১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

চিকিৎসককে ধর্ষণের চেষ্টা পাঠাও চালকের 

চিকিৎসককে ধর্ষণের চেষ্টা পাঠাও চালকের  - সংগৃহীত

রাইড শেয়ারিং অ্যাপ পাঠাওয়ের এক চালককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ তিনি যাত্রী হয়ে ওঠা এক শিক্ষানবিশ চিকিৎসককে ধর্ষণের চেষ্টা করেছেন। গ্রেপ্তার মিজানুর রহমান (২৯) চট্টগ্রামের নিউমুরিং আবাসিক এলাকায় থাকেন। তার বাড়ি কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলার হাটখোলার বেপারি পাড়ায়।

রোববার ভোরে বাসা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে জানিয়েছেন চট্টগ্রাম নগর পুলিশের সহকারী কমিশনার (ডবলমুরিং) আশিকুর রহমান।

মিজানের বিরুদ্ধে অভিযোগকারী নারী চট্টগ্রামের একটি বেসরকারি কলেজ থেকে এমবিবিএস পাস করার পর শিক্ষানবিশ চিকিৎসক হিসেবে কাজ করছেন।

তিনি পুলিশকে বলেছেন, গত ২৪ জুলাই ফ্রি পোর্ট এলাকা থেকে ভাটিয়ারি নেওয়ার পথে পাহাড়তলীর জেলে পাড়া এলাকায় গাড়ি থামিয়ে তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন মিজান। পুলিশ কর্মকর্তা আশিকুর বলেন, ওই নারী বাদী হয়ে একটি মামলা করেছেন।

পাহাড়তলী থানার এসআই অর্ণব বড়ুয়া বলেন, অভিযোগের পর কারচালক মিজানুর রহমানকে নিউমুরিংয়ে তার বাসা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। তার বাসা থেকে ওই নারীর ব্যবহৃত মোবাইল ফোন, ভ্যানিটি ব্যাগও উদ্ধার করা হয় বলে জানান তিনি।

এসআই অর্ণব বলেন, “সপ্তাহ দুয়েক আগে ওই চিকিৎসক তার কলেজ থেকে পাঠাও অ্যাপের মাধ্যমে মিজানের গাড়িতে করে বাসায় আসেন। ওইদিন মিজান তার মোবাইল নম্বর দিয়ে ওই চিকিৎসককে বলেছিলেন, গাড়ি না পেলে বা নেটওয়ার্ক ডিস্ট্রার্ব করলে তাকে যেন ফোন করা হয়।

‘ঘটনার দিন বৃষ্টির কারণে ওই তরুণী ভাটিয়ারি যাওয়ার গাড়ি পাচ্ছিলেন না। তখন মিজানকে ফোন করলে তিনি আসেন।’ টোল রোড দিয়ে ভাটিয়ারি যাওয়ার পথে পাহাড়তলী জেলে পাড়া এলাকায় মিজান জঙ্গলের পাশে গাড়ি থামিয়ে পেছনের আসনে থাকা ওই চিকিৎসককে ধর্ষণের চেষ্টা করেন বলে মামলায় অভিযোগ করা হয়।

এসআই অর্ণব বলেন, তখন ওই চিকিৎসক নিজেকে ছাড়িয়ে নিয়ে গাড়ি থেকে বেরিয়ে চিৎকার শুরু করেন। তার মোবাইল ফোন ও ভ্যানিটি ব্যাগটি গাড়িতেই থেকে যায়। আর মিজান গাড়ি নিয়ে পালিয়ে যান।


আরো সংবাদ

Hacklink

ofis taşıma Instagram Web Viewer

canli radyo dinle

Yabanci Dil Seslendirme