১০ জুলাই ২০২০

কাশ্মিরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আবদুল্লাহ গ্রেফতার

ভারতশাসিত জম্মু ও কাশ্মিরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আবদুল্লাহ - সংগৃহীত

জম্মু ও কাশ্মিরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী, বর্তমান রাজ্যসভা সদস্য, ন্যাশনাল কনফারেন্স (এনসি) নেতা ফারুক আবদুল্লাহকে গ্রেফতার করেছে ভারতীয় নিরাপত্তাবাহিনী। জননিরাপত্তা আইনে (পিএসএ) রোববার (১৫ সেপ্টেম্বর) রাতে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এর আগে গত ৫ আগস্ট থেকে কাশ্মিরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আব্দুল্লাহকে গৃহবন্দি করে রেখেছিল ভারত সরকার। দীর্ঘদিন গৃহবন্দী করে রাখার পর রোববার রাতে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম দ্য ডন, মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক সংবাদ সংস্থা গালফনিউজ ও ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়া টুডে’তে ফারুক আবদুল্লাহকে গ্রেফতারের খবর জানানো হয়েছে। ভারতের বিতর্কিত ও কঠোর এই জননিরাপত্তা আইনের অধীনে কোন শুনানি বা বিচার ছাড়াই গ্রেফতারকৃতকে দুই বছর পর্যন্ত আটক রাখা যায়।

এর আগে গত ৫ আগস্ট থেকে কাশ্মিরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আব্দুল্লাহকে গৃহবন্দি করার বিষয়ে ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ পরদিন ৬ আগস্ট বলেছিলেন,‘না তাকে আটক রাখা হয়েছে, না তিনি সাজা প্রাপ্ত হয়েছেন, তিনি যা করছেন সব নিজের ইচ্ছায়’। যদিও ফারুকের পক্ষ থেকে তখন দুইজন এনসি নেতা বলেছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সংসদে মিথ্যাচার করেছেন।

এর আগে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম দ্য হিন্দু পত্রিকা সে সময় জানিয়েছিল যে, ৩৭০ ধারা বাতিলের মাধ্যমে কাশ্মিরের বিশেষ মর্যাদা বিলোপ না করতে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সাথে দেখা করে অনুরোধ জানিয়েছিলেন ফারুক আবদুল্লাহ ও তার পুত্র ওমর আব্দুল্লাহ।

এদিকে সোমবার (১৬ সেপ্টেম্বর) ভারতের সুপ্রিম কোর্টের পক্ষ থেকে জারি করা এক নোটিশে জানানো হয়- ফারুক আব্দুল্লাহর মামলাটির শুনানির জন্য আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে।


আরো সংবাদ