২৯ নভেম্বর ২০২২, ১৪ অগ্রহায়ন ১৪২৯, ৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরি
`

জুডোতে সেরা বাংলাদেশ আনসার

জুডোতে সেরা বাংলাদেশ আনসার -

বঙ্গবন্ধু ৯ম বাংলাদেশ গেমসের জুডো প্রতিযোগিতা শেষ হয়েছে। মিরপুরের শহীদ সোহরাওয়ার্দী ইনডোর স্টেডিয়ামে প্রতিযোগিতার শেষ দিনে শুক্রবার তিনটি ওজন শ্রেণীর ফাইনাল অনুষ্ঠিত হয়। তিন দিনব্যাপী এই প্রতিযোগিতার (পুরুষ ও মহিলা) পদক তালিকায় শীর্ষস্থান দখল করেছে বাংলাদেশ আনসার। সর্বোচ্চ ৫টি স্বর্ণপদকসহ ৯টি পদক জিতেছে তারা।

প্রধান অতিথি হিসেবে সমাপনী অনুষ্ঠানে বিজয়ীদের হাতে পদক ও সনদপত্র তুলে দেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো: আবদুল করিম। এ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন জুডো ফেডারেশনের সভাপতি ফয়জুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক শাহ আলম সরদার।

সমাপনী অনুষ্ঠানে জাহিদ আহসান রাসেল বলেন, গত বছর বঙ্গবন্ধু ৯ম বাংলাদেশ গেমস আয়োজন করার ইচ্ছা ছিল আমাদের। আরো বড় পরিসরে প্রায় ১০ হাজার ক্রীড়াবিদ নিয়ে আসরটি আয়োজন করার ইচ্ছা ছিল। কিন্তু কোভিডের কারণে আমরা তা পারিনি। এবার আমরা ৩১ ডিসিপ্লিনে ৫ হাজার ৩০০ ক্রীড়াবিদ নিয়ে আসরটি আয়োজন করেছি।’

যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, আমরা ২০টি জেলায় ইনডোর স্টেডিয়াম, জিমনেশিয়াম নির্মাণ করতে যাচ্ছি। সেটা হলে সেখানে গেমসের জুডো, উশু, তায়কোয়ান্দো, টেবিল টেনিসের মতো খেলাগুলো সহজেই আয়োজন করা যাবে। সেই চিন্তা থেকে আমরা কাজ শুরু করেছি। এবার জুডো প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়া সবাইকে আমি শুভচ্ছো জানাই। আমি আশা করি, তোমরা দেশের রত্নে পরিণত হবে। যারা স্বর্ণসহ অন্যান্য পদক পেয়েছো, সবাইকে আমার পক্ষ থেকে অভিনন্দন।

যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো: আবদুল করিম বলেন, ‘আমি আশা করি জুডোর মাধ্যমে আমরা বিশ্বে পরিচিত লাভ করব। প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়া সবাইকে আমার পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা। সফলভাবে প্রতিযোগিতাটি আয়োজন করায় সংশ্লিষ্ট সবাইকে জানাই ধন্যবাদ।’

শেষ দিন পুরুষ অনূর্ধ্ব-৭৩ কেজি ওজন শ্রেণিতে স্বর্ণপদক জিতেছেন বাংলাদেশ আনসারের নাদিম মোস্তফা। বিকেএসপির আনিসুর রহমান আকাশ জেতে রৌপ্যপদক। যৌথভাবে ব্রোঞ্জপদক জেতেন জয়পুরহাট জেলার নওশের আলী ও বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর লিটন রায়।

পুরুষ ঊর্ধ্ব-৭৩ কেজিতে স্বর্ণপদক জিতেছেন বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) মো: আবুল কালাম আজাদ। বিকেএসপির মাধব মোহন্ত জেতেন রৌপ্যপদক। যৌথভাবে ব্রোঞ্জপদক জেতেন বাংলাদেশ আনসারের মিজানুর রহমান ও ভিডিপির মো: আবু নাঈম।

মহিলা ঊর্ধ্ব-৫৭ কেজিতে স্বর্ণপদক জিতেছেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর তাহমিনা আক্তার লোপা। বাংলাদেশ আনসারের কাদের ফাহি জেতেন রৌপ্যপদক। যৌথভাবে ব্রোঞ্জপদক জেতেন বিকেএসপির অবনিকা হাসান ও ভিডিপির নুসাংপ্রু মারমা।

৭-৯ এপ্রিল অনুষ্ঠিত এই প্রতিযোগিতায় পুরুষ ও মহিলা খেলোয়াড়রা ৫টি করে ১০টি ওজন শ্রেণিতে পদকের জন্য লড়েন। সেনাবাহিনী, বিজিবি, পুলিশ, আনসার, ভিডিপি, বিকেএসপি, ঢাকা, বরিশাল ও রাজশাহী বিভাগ, ঢাকা ব্রাহ্মণবাড়িয়া, শেরপুর, নোয়াখালী, জয়পুরহাট, ফেনী, বরগুনা, খুলনা, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, রাজশাহী, নারায়ণগঞ্জ জেলা ও রাজশাহী শিক্ষাবোর্ডসহ মোট ২১টি দলের ৭৪ জন পুরুষ ও ৫৪ মহিলা খেলোয়াড় অংশ নিয়েছিলেনর্।


আরো সংবাদ


premium cement