১৬ অক্টোবর ২০২১
`

আল্লামা তাফাজ্জুল হক হবিগঞ্জীর ইন্তেকাল

-

জমিয়তে ওলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় সিনিয়র সহসভাপতি আল্লামা তাফাজ্জুল হক হবিগঞ্জী গতকাল বিকেল ৪টা ৩৫ মিনিটে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে সিলেটের একটি হাসপাতালে ইন্তেকাল করেছেন। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।
হবিগঞ্জ জামিয়া ইসলামিয়া আরাবিয়া উমেদনগর মাদরাসার মুহতামিম, দেশের বিশিষ্ট এ হাদিস বিশারদ ও রাজনীতিবিদ দীর্ঘদিন অসুস্থ ছিলেন। কিছু দিন আগেও তিনি রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। এই রিপোর্ট লেখার সময় তার নামাজে জানাজা ও দাফনের সময় জানা যায়নি।
তার ইন্তেকালে শোক প্রকাশ করেছেন জমিয়তে ওলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের সভাপতি আল্লামা আব্দুল মু’মিন শায়েখে ইমামবাড়ি, মহাসচিব আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী, সহসভাপতি মাওলানা আব্দুর রব ইউসুফী, মাওলানা জহিরুল হক ভূঁইয়া, মাওলানা উবায়দুল্লাহ ফারুক, মাওলানা জুনায়েদ আল-হাবীবসহ নেতারা, খেলাফত মজলিসের আমির অধ্যক্ষ মাওলানা মোহাম্মদ ইসহাক ও মহাসচিব ড. আহমদ আবদুল কাদের, বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের আমির শায়খুল হাদিস আল্লামা ইসমাঈল নূরপুরী, সিনিয়র নায়েবে আমির মাওলানা যোবায়ের আহমদ আনসারী ও মহাসচিব মাওলানা মাহফুজুল হক।
হবিগঞ্জ সংবাদদাতা জানান, আল্লামা তাফাজ্জুল হক ১৯৪৪ সালে হবিগঞ্জ সদর উপজেলার কাটাখালী গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা মাওলানা আব্দুন নুর ছিলেন বড় মাপের আলেম। পাঁচ ভাইয়ের মধ্যে তিনিই বড়। লেখাপড়ার শুরুটা বাবার হাত ধরেই। তারপর রায়ধর মাদরাসা। ইসলামের মৌলিক শিক্ষা তিনি গ্রহণ করেন চট্টগ্রামের হাটহাজারী মাদরাসায়। বাংলাদেশের প্রখ্যাত পীর ও আলেমে দ্বীন চট্টগ্রাম হাটহাজারী মাদরাসার পরিচালক শায়খুল হাদিস আল্লামা আহমদ শফী ছিলেন তার শিক্ষক। চট্টগ্রাম থেকে আল্লামা তাফাজ্জুল হক চলে যান পাকিস্তানে। পরে ভারতের দেওবন্দসহ দেশ-বিদেশের বিভিন্ন দ্বীনি প্রতিষ্ঠানে তিনি শিক্ষা গ্রহণ ও শিক্ষকতা করেন। ১৯৭১ সাল থেকে তিনি হাদিস শাস্ত্র পড়িয়ে কয়েক হাজার মুহাদ্দিস তৈরি করেন। যারা এখন দেশ-বিদেশে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক রাজনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছেন।
তাফাজ্জুল হকের পাঁচ ছেলের মধ্যে পাঁচজনই প্রখ্যাত মাওলানা। তাদের মধ্যে চারজন কুরআনে হাফেজ। চার মেয়ের মধ্যে সবাই টাইটেল পাস আলেমা। নাতি-নাতনীদের প্রায় সবাই কুরআনে হাফেজ ও মাওলানা।
তার উল্লেখযোগ্য ছাত্রদের মধ্যে জমিয়তে ওলামায়ে ইসলামের কেন্দ্রীয় কমিটির সহসভাপতি নুর হোসাইন কাসেমী, খেলাফত মজলিসের নায়েবে আমির মাওলানা আব্দুর রব ইউসুফী, মাওলানা নেজাম উদ্দিনসহ বেশ কয়েকজন আলেম এখন দেশের রাজনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছেন। নুরুল হেরা জামে মসজিদ প্রতিষ্ঠাসহ একাধিক ধর্মীয় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান গড়ে তুলেছেন তিনি।

 



আরো সংবাদ