২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০, ১৭ শাবান ১৪৪৫
`

রাহুল গান্ধীর সংসদ সদস্য পদ খারিজ

রাহুল গান্ধী - ছবি : সংগৃহীত

ভারতে মোদিদের নিয়ে মন্তব্যের জেরে মানহানীর এক মামলায় সাজাপ্রাপ্ত হওয়ায় কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধীর সংসদ সদস্য পদ খারিজ করা হয়েছে।

শুক্রবার লোকসভা সচিবালয় থেকে এ বিষয়ে বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে।

এর আগে বৃহস্পতিবার তাকে দুই বছরের সাজা দিয়েছে গুজরাটের একটি আদালত।

বৃহস্পতিবার সকালে গুজরাটের সুরাট জেলার দায়রা আদালত কংগ্রেস সংসদ সদস্যকে দোষী সাব্যস্ত করেছে মানহানির মামলায়। এই মামলায় রাহুল গান্ধীকে দু’বছরের কারাদণ্ড এবং ১৫ হাজার টাকার জরিমানার সাজা দিয়েছে আদালত। তবে আপাতত এক মাসের জন্য রাহুলকে জামিন দেয়া হয়েছে, যাতে তিনি উচ্চ আদালতে এই নির্দেশের বিরুদ্ধে আবেদন জানাতে পারেন।

এই পরিস্থিতিতে রাহুল গান্ধীর সংসদ সদস্য পদ নিয়ে জল্পনা তৈরি হয়েছিল। ‍শুক্রবার সমস্ত জল্পনার অবসান ঘটিয়ে বিজ্ঞপ্তি জারি করল লোকসভার সচিবালয়।

আইন অনুযায়ী, কোনো জনপ্রতিনিধি যদি দুই বা তার অধিক বছরের জন্য কারাদণ্ডের সাজায় দণ্ডির হন, তবে তৎক্ষণাত তার পদ খারিজ হবে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে রাহুল গান্ধীর সংসদ সদস্য পদ খারিজ হয় শুক্রবার।

রাহুলের বিরুদ্ধে অপরাধমূলক মানহানির মামলা করেছিলেন গুজরাটের সাবেক মন্ত্রী ও বিজেপি বিধায়ক পূর্ণেন্দু মোদি। মামলাকারীর অভিযোগ ছিল, গোটা মোদি সম্প্রদায়কে অপমান করেছেন রাহুল গান্ধী। ভারতীয় দণ্ডবিধির ৪৯৯ এবং ৫০০ ধারায় রাহুলের বিরুদ্ধে মামলা হয়।

বৃহস্পতিবার আদালত জানায়, রাহুল গান্ধীর বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে।

তবে কারাদণ্ডের সাজার পরই রাহুল জামিন পেয়ে যান। অবশ্য, আইন মেনে শুক্রবার সদস্যপদ খারিজ হলো রাহুলের।

এদিকে, রাহুল দায়রা আদালতের এই নির্দেশিকার বিরুদ্ধে সরাসরি হাইকোর্ট বা সুপ্রিম কোর্টে যেতে পারবেন না, কারণ এটি ফৌজদারী মামলা ছিল।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনের প্রচারের সময় এক জনসভায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে আক্রমণ করে রাহুল বলেছিলেন, ‘সব মোদিরা কেন চোর হয়?’

তিনি নরেন্দ্র মোদির সাথে নীরব মোদি, ললিত মোদিকে বোঝাতে এই মন্তব্য করেছিলেন। তবে এতে ‘মোদি’ পদবীর সকলের অপমান হয়েছে বলে অভিযোগ ওঠে।

সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস


আরো সংবাদ



premium cement