Naya Diganta

কে কী----------------কেন কিভাবে চোরাবালির কথা

আজ তোমরা জানবে চোরাবালির সম্পর্কে । সাধারণত এর জন্ম নদীর তীরে, সমুদ্রের বেলাভূমিতে বা মরুভূমির বুকে, যেখানে মাটির গভীরে কঠিন মাটির এক আস্তরণ থাকে। লিখেছেন ইমরুল হাসান

চোরাবালি কী? তোমরা জানো, চোরাবালির রয়েছে বিভিন্ন অর্থ। সাধারণ অর্থে চোরাবালি বলতে বোঝায় পানির অদৃশ্য বালির চর, যাতে নৌকা প্রভৃতি আটকে যায় বা ভেঙে যায়। আবার বালির ওপরটা দেখতে শক্ত বা নিরাপদ মনে হলেও পঙ্কের অবস্থান বা কাদা থাকার কারণে তার ওপরে আসা সবকিছুই ক্রমে তলাতে থাকে। প্রকৃতির সৃষ্টি চোরাবালি দেখলে বালির
বিস্তীর্ণ ভূমি মনে হয়। তবে কাছে গিয়ে একবার পা আটকে গেলেই কর্ম শেষ! গোটা মানুষ বা যেকোনো বৃহদাকার প্রাণীকে সম্পূর্ণ গ্রাস করে নিতে খুব বেশি সময় লাগে না।
সাধারণত চোরাবালির জন্ম নদীর তীরে, সমুদ্রের বেলাভূমিতে বা মরুভূমির বুকে, যেখানে মাটির গভীরে কঠিন মাটির এক আস্তরণ থাকে। এর ওপরে থাকে পুরু বালি। মাটির এই কঠিন আস্তরণে পানি জমে থাকে বলে বালিতে পানির ভাগ হয় বেশি। এভাবে পানি জমে কাদায় পরিণত হয়; তৈরি হয় চোরাবালি। আর এ জন্য চোরাবালিতে আটকা পড়লে মানুষ বা প্রাণী একসময় মাটির মধ্যে ডুবে যায়, যার পরিণাম বেশির ভাগ ক্ষেত্রে মৃত্যু। এ জন্য চোরাবালির বিষয়ে সবারই সাবধানতা অবলম্বন করা উচিত।
ছবি: ইন্টারনেট