১৮ জুলাই ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১, ১১ মহররম ১৪৪৬
`
গণতন্ত্র মঞ্চের পদযাত্রা

সরকারের পতন না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলবে

-

বর্তমান সরকারের পতন না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে গণতন্ত্র মঞ্চ। গতকাল রোববার দুপুরে মালিবাগ রেলগেটের সামনে পদযাত্রাপূর্ব সংক্ষিপ্ত সমাবেশে গণতন্ত্র মঞ্চের নেতা নাগরিক ঐক্যের সভাপতি মাহমুদুর রহমান মান্না এ ঘোষণা দেন।
তিনি বলেন, আমরা আন্দোলন শুরু করেছি, আমরা আন্দোলন থামাচ্ছি না। আমরা লড়াই শেষ পর্যন্ত করব। যত দিন পর্যন্ত সরকারের পতন না হবে, যত দিন পর্যন্ত আমাদের যে দাবি এই নির্বাচন ব্যবস্থা, গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা, রাষ্ট্রব্যবস্থা, সংবিধান পরিবর্তন করে জনগণের অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে না পারব তত দিন পর্যন্ত আমাদের লড়াই অব্যাহতগতিতে চলবে।
মান্না বলেন, আমরা অন্য কারো সাথে হাতমিলিয়ে, আপস করে, করমর্দন করে, কারো সাথে বিভিন্নভাবে চুক্তি করে, রাতের বেলা দেখা করে কোনো রকম সমঝোতা করবার চেষ্টা করছি না। আমরা এ (সরকার পতন) লড়াই চালিয়ে যাবো এবং বিশ্বাস করি এই লড়াইয়ে আমরা জিতব। সকাল সাড়ে ১১টায় মালিবাগ রেলগেটের কাছে গণতন্ত্র মঞ্চের উদ্যোগে ‘সরকারের পদত্যাগ, সংসদ বিলুপ্ত, অন্তর্বর্তীকালীন সরকারের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তরসহ ১৪ দফা দাবিতে পদযাত্রাপূর্ব এই সমাবেশ হয়। সমাবেশের পর পদযাত্রাটি মালিবাগ রেলগেট থেকে বাড্ডা অভিমুখে যায়। এর আগে গত ২৩ মে ঢাকা মহানগর দক্ষিণে পদযাত্রা করে তারা।
যুক্তরাষ্ট্রে ভিসানীতির প্রসঙ্গ টেনে মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, এই সরকার গোটা দেশের রাষ্ট্রযন্ত্রকে নিজের কবজায় নিয়ে ব্যবহার করেছে। যখন যুক্তরাষ্ট্র বলেছে, এখন এসব অপকর্ম যারা করবে তাদের ভিসা দেয়া হবে না। তলে তলে কাজ শুরু হয়ে গেছে। স্পষ্ট করে বলি, এগুলো চলবে। চলবে এ কারণে যে দুনিয়ার বুকে বাংলাদেশের মান-সম্মান এ সরকার শেষ করে দিয়েছে। আমরা তার বিরুদ্ধে দাঁড়িয়েছি। বহু বছর ধরে বলেছি, এভাবে ভোট চুরি করে, জালিয়াতি করে, শঠতা করে, মানুষের সাথে প্রতারণা করে ক্ষমতায় থেকে ডাণ্ডা দিয়ে, অত্যাচার-গুম-খুন করে ক্ষমতায় থাকা দীর্ঘদিন সম্ভব নয়। অতএব, দিনে দিনে বহু বাড়িয়াছে দেনা সুদিতে হবে। এখন সেই সময় আসছে। এখন আপনাকে যেতে হবে।

