Naya Diganta

সেরাকণ্ঠের যুগ্ম চ্যাম্পিয়নের সাফল্যের পথচলা

সেরাকণ্ঠের যুগ্ম চ্যাম্পিয়নের সাফল্যের পথচলা

২০১৭ সালের ‘চ্যানেল আই সেরাকণ্ঠ’ প্রতিযোগিতার গ্র্যান্ড ফিনালে হয়েছিল থাইল্যান্ডে ২০১৮ সালের ২১ জানুয়ারি। ফিনালেতে ঐশী গেয়েছিলেন রবীন্দ্র সঙ্গীত ‘কতবারও ভেবেছিনু’ এবং সুমনা গেয়েছিলেন মিতালী মুখার্জির বিখ্যাত গান ‘হারানো দিনের মতো’। এরপর থেকে ঐশী এবং সুমনা গানের ভুবনে পথ হেঁটে চলেছেন নিজেদের মতো করে। গান নিয়ে দু’জনের পথচলাটা বলা যায় একই রকমের। দু’জনেই পড়াশোনার প্রতি যেমন মনোযোগ দিচ্ছেন। ঠিক তেমনি গান শেখার ব্যাপারেও দু’জনের রয়েছে প্রবল অধ্যবসায়। রাকিবা ইসলাম ঐশীর গানের ভুবনে পথচলার বহুদিন পর সুযোগ এলো বাংলাদেশের সঙ্গীতাঙ্গনের গর্ব উপমহাদেশের প্রখ্যাত সঙ্গীতশিল্পী ওস্তাদ নিয়াজ মোহাম্মদ চৌধুরীর কাছে গানে তালিম নেয়ার। তাই এই সময়টাকে তিনি ভীষণভাবে কাজে লাগাতে চাচ্ছেন। অন্য দিকে, সুমনা ছোটবেলা থেকে যার কাছে শাস্ত্রীয় সঙ্গীতসহ আরো অন্যান্য বিষয়ে গানে তালিম নিচ্ছিলেন, এখনো সেই নিয়াজ মামুনের কাছেই তালিম নেন। ঐশী বর্তমানে জগন্নাথ বিশ^বিদ্যালয়ের সঙ্গীত বিভাগে শাস্ত্রীয় সঙ্গীত বিষয়ে মাস্টার্স করছেন (প্রথম বর্ষ চলছে)। অন্য দিকে, কিছু দিন আগে সুমনা এইচএসসিতে উত্তীর্ণ হয়েছেন জিপিএ ৫ পেয়ে। গেলো বছরের শেষের দিকে ঐশীর কণ্ঠে প্রকাশিত হয় দেশের গান ‘বৃথাই রে মা’। গানটি লিখেছেন, সুর সঙ্গীত করেছেন শাখাওয়াত হোসেন মারুফ। গানটির জন্য বেশ সাড়া পাচ্ছেন ঐশী। এদিকে কুমার বিশ^জিতের ইউটিউব চ্যানেলে ‘গানছবি এন্টারটেইনম্যান্ট’ প্রকাশিত হয়েছে সুমনার গান ‘তোমায় ছাড়া’। গানটি লিখেছেন লিটন অধিকারী রিন্টু, সুর সঙ্গীত করেছেন কুমার বিশ^জিৎ। এদিকে ঐশী ও সুমনা একসাথে সর্বশেষ বিটিভির ৫৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে ‘সুবর্ণ-৫০’ একসাথে গান গেয়েছেন। ঐশীর এখনো সিনেমার গানে অভিষেক হয়নি। অন্য দিকে, সুমনা ‘রাসেলের জন্য অপেক্ষা’ সিনেমায় প্লেব্যাক করেছেন আহমেদ ইউসুফ সাবেরের কথায় ও ইমন সাহার সুর সঙ্গীতে।