Naya Diganta

পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ করায় সংবাদিককে পিটিয়ে জখম

বরগুনার তালতলীতে সংবাদ প্রচারের জেরে আবুল হাসানের নামের এক সংবাদকর্মীর ওপর নৃশংস হামলা করেছেন ছোট ভাই জোড়া আলিম মাদরাসার জুনিয়র মৌলভী শিক্ষক আব্দুল মোতালিব ও তার ভায়রার ছেলে শাহীন সাইরাজসহ কতিপয় সন্ত্রাসীরা।

এ সময় মোটরসাইকেল ক্রয়ের জন্য তার সাথে থাকা ৬৫ হাজার টাকা ও একটি মোবাইল সেট ছিনতাই করে নিয়ে যায় সন্ত্রাসীরা।

বুধবার সকাল ১০টার দিকে উপজেলার কাপড়পট্টি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহত অবস্থায় ওই সাংবাদিককে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে আমতলী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

আহত সাংবাদিক আবুল হাসান বলেন, গত মঙ্গলবার কাজিরখাল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে সুদের পাওনা টাকার দাবিতে রড দিয়ে পিটিয়েছে তালতলী ছোট ভাই জোড়া আলিম মাদরাসার ইবতেদায়ি জুনিয়র মৌলভী আব্দুল মুতালিব। গুরুতর আহত প্রধান শিক্ষক ইদ্রিস আলী আমতলী হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। এ সাংবাদটি দৈনিক নয়াদিগন্ত, দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিন ও দৈনিক দিগন্তর পত্রিকাসহ বিভিন্ন পত্রিকা ও অনলাইন পোর্টালে প্রকাশিত হয়। এই সংবাদ প্রচারের জেরে আমার ওপরে হামলা করে ৬৫ হাজার টাকা ও মোবাইল ফোন ছিনতাই করে নিয়ে যায় মোতালেব, তার ভায়রাপো সাইরাজসহ কতিপয় সন্ত্রাসীরা।

এদিকে মারধরের শিকার আবুল হাসানকে তালতলী হাসপাতাল থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে আমতলী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হলে হামলাকারী মোতালেব ও তার সহযোগিরা অভিযুক্ত শাহিন শাইরাজের মাথা ব্লেড দিয়ে চিরে মিথ্যা মামলার ষড়যন্ত্র করে আমতলী হাসপাতালে ভর্তি করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত আব্দুল মুতালিবের সাথে একাধিকবার মুঠোফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলেও তার মোবাইল ফোনটি বন্ধ পাওয়া গেছে।