২১ অক্টোবর ২০১৯

ব্ল্যাক হোলের ছবি দেখলো মানুষ

ব্ল্যাক হোল বা কৃষ্ণ গহ্বরের সেই ছবি - ছবি : সংগৃহীত

প্রথমবারের মতো ব্ল্যাক হোল বা কৃষ্ণ গহব্বরের ছবি প্রকাশ করা হয়েছে। সম্প্রতি মহাকাশের এই বিস্ময়কর জায়গাটির ছবি তুলতে পেরেছেন জোতির্বিজ্ঞানীরা। যা বহু দূরের একটি গ্যালাক্সিতে অবস্থিত। এটি আয়তনে চার হাজার কোটি কিলোমিটার যা পৃথিবীর তুলনায় ৩০ লক্ষ গুন বড়। বিজ্ঞানীরা যাকে বলছেন, দানব।

পৃথিবী থেকে এর দূরত্ব ৫০০ মিলিয়ন ট্রিলিয়ন কিলোমিটার। উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন আটটি টেলিস্কোপের সাহায্যে এর ছবি তুলতে সক্ষম হয়েছেন বিজ্ঞানীরা। বুধবার অ্যাস্ট্রোফিজিকাল জার্নাল লেটার নামে এক জার্নালে এই ছবি প্রকাশ করা হয়েছে।

কৃষ্ণগহ্বর মহাকাশের এমন একটি বিশেষ স্থান, যেখান থেকে কোন কিছু, এমনকি আলো পর্যন্ত বের হয়ে আসতে পারে না। ব্ল্যাকহোল এমন একটি জায়গা, যেখানে খুবই অল্প জায়গায় অনেক অনেক ভর ঘনীভূত হয়ে রয়েছে। এটা এতই বেশি যে কোন কিছুই এর কাছ থেকে রক্ষা পায় না, এমনকি সর্বোচ্চ গতিসম্পন্ন আলোও।

গবেষক দলের সদস্য নেদারল্যান্ডসের রাডবাউড বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক হেইনো ফাল্ক বলেন, এম৮৭ নামের গ্যালাক্সিতে এই কৃষ্ণগহ্বরের সন্ধান মিলেছে। তিনি বলেন, এর আয়তন আমাদের পুরো সৌরজগতের চেয়ে বড়। তিনি জানান, এর ভর সূর্যের চেয়ে ৬৫০ গুণ বেশি। আমাদের ধারণা, এটিই সবচেয়ে ভারি কৃষ্ণগহ্বর। এটা একটা দানব।

প্রকাশিত ছবিতে একটি উজ্জ্বল আগুনের বলয় দেখা যায়। অধ্যাপক ফালক বলেন, এটি অন্ধকার এক গর্ত ঘিরে রেখেছে। এই গর্তে প্রচুর গ্যাস পতিত হওয়া উজ্জ্বল হয়ে ‍উঠেছে। ওই অন্ধকার গর্তই এর কেন্দ্র। সূত্র: বিবিসি


আরো সংবাদ




portugal golden visa
paykwik