২১ অক্টোবর ২০২১, ৫ কার্তিক ১৪২৮, ১৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিজরি
`

ব্যক্তিগত দায় নিশ্চিত হলেই এক্সিট ভিসা দেবে সৌদি

-

যেসব প্রবাসী চুক্তির মেয়াদ শেষে সব ধরনের আর্থিক প্রাপ্যতা (বেতন-সার্ভিস বেনিফিট) বুঝে পেয়েছেন তাদের অনুকূলেই ফাইনাল এক্সিট ভিসা ইস্যু করা হবে বলে সৌদি পাসপোর্ট অধিদফতর সম্প্রতি ঘোষণা দিয়েছে। পাশাপাশি একজন প্রবাসীকে ফাইনাল এক্সিট ভিসা প্রাপ্তির আগেই সব ধরনের ব্যক্তিগত আর্থিক বকেয়া, দায় ইত্যাদি পরিশোধ করতে হবে। এর মধ্যে কোনো প্রবাসীর নিজ নামে গাড়ি রেজিস্ট্রেশন থাকলে তার মালিকানা হস্তান্তর করতে হবে। এর ব্যতিক্রম হলে তার অনুকূলে ফাইনাল এক্সিট ভিসা ইস্যু হবে না।
কনসুলেট টিম জেদ্দা কর্তৃক দেশটিতে থাকা বাংলাদেশী অধ্যুষিত ক্যাম্প, কোম্পানি ও ভিলা পরিদর্শনের সময় শ্রমিকদের এসব তথ্য ব্রিফ করা হচ্ছে বলে মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে।
জেদ্দার শ্রম কাউন্সিলর আমিনুল ইসলাম স্বাক্ষরিত প্রবাসী কল্যাণ সচিব ড. আহমদ মুনিরুছ সালেহিনের কাছে পাঠানো চিঠিতে বলা হয়েছে, চুক্তির মেয়াদ শেষে সৌদি আরব ত্যাগের আগে প্রবাসী কর্মীদের বিনা ফিতে ফাইনাল এক্সিট ভিসা সংগ্রহ করতে হয়। সৌদি প্রচলিত আইনে ফাইনাল এক্সিট ভিসা ছাড়া সৌদি আরব ত্যাগের কোনো সুযোগ নেই। অধিকন্তু কোনো প্রবাসী নিজ নামে গাড়ি রেজিস্ট্রেশন করে থাকলে তার মালিকানা হস্তান্তর করতে হবে। অন্যথায় তার অনুকূলে ফাইনাল এক্সিট ভিসা ইস্যু হবে না। চিঠিতে বলা হয়েছে, ফাইনাল এক্সিট ভিসার মেয়াদ থাকে সাধারণ ৬০ দিন। এই সময়ের মধ্যে অথবা ভিসায় বর্ণিত সময়ের মধ্যে সংশ্লিষ্ট প্রবাসীকে সৌদি আরব ত্যাগ করতে হয়। ফাইনাল এক্সিট ভিসায় মেয়াদ বৃদ্ধি করা যায় না। তবে নিয়োগকারীর মাধ্যমে সৌদি ১০০০ রিয়াল পরিশোধ করলে ফাইনাল এক্সিট ভিসা বাতিল করার সুযোগ আছে বলে চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে।
ফাইনাল এক্সিট ভিসা ইস্যুর পর নিয়োগকারী প্রবাসীকে ‘হুরুব’ (পলাতক) ঘোষণা করতে পারেন না। তবে ইস্যুকৃত ফাইনাল এক্সিট ভিসা বাতিল করে ‘হুরুব’ ঘোষণা দেয়ার সুযোগ আছে জানিয়ে চিঠিতে আরো বলা হয়, সম্প্রতি প্রবর্তিত শ্রম সম্পর্কিত সংস্কার ব্যবস্থা অনুসারে কোনো কর্মী ফাইনাল এক্সিট ভিসা ইস্যুর পর নিয়োগকারী তা যাচাইয়ের জন্য ১০ দিন সময় পান। নিয়োগকারীর কাছ থেকে কোনো নেতিবাচক জবাব না পাওয়া গেলে ওই কর্মী নিজেই ফাইনাল এক্সিট ভিসা ইস্যু করতে পারেন। এরূপ ক্ষেত্রে এজাতীয় ফাইনাল এক্সিট ভিসার মেয়াদ ১৫ দিন হয়ে থাকে। উল্লেখ্য, সৌদি আরবের বাইরে অবস্থানকারী কর্মীর অনুকূলে ফাইনাল এক্সিট ভিসা ইস্যুর কোনো সুযোগ নাই। বাংলাদেশ থেকে সৌদি আরবগামী কর্মীদের এ বিষয়ে সচেতনতা বাড়ানোর জন্য প্রাক বহির্গমন প্রশিক্ষণে আলোকপাত করা যেতে পারে বলে পাঠানো চিঠিতে মন্তব্য করা হয়েছে।



আরো সংবাদ


বদলে গেল নিয়ম, ভারত-পাকিস্তানের গ্রুপে অনিশ্চিত বাংলাদেশ (১৭১৬২)পাকিস্তানের ভারতীয় সাবমেরিন রুখে দেয়ার দাবি, যা বলল ভারত (১৪১৮৫)স্বস্তির জয়ে বিশ্বকাপে টিকে থাকল বাংলাদেশ (১২৮৯৫)সুপার টুয়েলভ নিশ্চিত করতে বাংলাদেশের সামনে যে সমীকরণ (১২৬৫৪)ভারতকে নাস্তানাবুদ করা পাকিস্তানি বোলার এখন ওমান দলে! (১২৫০৫)ক্লাস শুরুর পর উত্তাল ঢাবি ক্যাম্পাস (১২৪৬৯)স্কটল্যান্ডের বিরুদ্ধে হেরে আখেরে ‘লাভ’ হলো বাংলাদেশের? (১০২৮৯)অসম্মতিতে বিয়ে করায় দুই মেয়ে ও তাদের ৪ সন্তানকে পুড়িয়ে মারলেন বাবা! (৯৩৮৭)তুরস্ক-ইরান : শত্রু-মিত্র সম্পর্কের ঝুঁকি (৮৬২০)গুজব ছড়ানোর অভিযোগে বদরুন্নেসার শিক্ষিকা আটক (৭৭২৫)