Naya Diganta

পুলিশকে টাকা না দেয়ায় ডিম ফেলে দেয়া স্থান পরিদর্শনে হাইওয়ে এসপি

নাটোরের বড়াইগ্রামে চাহিদামত উৎকোচ না পেয়ে রাস্তায় ফেলে তিন লাখ টাকার ডিম নষ্ট করার ঘটনাটি দৈনিক নয়া দিগন্তসহ বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশ হওয়ায় টনক নড়েছে প্রশাসনের।

শুক্রবার সংবাদ প্রকাশ হলে দুপুরেই বগুড়া অঞ্চলের হাইওয়ে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শহীদুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। দুপুর ১২টার দিকে তিনি বগুড়া থেকে নাটোরের বড়াইগ্রামের আগ্রান সূতিরপাড়ে আসেন। পরিদর্শনকালে তিনি ঘটনাস্থলে পরে থাকা কয়েক টুকরা কাটা রশিসহ অন্যান্য আলামত সংগ্রহ করেন।

একই সঙ্গে তিনি স্থানীয় লোকজনসহ ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শীদের সাথে কথা বলেন। এ সময় সেখানে বড়াইগ্রাম উপজেলা প্রেসক্লাব সভাপতি অহিদুল হক, ইউপি সদস্যসহ স্থানীয় কয়েকজন সাংবাদিক উপস্থিত ছিলেন। পরে তিনি সেখান থেকে বনপাড়া হাইওয়ে থানায় যান। সেখানে তিনি বিষয়টি নিয়ে থানার ওসি আলিম হোসেন শিকদারসহ রাতের পেট্রোল ডিউটিতে থাকা পুলিশ সদস্যদের সঙ্গেও কথা বলেন।

এদিকে, ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ী সিরাজগঞ্জের কামারখন্দ উপজেলার বিপ্লব কুমার সাহা এ ব্যাপারে বগুড়া অঞ্চলের হাইওয়ে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শহীদুল ইসলামের কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন।

পরিদর্শন শেষে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, আমি পত্র-পত্রিকার মাধ্যমে জেনে বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে নিয়েছি এবং নিজে স্বশরীরে এখানে এসেছি। আমি বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করছি। নিরপেক্ষ তদন্তে যারা দায়ী হবে তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। এক্ষেত্রে অপরাধী প্রমাণ হলে কেউ ছাড় পাবে না।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার সকালে বনপাড়া-হাটিকুমরুল মহাসড়কের আগ্রান সূতিরপাড়ে চাহিদামত উৎকোচ না পাওয়ায় পুলিশ পিকআপের রশি কেটে প্রায় তিন লাখ টাকার ডিম রাস্তায় পড়ে নষ্ট হয়ে যায়।