২১ মে ২০২৪, ০৭ জৈষ্ঠ ১৪৩১, ১২ জিলকদ ১৪৪৫
`


ইউক্রেনকে গুচ্ছ বোমা সরবরাহের অভিযোগ অস্বীকার তুরস্কের

- ছবি - ইন্টারনেট

গত বছর ইউক্রেনে গুচ্ছ বোমা সরবরাহ করেছে আঙ্কারা- এমন অভিযোগের ভিত্তিতে করা প্রতিবেদন কঠোরভাবে অস্বীকার করেছেন একজন তুর্কি কর্মকর্তা।

শনিবার সাংবাদিকদের এক ব্রিফিংয়ে তুরস্কের প্রেসিডেন্টের মুখপাত্র ইব্রাহিম কালিন বলেন, ‘আমাদের কাছে গুচ্ছ যুদ্ধাস্ত্র নেই এবং আমরা ইউক্রেনকে এগুলো সরবরাহ করিনি।’

‘ইউক্রেনিয়রা নিজ থেকেই এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে।’

মার্কিন ম্যাগাজিন ফরেন পলিসি মঙ্গলবার জানিয়েছে, তুরস্ক ২০২২ সালের শেষের দিকে ইউক্রেনকে যুক্তরাষ্ট্রের নকশা করা গুচ্ছ বোমা পাঠাতে শুরু করেছে। সাবেক মার্কিন ও ইউরোপীয় কর্মকর্তাদের উদ্ধৃতি দিয়ে এই কথা জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়েছে যে কিয়েভ কয়েক মাস ধরে অস্ত্রের জন্য বাইডেন প্রশাসনের কাছে আবেদন জানিয়ে আসছিল।

প্রতিবেদনে আরো বলা হয়েছে, ‘ন্যাটোর এ মিত্র দেশটি তথাকথিত দ্বৈত-উদ্দেশ্যে চালিত উন্নত যুদ্ধাস্ত্রের (ডিপিআইসিএম) প্রথম চালান ২০২২ সালের নভেম্বরে পাঠাতে শুরু করে। এটি যুক্তরাষ্ট্রের সাথে একটি চুক্তির অধীনে স্নায়ুযুদ্ধের সময় তৈরি করা হয়েছিল।’

উল্লেখ্য, আন্তর্জাতিক আইনে গুচ্ছ যুদ্ধাস্ত্র উৎপাদন ও ব্যবহার নিষিদ্ধ।

বুধবার আঙ্কারায় ইউক্রেনের রাষ্ট্রদূত বাসিল বোদনার প্রতিবেদনটি অস্বীকার করে বলেন, তিনি বিশ্বাস করেন যে এটি ‘রাশিয়ার প্রপাগান্ডার’ অংশ।

আধা-সরকারি তুর্কি বার্তা সংস্থা আনাদোলু অ্যাজেন্সিকে বলেন, ‘আমি সম্পূর্ণভাবে এটি অস্বীকার করছি, এটি সত্য নয়।’

তিনি বলেন, ‘শুধুমাত্র ইউক্রেন ও তুরস্কের মধ্যকার সম্পর্ককে দুর্বল করার জন্য এবং দেশ দুটি সম্পর্কে ভুল ভাবমূর্তি তৈরির চেষ্টায় মনস্তাত্ত্বিক যুদ্ধ হিসেবে তথ্যগুলো বিশেষভাবে তৈরি করা হয়েছে।’

সূত্র : মিডল ইস্ট আই


আরো সংবাদ



premium cement