Naya Diganta

পুলিশের গুলিতে অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহার মৃত্যু : জামায়াতের নিন্দা

পুলিশের গুলিতে অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোঃ রাশেদ খান নিহত হওয়ার ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর সেক্রেটারি জেনারেল ও সাবেক এমপি অধ্যাপক মিয়া গোলাম পরওয়ার মঙ্গলবার এক বিবৃতি দিয়েছেন।

বিবৃতিতে তিনি বলেন, “গত ৩১ জুলাই টেকনাফের বাহারছড়ায় শামলাপুর চেকপোস্টে অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোঃ রাশেদ খান পুলিশের গুলিতে নিহত হয়েছেন। তিনি অর্থ মন্ত্রণালয়ের সাবেক যুগ্মসচিব ও মুক্তিযোদ্ধা জনাব মোঃ এরশাদ খানের পুত্র। মেধাবি ও তরুণ এ সেনা কর্মকর্তা ২০১৮ সালে সেনাবাহিনী থেকে স্বেচ্ছায় অবসরে যান এবং একটি ইউটিউব চ্যানেলে কাজ শুরু করেন।

আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর দায়িত্ব হলো কাউকে সন্দেহজনক মনে হলে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা বা আইনের আওতায় এনে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া। কিন্তু কোনো জিজ্ঞাসাবাদ, তদন্ত ও বিচার ছাড়াই কাউকে গুলি করে হত্যা করা মানবাধিকার ও আইনের সুস্পষ্ট লংঘন। আমরা উদ্বেগের সাথে লক্ষ্য করছি যে, বিচার বহির্ভূত হত্যা ক্রমেই বৃদ্ধি পাচ্ছে। আইন ও সালিশ কেন্দ্রের তথ্যানুযায়ী গত জুলাই মাসে ৩৫ জনকে এবং গত জানুয়ারি থেকে জুন পর্যন্ত ১৪৩ জনকে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী কর্তৃক ক্রসফায়ারের নামে বিচার বহির্ভুতভাবে হত্যা করা হয়েছে। বিনা বিচারে কাউকে হত্যা করার অধিকার কারো নেই। দেশে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির যে চরম অবনতি ঘটেছে, তার নির্মম শিকার হয়ে সিনহা দুনিয়া থেকে বিদায় নিলেন। আমরা এ হত্যাকাণ্ডের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

মেজর (অবঃ) জনাব সিনহা মোঃ রাশেদ খান হত্যার সুষ্ঠু তদন্ত করে এ হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত ব্যক্তিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদান করার জন্য আমি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি আহবান জানাচ্ছি।”

- বিজ্ঞপ্তি