২৫ মে ২০২২
`

সোনাইমুড়ীতে সৌদি প্রবাসীকে নির্বাচন কর্মকর্তা ও অফিস সহকারীর মারধর


নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয়ে এক সেবা প্রার্থী সৌদি প্রবাসীকে মারধর করার অভিযোগ উঠেছে।

সোমবার সকাল ১১টার দিকে সোনাইমুড়ী উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে।

বিচার চেয়ে ভুক্তভোগী আজগর হোসেন সোনাইমুড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বরাবর লিখিত অভিযোগ দাখিল করেন।

ভুক্তভোগী ও লিখিত অভিযোগে জানা যায়, সোমবার সকাল ১১টার দিকে জাতীয় পরিচয় পত্র সংশোধনের আবেদন ভুল হওয়ার কারণে অনলাইন আবেদন কপি ডিলিট করার জন্য সোনাইমুড়ী উপজেলা নির্বাচন অফিসে যান প্রবাসী আজগর হোসেন। আকস্মিক উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা শেখ ফরিদ উত্তেজিত হয়ে কাগজপত্র ছুড়ে ফেলে দেয়। এ সময় প্রবাসী প্রতিবাদ করলে অফিস সহকারী আইয়ুব উল্যাহ ও উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা শেখ ফরিদ তাকে কয়েক বার ধাক্কা মেরে ও কিলঘুষি দিয়ে অফিস থেকে বের দেয়। এরপর নির্বাচন কর্মকর্তা শেখ ফরিদ তেড়ে এসে তাকে পুলিশের ভয়-ভীতি ও বাথরুমে আটকে রাখার হুমকি দেয়। ভুক্তভোগী প্রবাসী এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে দোষীদের শাস্তি দাবি করেন।

সোনাইমুড়ী উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা শেখ ফরিদ জানান, এ উপজেলায় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের তফসিল ২৭ তারিখে ঘোষণা হয়েছে। তারা নির্বাচন নিয়ে ব্যস্ত আছেন। সকালে অফিসে এক প্রবাসীর সাথে ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে। তবে তিনি প্রবাসীকে মারধর করার অভিযোগ অস্বীকার করেন।

সোনাইমুড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ফজলুর রহমান বলেন, নির্বাচন কর্মকর্তা ও তার অফিসের এক কর্মচারীর বিরুদ্ধে এক প্রবাসীকে মারধর ও অসদাচরণ করার অভিযোগ এনে লিখিত অভিযোগ দাখিল করেছেন ভুক্তভোগী প্রবাসী। এ বিষয়টি তদন্ত করে আইনগত ব্যাবস্তা নেয়া হবে।


আরো সংবাদ


premium cement