০৫ এপ্রিল ২০২০

বাসাবাড়ির চুলায় নয়, শিল্পে গ্যাস দেব : সংসদে প্রতিমন্ত্রী

বাসাবাড়ির চুলায় নয়, শিল্পে গ্যাস দেব : সংসদে প্রতিমন্ত্রী - ছবি : সংগৃহীত

সারা দেশের শিল্প কারখানায় প্রাকৃতি গ্যাসের সরবরাহ অগ্রাধিকার পাবে, বাসাবাড়ির চুলায় নয় বলে জাতীয় সংসদে জানিয়েছেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ।

তিনি বলেছেন, আমাদের মহামূল্যবান গ্যাস। সবাই চান এই গ্যাস তার বাসার চুলায় নিতে। আমরা এই বিষয় থেকে বিরতি নিতে চাই।

বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে কার্যপ্রণালী বিধির ১৩৭ বিধিতে আনীত সিদ্ধান্ত প্রস্তাবের জবাব দিতে গিয়ে প্রতিমন্ত্রী এ সব কথা বলেন। সিদ্ধান্ত প্রস্তাবটি উত্থাপন করেন সরকারদলীয় সংসদ সদস্য নরুন্নবী চৌধুরী।

গ্যাসের অগ্রাধিকার প্রসঙ্গে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমরা কি আবাসিক খাতে গ্যাস দেব, শিল্পখাতে গ্যাস দেব, কমার্শিয়াল খাতে গ্যাস দেব, সিএনজিতে গ্যাস দেব, নাকি পাওয়ার প্ল্যান্টে গ্যাস দেব। কোনটা আমাদের অগ্রাধিকার? যদি আমরা গ্যাস দিয়ে পাওয়ার বানাই সেখানে যে এনার্জি তৈরি হয় সেটার এফিশিয়েন্সি ৬৫ শতাংশ। চুলাতে যে গ্যাস ব্যবহার করে আমরা রান্না করি তার এফিশিয়েন্সি ৫ শতাংশ।

তিনি বলেন, দুইটি চুলায় এক মাসে যে পরিমাণ গ্যাস ব্যবহার করে, সেই গ্যাস দিয়ে যদি গার্মেন্টসের ব্রয়লার চালানো হয় তাহলে ১০০ লোকের কর্মসংস্থান তৈরি হয়। কাজেই গুরুত্বটা কোথায়? বুঝতে হবে। অতি মূল্যবান প্রাকৃতিক গ্যাস উত্তোলন করতে ৯ টাকা আর সেই গ্যাস বিক্রি করছি গড়ে ৭ টাকা।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, গ্যাসের চাহিদা মেটাতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার প্রায় ৬ হাজার কোটি টাকা ভর্তুকি দিচ্ছে। গ্যাসের চাহিদার ক্ষেত্রে স্বস্তির লেবেল তৈরি করার জন্য এই ভর্তুকি দেয়া হচ্ছে। যে গ্যাস আমদানি করছি সেখানেও প্রায় ১০-১২ হাজার কোটি টাকা ভর্তুকি দেয়া হচ্ছে। যে পরিমাণ গ্যাস আমাদের শিল্পে ব্যবহার করা হয় সেখানেও যাতে স্বস্তি তৈরি হয়।

তিনি বলেন, মহামূল্যবান গ্যাস সবাই চুলার মধ্যে নিতে চাচ্ছি। এই বিষয় থেকে বিরতি নিতে চাই। গ্যাসের ব্যবহার বিষয়ে ২০১৮ সালের ৩ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় সিদ্ধান্ত হয়েছে ভোলায় বিদ্যুৎকেন্দ্র ব্যতিত অন্য কোনো প্রতিষ্ঠানে গ্যাস সরবরাহের প্রয়োজন নেই। সেখানে নির্মিতব্য বিদ্যুৎকেন্দ্র দ্বৈত জ্বালানিভিত্তিক হতে হবে। ডুয়েল-ফুয়েল করব। যদি গ্যাসও ফুরিয়ে যায়, যাতে তেল দিয়েও চালাতে পারি।

তিনি বলেন, ভোলা থেকে বরিশাল পর্যন্ত পাইপলাইনে গ্যাস নেয়া যায় কিনা- সেই সমীক্ষা করছি। বরিশালে আমরা শিল্প করতে চাই। আমরা শিল্প এলাকাতে দিতে চাই। বাংলাদেশের যতগুলো শিল্প এলাকা হোক সেখানে আমাদের অগ্রাধিকার থাকবে।


আরো সংবাদ

দুই সপ্তাহ ফাঁকা থাকলেও ঢাকার বাতাসের মান এখনো ‘অস্বাস্থ্যকর’ হতদরিদ্র মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন শামীমা আক্তার রুবী সাহায্যপ্রার্থীর তালিকায় মধ্যবিত্তরাও করোনায় ইউরোপকে ছাড়িয়ে যেতে পারে ভারত করোনাভাইরাসে বিশ্বে প্রাণহানি ৬৪ হাজার ছাড়াল করোনাকে চ্যালেঞ্জ দিয়ে ধরা খেলেন জার্মান মেয়র যে ১৮টি দেশে এখনো করোনাভাইরাস যায়নি ’সুস্থ হয়ে উঠুক বিশ্ব’‍ জার্মানি ও নেদারল্যান্ডসের ১০০ মসজিদে আজান ডানপন্থী কেয়ার স্টারমার ব্রিটেনের লেবার পার্টির নতুন প্রধান করোনাভাইরাসে সন্দেহে নারায়ণগঞ্জে আরেকজনের মৃত্যু, এলাকা লকডাউন মালিকদের অসতর্কতায় পোশাক শিল্পে করোনার আতঙ্ক বাড়ছে

সকল