১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯

লাবণ্য হত্যায় জড়িত ঘাতক ড্রাইভারকে গ্রেফতারের দাবি শিক্ষার্থীদের

রাজধানীর শেরে বাংলা নগরে কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় নিহত ব্রাক বিশ্ববিদ্যলয়ের ছাত্রী লাবণ্যের হত্যার শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন করেছে তার সহপাঠিরা।

শুক্রবার দুপুরে শেরেবাংলা নগর হৃদরোগ ইন্সিটটিউট এর সামনের রাস্তায় তারা এ মানববন্ধন পালন করে। একই সময় মানববন্ধনে একাত্মতা প্রকাশ করে মানববন্ধনে অংশ নেন শেরে বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরাও।

নিহত লাবণ্যের সহপাঠী ব্রাক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ফাহাদ জানান, লাবণ্যকে হত্যাকারী সেই কাভার্ডভ্যান চালককে এখনো পুলিশ গ্রেফতার করেনি। আমরা অভিযুক্ত ড্রাইভারকে দ্রুত আইনের আওতায় এনে শাস্তি নিশ্চিত করার দাবি জানাচ্ছি।

এর আগে বৃহস্পতিবার দুপুরে একই স্থানে ব্রাক বিশ্ববিদ্যালয়ের সিইসি তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ফাহমিদা হক লাবণ্য কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় নিহত হন।

লাবণ্য একটি এ্যাপ ভিত্তিক মোটরসাইকেলে করে বিশ্ববিদ্যালয়ে যাচ্ছিলেন বলে পরিবার সূত্রে যানা গেছে। তার লাশ ময়না তদন্তের জন্য শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে।

শেরে-বাংলা নগর থানার অফিসার ইনচার্জ জানে আলম মুন্সি জানান, শ্যামলীর বাসা থেকে সে ভার্সিটিতে যাচ্ছিলেন। হৃদরোগ ইন্সটিটিউটের পাশের রাস্তায় দুর্ঘটনার শিকার হয়ে ঘটনা স্থলেই নিহত হন। ময়না তদন্তের পর তার বিষয়ে আরো বিস্তারিত জানা যাবে।

এর আগে রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় ১৯ মার্চ সু-প্রভাত পরিবহনের চাপায় আবরার নিহত হন। প্রতিবাদে ফেটে পড়ে পুরো দেশ। বিভিন্ন দাবিতে মানববন্ধনসহ অবরোধ কর্মসূচিও পালন করে শিক্ষার্থীসহ সব শ্রেণীর মানুষ। ওই ঘটনায় গুলশান থানায় মামলা হলেও এখন সেটি ডিবি পুলিশ তদন্ত করছে।


আরো সংবাদ