দিনাজপুর অভিমুখে রোড মার্চ ৪ জুন
গণতন্ত্র মঞ্চের সমন্বয়ক বাংলাদেশের বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক বলেন, আমরা রাজপথে আছি, রাজপথে থাকব। এই সরকারকে পদত্যাগে বাধ্য করে বাংলাদেশকে রক্ষা করব, জনগণকে রক্ষা করব, বাংলাদেশের ভবিষ্যৎকে রক্ষা করব।
তিনি বলেন, দেশব্যাপী গণতন্ত্র মঞ্চের লড়াই চলবে। আগামী ৪ জুন থেকে ৭ জুন পর্যন্ত এই সরকারের পদত্যাগ, অন্তর্বর্তীকালীন সরকার এবং মানুষের ভোটাধিকার নিশ্চিত করবার জন্য আমরা ঢাকা থেকে দিনাজপুর অভিমুখী রোড মার্চ করব। ৪ তারিখ জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে থেকে এই রোড মার্চ শুরু হবে। তিনি বলেন, আমরা ধারাবাহিকভাবে কোরবানি ঈদের আগেই আন্দোলনকে নতুন পর্যায়ে উন্নীত করার জন্য আরো নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করব।
জেএসডির সহসভাপতি তানিয়া রব বলেন, আজকে আমেরিকার যে বিধি-নিষেধটা এসেছে আপনার-আমার সবার ওপরে। আমেরিকা বিধি নিষেধ করবে এটাতে বাহাবা দেয়ার কিছু নেই, আপনার-আমার হাসি হাসারও কিছু নেই, এটা অত্যন্ত দুঃখের। কিন্তু কেন হলো? কেন এই জায়গায় আমাদেরকে নামানো হলো? কারা দায়ী? যারা ১৫ বছর ক্ষমতায় ছিল জনগণের ন্যূনতম অধিকারটুকু দেয়নি, ভোটাধিকার কেড়ে নিয়েছে, দিনের ভোট রাতে করেছে। নিজেরা নিজেরা ভোট করে সেটাকে সুষ্ঠু ভোট বলা হচ্ছে গাজীপুরে।
গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি বলেন, আওয়ামী লীগের নেতারা কতটা বাংলাদেশের মানুষকে বোকা ভাবেন। খোদ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পর্যায়ের নেতা, একজন সিনিয়র নেতা তিনি বলেন যে, যুক্তরাষ্ট্রের এই যে ভিসানীতি এটাতে না কি বিএনপি বেকাদায় আছেন।
তিনি বলেন, দেশে ভোট চুরি করে সরকার, সরকার, আজকে তাদের (আইনশৃঙ্খলা বাহিনী) নামে বদনাম হচ্ছে দুনিয়ায়, তাদের ওপর স্যাংশন আরোপ হচ্ছে। আর ভিসা নীতি না কি বিরোধী দলের জন্য। এটা বলা একমাত্র আওয়ামী লীগের নেতাদের পক্ষেই সম্ভব।
গণতন্ত্র মঞ্চের সমন্বয়ক সাইফুল হকের সভাপতিত্বে পদযাত্রাপূর্ব সমাবেশে বাংলাদেশ ভাসানী অনুসারী পরিষদের আহ্বায়ক শেখ রফিকুল ইসলাম বাবলু ও রাষ্ট্র সংস্কার আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক হাসনাত কাইয়ুমও বক্তব্য রাখেন। এ ছাড়া সকালে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে থেকে সরকার পদত্যাগের ১০ দফা দাবিতে গণতান্ত্রিক বাম ঐক্য সমাবেশ এবং বাংলাদেশের লেবার পার্টি পদযাত্রা করে।


আরো সংবাদ



premium cement
‘যুদ্ধ শুরু হলে নিশ্চিতভাবে লেবানন হবে ইসরাইলের জন্য দোযখ’ ট্রাম্পকে হত্যাচেষ্টার ছবি যেভাবে নির্বাচনকে প্রভাবিত করতে পারে? ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের অভিযোগ প্রত্যাখ্যান ইরানের কোটাবিরোধী আন্দোলনে রক্তাক্ত সহিংসতায় চট্টগ্রামে ৪ মামলা শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখার আহবান পুলিশ সদর দফতরের কোটা আন্দোলনকারী ৬ শিক্ষার্থী হত্যার তীব্র নিন্দা জানিয়েছে হেফাজতে ইসলাম খাগড়াছড়িতে গাড়ির চাকায় পিষ্ট হয়ে শিশু নিহত, আহত মা ক্যাম্পাসে রাজনীতি নিষিদ্ধসহ শিক্ষার্থীদের ৬ দফা দাবি মেনে নেয়ার আশ্বাস জবি প্রশাসনের ছাত্রলীগ ও প্রশাসনের সাঁড়াশি অভিযান, ছাত্রশিবিরের তীব্র নিন্দা জাফর ইকবালের বই পুড়িয়ে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ কোটা আন্দোলনে নিহতদের নাম বুকে লিখে তাজিয়ার আদলে প্রতিবাদী মিছিল

সকল