Naya Diganta

এলজিইডির প্রধান প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ

স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরের (এলজিইডি) প্রধান প্রকৌশলী খলিলুর রহমানের বিরুদ্ধে স্বজনপ্রীতিসহ বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। খলিলুর রহমান প্রধান প্রকৌশলীর দায়িত্ব পাওয়ার পর থেকে দফতরে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মধ্যে চরম অসন্তোষ বিরাজ করছে বলে সূত্র জানায়।
সূত্র জানায়, এলজিইডির সাবেক প্রধান প্রকৌশলী আবুল কালাম আজাদ গত ৯ মে অবসরে যান। শূন্য পদে জ্যেষ্ঠ অতিরিক্ত প্রকৌশলী (বাস্তবায়ন ও প্রাথমিক শিক্ষা) খলিলুর রহমানকে এলজিইডির প্রধান প্রকৌশলীর চলতি দায়িত্ব দেয়া হয়। কিন্তু তার দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকেই অধিদফতরের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মধ্যে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এলজিইডি ভবনে কর্মরত একাধিক কর্মকর্তা-কর্মচারী অভিযোগ করেন, প্রধান প্রকৌশলী খলিলুর রহমান সিলেটে নির্বাহী প্রকৌশলী হিসেবে কর্মরত থাকাকালীন আর্থিক অনিয়ম করেন। ফলে তার বিরুদ্ধে অডিট আপত্তি উত্থাপিত হয়, যা এখনো নিষ্পত্তি হয়নি। খলিলুর রহমান এলজিইডি সদর দফতরের ডিজাইন ইউনিটের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলীর দায়িত্ব পালনকালে ইউনিটের ডিজাইনের কাজ ডিজাইন প্রেসক্রিপশন লিমিটেডের মাধ্যমে করান। এ ছাড়া আরেকটি ডেভেলপমেন্ট ফার্মের মাধ্যমে এলজিইডির টেন্ডারকৃত সব ভবন এবং ব্রিজের পাইলের পিআইটি টেস্টের কাজ করান। এ ছাড়া তিনি বাস্তবায়ন ও প্রাথমিক শিক্ষা ইউনিটের অতিরিক্ত প্রধানের দায়িত্বে থাকাকালীন এলজিইডির বাস্তবায়নকৃত প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের সব স্থাপনার মাটি পরীক্ষার কাজ সয়েল অ্যান্ড ফাউন্ডেশন লিমিটেডের মাধ্যমে করিয়ে নেন। এই ফার্মগুলো তার ছেলের বলে সূত্র জানায়। ফলে তার বিরুদ্ধে স্বজনপ্রীতির অভিযোগ উঠেছে।
তবে এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন খলিলুর রহমান। তিনি বলেন, তার বিরুদ্ধে একটি পক্ষ অপপ্রচার চালাচ্ছে। একটি শ্রেণী তার সম্মানহানির চেষ্টা করছে বলে দাবি করেন।