Naya Diganta

জরুরি নয় দূতাবাসের এমন স্টাফদের ভেনিজুয়েলা ত্যাগের নির্দেশ যুক্তরাষ্ট্রের

যুক্তরাষ্ট্র বৃহস্পতিবার জরুরি নয় দূতাবাসের এমন স্টাফদের ভেনিজুয়েলা ত্যাগের নির্দেশ দিয়েছে। তবে ওয়াশিংটন নিকোলাস মাদুরোর ঘোষণা অনুযায়ী সম্পূর্ণ দূতাবাস গুটিয়ে নিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে। আমেরিকা বলেছে, মাদুরো আর প্রেসিডেন্ট থাকছে না। খবর এএফপি’র।

মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের এক মুখপাত্র বলেন, ‘ভেনিজুয়েলার নিরাপত্তা পরিস্থিতি নিয়ে আমাদের বর্তমান মূল্যায়নের ভিত্তিতে’ জরুরি নয় দূতাবাসের এমন স্টাফ ও তাদের পরিবারের সদস্যদের পররাষ্ট্র দপ্তর দেশে চলে আসার অনুমতি দিয়েছে।

তিনি বলেন, ‘দূতাবাসটি বন্ধ করে দেয়ার আমাদের কোন পরিকল্পনা নেই। ভেনিজুয়েলার অন্তর্বর্তীকালীন প্রেসিডেন্ট গুয়াইদোর মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্র কারাকাসের সাথে কূটনৈতিক সম্পর্ক বজায় রাখবে। গুয়াইদো ভেনিজুয়েলায় আমাদের মিশন বজায় রাখার আহবান জানিয়েছেন।’

সংকটপূর্ণ এ দেশে ব্যাপক রাজনৈতিক সংঘর্ষের প্রেক্ষাপটে পররাষ্ট্র দপ্তর আরো জানায়, ভেনিজুয়েলার বর্তমান পরিস্থিতিতে মার্কিন নাগরিকদের দেশটি ছাড়ার বিষয় জোরালোভাবে বিবেচনা করা উচিত হবে।

বুধবার মাদুরো মার্কিন কূটনীতিকদের ভেনিজুয়েলা ত্যাগের ৭২ ঘণ্টা সময় দিয়েছে। ল্যাটিন আমেরিকার এ দেশের জনগণের প্রতি সমর্থন জানিয়ে মাদুরো আইনসঙ্গতভাবে আর ভেনিজুয়েলার প্রেসিডেন্ট থাকছে না প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এমন কথা বলার পর মাদুরো মার্কিন কূটনীতিকদের দেশ ত্যাগে সময় বেঁধে দেন।

যুক্তরাষ্ট্র জানায়, ওয়াশিংটন দেশটির অন্তর্বর্তীকালীন প্রেসিডেন্ট হিসেবে ভেনিজুয়েলার ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলির বিরোধীদলীয় প্রধান গুয়াইদোকে স্বীকৃতি দেয়ায় তারা মাদুরোর এমন নির্দেশ অমান্য করছে।

মাদুরো যুক্তরাষ্ট্রে তাদের মিশন বন্ধ করে দিয়েছে।