২০ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩০, ১৩ জিলহজ ১৪৪৫
`
সাক্ষাৎকার

গাজায় গণহত্যা বন্ধে শিল্পীদের ভূমিকার রাখার আহ্বান ‘আর্তুগ্রুল’র (ভিডিও)

আলজাজিরা মুবাশিরে সাক্ষাৎকার দেয়ার মুহূর্তে ‘আর্তুগ্রুল’ - ভিডিও থেকে নেয়া ছবি

গাজায় চলমান গণহত্যা বন্ধে শিল্পীদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করার আহ্বান জানিয়েছেন ওসমানিয়া সাম্রাজ্যের ভিত্তি নিয়ে নির্মিত জনপ্রিয় তুর্কি সিরিজ ‘দিরিলিস আর্তুগ্রুল’-এ কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করে বিশ্বব্যাপী প্রসিদ্ধি পাওয়া অভিনেতা এনজিন আলতান দোজায়তান।

গতকাল মঙ্গলবার (৪ জুন) আলজাজিরা মুবাশিরে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি এ আহ্বান জানান।

সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘গাজায় খুব বড় ট্রাজেডি চলছে। সেখানে যা ঘটছে তা খুবই স্পষ্ট এবং বিশ্বের চোখের সামনেই সবকিছু ঘটছে। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত এ বিষয়ে সবাই কেমন যেন নিরব রয়েছে।’

এনজিন বলেন, ‘এক শ্রেণি তো স্থায়ীভাবেই নিরব রয়েছে। কারণ আমরা একটা আধুনিক সমাজ এবং এমন এক সময়ে বসবাস করছি, যা খুবই দ্রুত অতিবাহিত হচ্ছে। আসলে, প্রত্যেকেরই নিজস্ব সমস্যা আছে আর সে সমস্যাগুলোও ছোট নয়।’

তিনি আরো বলেন, ‘তবে হ্যাঁ, তারা এক মুহূর্তের জন্য হলেও ফিলিস্তিনকে দেখে এবং এই পরিস্থিতির জন্য দুঃখ বোধ করে। কিন্তু তারপর আবার তারা নিজেদের সমস্যাগুলো নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়ে। কারণ দুঃখজনক হলেও সত্য, পৃথিবীর সবাই মনে করে নিজের সমস্যাগুলো সব থেকে বড় সমস্যা। কিন্তু বাস্তবে তা নয়।’

এনজিন বলেন, ‘ট্রাজেডিগুলো যখন আমাদের থেকে অনেক দূরে ঘটে, তখন আমরা মনে করি যে কিছুই ঘটছে না, বা কিছুই ঘটেনি। কিন্তু বাস্তবে গাজায় অনেক বড় ট্রাজেডি চলছে। মানুষ খুব কঠিন পরিস্থিতিতে বসবাস করছে। প্রতিদিন এ নিয়ে চিন্তা করলে আপনি ঠিক থাকতে পারবেন না এবং ঠিক থাকা সম্ভবও নয়। এজন্য গাজায় যা ঘটছে তা হাইলাইট করা উচিত।’

তুর্কি এ অভিনেতা আরো বলেন, ‘শিল্পীদের উচিত এদিকে দৃষ্টিপাত করা। যাতে যা ঘটছে মানুষ তা ভুলে না যায় এবং ভুলে যেতে বাধ্য না হয়। যতটুকু সম্ভব শিল্পীদের তা সমাধান করা উচিত। যেমন আমি পূর্বে বলেছি, জীবন এভাবে চলতে পারে না। এ নিয়ে চিন্তা করলে আপনিও জীবন অতিবাহিত করতে পারবেন না। আসলে সবারই নিজস্ব জীবন আছে যা নিয়ে সবাই ব্যস্ত।’

-আলজাজিরা মুবাশির থেকে ইমাম হুসাইনের অনুবাদ

 


আরো সংবাদ



premium cement