেয়।

এর আগে ক্ষতিগ্রস্ত একজন অভিভাবক বগুড়া সদর থানায় সাইবার ক্রাইম আইনে মামলা দায়ের করেন।

সাইবার পুলিশ বগুড়া ইউনিটের প্রধান পুলিশ পরিদর্শক এমরান হোসেন তুহিন জানান, প্রাথমিকভাবে জানা গেছে, আসামি রিয়ন প্রেমের অভিনয় করে কমপক্ষে ২০ স্কুলছাত্রী ও এক-দুইজন গৃহবধূর ভিডিও কলে কথা বলার সময় অশ্লীল ছবি ধারণ করে টাকা-পয়সা হাতিয়ে নিয়েছে। তাকে শুক্রবার আদালতে হাজির করে অধিক তথ্যের জন্য সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়েছে।