১৪ নভেম্বর ২০১৮

রংপুরে নিরাপদ সড়কের প্রচারণায় পুলিশ সুপার

-

রংপুরে নিরাপদ সড়ক কার্যক্রম বাস্তবায়নে মোটরসাইকেল চালকদের হেলমেট ব্যবহারে উদ্বুদ্ধ করতে রাস্তায় নেমেছেন পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান। বুধবার দিনভর নগরীর আরকে রোডের পর্যটন মোড়ে নিজে হেলমেটধারী বাইক চালকদের হাতে তাজা গোলাপ ফুল উপহার দিয়ে নিরাপদ সড়কের প্রচারণা করেন।
দুপুরে নগরীর আরকে রোড পর্যটন মোড়ে পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান তার পদস্থ কর্মকর্তাদের নিয়ে রাস্তায় নামেন। মোটরসাইকেল চালকদের মধ্যে বিতরণ করেন সচেতনামুলক লিফলেট ও স্টিকার। যাদের হেলমেট নেই তাদেরকে হেলমেট কিনে তা পরার জন্য বিনয়ের সাথে অনুরোধ করেন ও উপদেশ দেন।
সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান বলেন, সড়ক দুর্ঘটনায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে মোটরসাইকেল চালক ও আরোহী। মোটরসাইকেল দুর্ঘটনার সময় দেখা যায় ক্ষতিগ্রস্থদের বেশির ভাগের মাথায় হেলমেট নেই। আমরা চাই দুর্ঘটনা রোধ ও ক্ষতির পরিমাণ কমাতে মোটরসাইকেল চালকরা বাধ্যতামূলক হেলমেট ব্যবহার করুক। এজন্য শতভাগ সফলতা না আসা পর্যন্ত ‘নো হেলমেট-নো পেট্রল’ কর্মসূচী অব্যহত থাকবে। আমরা গত ২৯ আগস্ট থেকে ‘নো হেগলমেট-নো পেট্রল’ উদ্যোগ নিয়েছি। আমাদের উদ্যোগ সাড়া ফেলেছে। এখন হেলমেট পরিহিত মোটরসাইকেল চালকের সংখ্যা বেড়েছে।
পুলিশ সুপার বলেন, সড়কে শৃঙ্খলা আনতে মোটরসাইকেল চালকদের সচেতন করা হচ্ছে। পাশাপাশি সড়কে ফিটনেসবিহীন ভারী যানবাহন ও ধীরগতির গাড়ির কাগজপত্র পরীক্ষা নিরীক্ষা করা হচ্ছে। ট্রাফিক আইন অমান্যকারীদের ব্যাপারে নো কম্প্রোমাইস নীতিতে মাঠে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা চলছে। কাউকে আর ছাড় দেয়া হবে না।


আরো সংবাদ