১৮ জুলাই ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১, ১১ মহররম ১৪৪৬
`

তিউনিসিয়ার সিনাগগে বন্দুক হামলায় নিহত ৪

- ছবি - ইন্টারনেট

তিউনিসিয়ার বিখ্যাত সিনাগগে মঙ্গলবার এক পুলিশ কর্মকর্তার চালানো বন্দুক হামলায় ইহুদিদের বার্ষিক ধর্মীয় অনুষ্ঠানে অংশ নেয়া দুই উপাসক এবং নিরাপত্তা বাহিনীর দুই সদস্য নিহত হয়েছে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এ কথা জানিয়েছে।

খবর এএফপি’র।

মন্ত্রণালয় জানায়, জেরবা দ্বীপের ঘরিবা সিনাগগে এ হামলায় আরো চার দর্শনার্থী এবং পাঁচ নিরাপত্তা কর্মকর্তা আহত হয়েছে। পরে সেখানে পাল্টা অভিযানে হামলাকারীও নিহত হয়।

এক বিবৃতিতে বলা হয়, তিউনিসিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় নিহত দুই উপাসকের পরিচয় পেয়েছে। তাদের একজন তিউনিয়ার নাগরিক। তার বয়স ৩০ বছর। অপরজন ফরাসি নাগরিক। তার বয়স ৪২ বছর। কিন্তু মন্ত্রণালয় তাদের নাম প্রকাশ করেনি।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, হামলাকারী প্রথমে একজন সহকর্মীকে গুলি করে হত্যা করে এবং তার অস্ত্র নেয়ার পর এ হামলা চালানো হয়।

সহকর্মীর অস্ত্র নেয়ার পর সে আফ্রিকার প্রাচীনতম বিখ্যাত স্থান ঘরিবা সিনাগগে যান। ইহুদিদের বার্ষিক ধর্মীয় অনুষ্ঠানে অংশ নিতে সেখানে শত শত মানুষ জড়ো হয়েছিল। অনুষ্ঠানটি মঙ্গলবার রাতে শেষ হওয়ার কথা ছিল।

এর আগে ২০০২ সালে সিনাগগে লক্ষ্য করে চালানো একটি আত্মঘাতী ট্রাক বোমা হামলায় ২১ জন নিহত হয়েছিল।

এই বন্দুক হামলাকে একটি সন্ত্রাসী হামলা হিসেবে উল্লেখ করা থেকে বিরত থেকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, ‘এই কাপুরুষোচিত হামলার উদ্দেশ্য জানার জন্য তদন্ত অব্যাহত রয়েছে।’

স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম জানায়, সিনাগগে গুলির শব্দে সেখানে উপস্থিত শত শত মানুষের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়তে দেখা যায়।

আয়োজকরা জানান, এ বছর ঘরিবার ওই অনুষ্ঠানে ইহুদি ধর্মের পাঁচ হাজারেরও বেশি অনুসারী অংশগ্রহণ করে। আর এদের বেশিরভাগই ছিল বিদেশি নাগরিক।


আরো সংবাদ



premium cement