১২ আগস্ট ২০২২
`

জরুরি অবস্থা তুলে নিলো শ্রীলঙ্কা

-

প্রায় দুই সপ্তাহ পর জরুরি অবস্থা তুলে নেয়ার ঘোষণা দিলো শ্রীলঙ্কা সরকার। গত শুক্রবার দিবাগত মধ্যরাত থেকে জরুরি অবস্থা প্রত্যাহার করা হয়েছে। তীব্র অর্থনৈতিক সঙ্কটে ভোগা শ্রীলঙ্কায় সরকারবিরোধী আন্দোলন থামাতে গত ৬ মে জরুরি অবস্থা জারি করে দেশটির সরকার। গত এক মাসের মধ্যে শ্রীলঙ্কায় একাধিকবার জরুরি অবস্থা জারি করা হয়।
শ্রীলঙ্কার সংবাদমাধ্যম হিরু নিউজের বরাত দিয়ে ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম পিটিআইর প্রতিবেদনে বলা হয়, শুক্রবার গভীর রাতে জারি করা বিবৃতিতে জরুরি অবস্থা প্রত্যাহার করে নেন প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসে। শ্রীলঙ্কায় জরুরি অবস্থা জারি হওয়ার ফলে সেনা ও পুলিশের হাতে প্রচুর ক্ষমতা চলে আসে। তারা বিনাবিচারে যেকোনো মানুষকে আটকে রাখার ক্ষমতা পায়।
তীব্র অর্থনৈতিক সঙ্কটে ভোগা শ্রীলঙ্কায় সরকারবিরোধী আন্দোলন এখন পর্যন্ত ৯ জন নিহত ও ২০০ জনের বেশি আহত হয়েছেন। এই আন্দোলনের কারণে প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে পদত্যাগ করতে বাধ্য হন মাহিন্দা রাজাপাকসে। তবে এখনো পদত্যাগ করেননি শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসে। ঋণে জর্জরিত শ্রীলঙ্কায় খাদ্য, ওষুধ, জ্বালানি, বিদ্যুতের সঙ্কট ভয়াবহ রূপ নিয়েছে। অর্থনৈতিক ও বৈদেশিক মুদ্রার মজুদসঙ্কটে পরিস্থিতি সামাল দিতে পারছে না সরকার। সঙ্কটের জন্য ক্ষমতাসীন রাজাপাকসে পরিবারকে দায়ী করে গণবিক্ষোভ করছে দেশটির মানুষ। তারা প্রেসিডেন্টের পদত্যাগ দাবি করছেন।


আরো সংবাদ


premium cement