Naya Diganta

কোহলির দাড়ি নিয়ে ফাজলামি! টিকটিক ভিডিও নিয়ে পাল্টা টিটকিরি

প্রয়াত বলিউড অভিনেতা ঋষি কাপুর প্রশ্নটা তুলেছিলেন একবার। ভারতীয় ক্রিকেট দলের বেশিরভাগ ক্রিকেটারের গাল ভর্তি দাড়ি কেন! দেখে কাউকে আলাদা করে চেনার উপায় নেই। সবার প্রায় একইরকম লুকস। মাথার দুপাশের চুল ছোট করে ছাঁটা। আর গালভর্তি দাড়ি।

ঋষি কাপুর এটাও বলেছিলেন, ভারতীয় দলের ক্রিকেটারদের দাড়ি কেটে ফেললে বেশি সুন্দর দেখতে লাগবে। তবে প্রয়াত অভিনেতার সেই পরামর্শ কোহলিদের একেবারেই পছন্দ হয়নি। আসলে দাড়ি রাখাটাই এখন ট্রেন্ড। আর সেই ট্রেন্ড—এ গা ভাসিয়েছেন ভারতীয় দলের একাধিক ক্রিকেটার। বিরাট কোহলিই মূলত এই ট্রেন্ড ভারতীয় দলে আমদানি করেছিলেন। এমনটা বলেন কেউ কেউ। সেই কোহলির দাড়ি নিয়ে ফাজলামি! বিরাট একেবারেই সহ্য করলেন না।

লকডাউনে একের পর এক ছবি ও ভিডিয়ো সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শেয়ার করছেন কোহলি। এবারও ঠিক তেমনটাই করেছিলেন। নিজের একটি পুরনো ছবি হঠাৎ করেই শেয়ার করেন কোহলি। তাতে ভুরি ভুরি লাইক, কমেন্টস পড়ছিল। হঠাৎ একটা কমেন্ট পড়ে কোহলি প্রতিক্রিয়া দিলেন।

ইংল্যান্ডের ক্রিকেটার কেভিন পিটারসেন লিখেছিলেন, তোমার দাড়ি এবার কেটে ফেল। কোহলি ছেড়ে কথা বললেন না।

পাল্টা লিখলেন, তোমার টিকটক ভিডিও থেকে অনেক ভাল। একটা সময় আরসিবি’র ড্রেসিংরুমে একসঙ্গে সময় কাটিয়েছেন কোহলি—কেপি। দুজনের সম্পর্কও বেশ ভাল। তবে দাড়ি নিয়ে কোহলি কোনও বেরসিক মন্তব্য সহ্য করতে পারেন না।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ কমানোর জন্য বিশ্বের প্রায় সব দেশেই লকডাউন। ক্রিকেট আবার কবে মাঠে ফিরবে কেউ জানে না। ফিরলেও কী আর গ্যালারিতে ভিড় করে দর্শকরা খেলা দেখতে পারবেন! তা নিয়েও প্রশ্ন থাকছে। তবে ফুটবল কিন্তু মাঠে গড়াচ্ছে। ইতোমধ্যে শুরু হয়েছে বুন্দেস লিগা। তবে ক্রিকেটের ক্ষেত্রে হয়তো সমস্যা অনেক বেশি। জিনিউজ।