১৫ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১, ৮ মহররম ১৪৪৬
`

ভারতে ট্রেন দুর্ঘটনা : মন্ত্রী বলছেন অন্তর্ঘাত, সিবিআই তদন্ত দাবি

ভারতে ট্রেন দুর্ঘটনা : মন্ত্রী বলছেন অন্তর্ঘাত, সিবিআই তদন্ত দাবি - ছবি : সংগৃহীত

ভারতের ওড়িশায় ভয়াবহ রেল দুর্ঘটনা নিয়ে সিবিআই তদন্ত চাইলো দেশটির রেলবোর্ড। রেলমন্ত্রীর ইঙ্গিত, অন্তর্ঘাত হয়েছে।

রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব প্রথমে বলেছিলেন, ইলেকট্রনিক ইন্টারলকিং সিস্টেমে গোলমালের কারণে এই দুর্ঘটনা ঘটেছে। কিন্তু রোববার সন্ধ্যায় তিনি জানালেন, এই গোলযোগের পিছনে মানুষ আছে। তাই সবদিক বিবেচনা করে সিবিআই তদন্তের সুপারিশ করেছে রেলবোর্ড।

রেলমন্ত্রী বলেন, এই কাজ যারা করেছে, তাদের চিহ্নিত করা হয়েছে। ফলে যান্ত্রিক ত্রুটি নয়, সরাসরি অন্তর্ঘাতের কথাই বলছেন রেলমন্ত্রী।

অশ্বিনীর দাবি, 'পয়েন্ট মেশিনের সেটিং পরিবর্তন করা হয়েছিল। কারা করেছে, কিভাবে করেছে তা তদন্তের পরে বুঝা যাবে। আমি শুধু এটুকুই বলতে পারি, যারা এই অপরাধ করেছে, তাদের চিহ্নিত করা সম্ভব হয়েছে।'

রোববার রেলমন্ত্রী ও রেলবোর্ডের তরফে যা বলা হয়েছে, তাতে স্পষ্ট, তারা যান্ত্রিক ত্রুটির কথা থেকে সরে আসছেন। অন্তর্ঘাতের কথা বলছেন। যান্ত্রিক ত্রুটি হলে তার দায় রেলের উপরই পড়ে। অন্তর্ঘাত হলে রেল নিজের দায় অনেকটাই এড়াতে পারে বলে বিরোধী নেতারা মনে করছেন।

ঘটনাস্থলে গিয়ে সাবেক রেলমন্ত্রী ও পশ্চিমবঙ্গের মুখ্মন্ত্রী প্রশ্ন তুলেছিলেন, ট্রেন যাতে দুর্ঘটনায় না পড়ে, তার জন্য কবচ সুরক্ষা ব্যবস্থা চালু করা হয়েছিল। তার আমলে এই কাজ শুরু হয়। কিন্তু এই লাইনের ট্রেনে কবচ ব্যবস্থা ছিল না। মমতার দাবি ছিল, কবচ থাকলে এরকম দুর্ঘটনা হত না।

কিন্তু রেলমন্ত্রী ও রেলবোর্ড তারপর থেকে বারবার বুঝাবার চেষ্টা করেছে, কবচ থাকলেও এই ধরনের দুর্ঘটনা এড়ানো যায় না। রেলবোর্ডের সদস্য জয়া বর্মা সিনহা বলেছেন, 'আপনার গাড়ির সামনে হঠাৎ যদি একটা বোল্ডার এসে পড়ে, তাহলে কি গাড়ি দুর্ঘটনা এড়ানো যাবে? রেলের ক্ষেত্রেও কিছু সময় দুর্ঘটনা এড়ানো যায় না। কবচ থাকলেও নয়।'

তবে তিনি জানিয়েছেন, 'সিগন্যালিং ব্যবস্থায় ত্রুটি ছিল। তবে আরো তদন্তের পরই পুরো বিষয়টি স্পষ্ট হবে।'
সূত্র : ডয়চে ভেলে


আরো সংবাদ



premium cement