২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০৮ ফাল্গুন ১৪৩০, ১০ শাবান ১৪৪৫
`

শ্রীলঙ্কার বক্সারকে হারালেন সেলিম

-

হ্যাংজু এশিয়ান গেমসে আগের দিন মহিলা ক্রিকেট বাংলাদেশ দলের ব্রোঞ্জ পদক জয়। যদিও এই খুশিতে রৌপ্য হারিয়ে ন্যূনতম একটি পদক নিয়ে ফেরার সান্ত্বনা। এই আনন্দের রেশ কাটতে না কাটতেই গতকাল বক্সিংয়ে এল জয়ের সু সংবাদ। হ্যাংজু জিমন্যাসিয়ামে ৫৭ কেজি ওজন শ্রেণীতে বাংলাদেশী বক্সার সেলিম হোসেন ৩-২ পয়েন্টে হারান শ্রীলঙ্কার রুকমাল প্রসন্নকে। পাঁচ জাজের তিনজনের রায় যায় সেলিমের পক্ষে। ফলে প্রি-কোয়ার্টার ফাইনালে উঠলেন এই বক্সার। ৩০ সেপ্টেম্বর সেলিমের শেষ আটে ওঠার লড়াই লাওস ও তাজিকিস্তানের বক্সারের মধ্যকার জয়ী খেলোয়াড়ের বিপক্ষে। তবে এই বক্সিং ছাড়া অন্য ডিসিপ্লিনে হাতাশার দিন পার করল বাংলাদেশ বহর। হার সর্বত্রই। হকি, শুটিং, ফেন্সিং সব ডিসিপ্লিনেরই পরাজয়।
হকিতে পাকিস্তানের কাছে হার
এশিয়ান গেমস হকিতে লিড নিয়েও পাকিস্তানের কাছে ২-৫ গোলে হেরেছে বাংলাদেশ। গুয়াংশু কানাল পার্ক স্টেডিয়ামে প্রথম গোল বাংলাদেশের। প্রথম কোয়ার্টার গোলশূন্য থাকলেও দ্বিতীয় কোয়ার্টারে পুস্কর ক্ষিসা মিমো পেনাল্টি কর্নার থেকে এগিয়ে দেন দলকে। প্রথমার্ধ শেষ হয় ১-১ সমতায়। চতুর্থ কোয়ার্টারে বাংলাদেশের হয়ে দ্বিতীয় গোলটি করেন মিলন। পাকিস্তানের হয়ে পাঁচ গোল করেছেন মোহাম্মদ সুফিয়ান, আরবাজ আহমেদ, মুহাম্মদ আমমাদ, মোহাম্মদ শাহজাইব ও আফরাজ। এ নিয়ে টানা দ্বিতীয় ম্যাচ হারল বাংলাদেশ। প্রথম ম্যাচে জাপানের কাছে ২-৭ গোলে হেরেছিল জিমিরা। অবশ্য এই দুই ম্যাচে হারই প্রত্যাশিত। পুল ‘এ’তে লাল-সবুজদের জয়ের সম্ভাবনা উজবেকিস্তান ও সিঙ্গাপুরের বিপক্ষে। আগামীকাল সিঙ্গাপুরের বিপক্ষে ম্যাচ। ৩০ সেপ্টেম্বরের প্রতিপক্ষ উজবেকিস্তান। ২ তারিখে ফের শক্তিশালী প্রতিপক্ষ ভারতের সামনে বাংলাদেশ দল।
ফেন্সিংয়ে হার ফাতেমা ও রোকসানার
১৯তম এশিয়ান গেমসের চতুর্থ দিন ফেন্সিংয়ের ব্যক্তিগত ইভেন্ট থেকে বিদায় নিয়েছেন ফাতেমা মুজিব ও রোকসানা খাতুন। দুই ফেন্সারই একটি করে ম্যাচে তুমুল লড়াই করেন। পুল থ্রি তে ছিলেন ২০১৯-এর এস এ গেমসে স্বর্ণ জয়ী ফাতেমা মুজিব। প্রথম ম্যাচে থাইল্যান্ডের প্রতিদ্বন্দ্বী শ্রীনুলান্ধ বান্ধুতার বিপক্ষে দারুণ লড়াই করেন। হেরে যান ৫-৪ পয়েন্টে। বাকি চার ম্যাচেও দক্ষিণ কোরিয়া, সিঙ্গাপুর, হংকং ও চীনের প্রতিপক্ষের কছে পরাজয় এ ফেন্সার। অন্য দিকে পুল ফোরে ছিলেন রোকসানা খাতুন। তিনিও পাঁচ ম্যাচ হেরে বিদায় নিয়েছেন ব্যক্তিগত ইভেন্ট থেকে। তার সেরা লড়াই ছিল সৌদি আরবের আলহাম্মাদ আল হাসনার বিপক্ষে ৫-৪ পয়েন্টের হার।
শুটিংয়ে নবম স্থান
১০ মিটার এয়ার রাইফেল পুরুষ ও মহিলা একক ও দলগত ব্যর্থতার পর ১০ মিটার এয়ার রাইফেলের মিক্সড টিম ইভেন্টেও ভালো করতে না পারার কাহিনী। ২১ দেশের মধ্যে ৯ম হয়েছে বাংলাদশে। স্কোর ৬২৫.৮। রবিউল ইসলাম ৩১১.৫ ও শায়রা আরেফিন ৩১৪.৩ স্কোর করেন। ফুইয়াং ইনহু স্পোর্টস সেন্টারে সেরা ছয় দল চূড়ান্ত পর্বে ওঠে। ষষ্ঠ হওয়া ভারতীয় দলের স্কোর ছিল ৬২৮.২। এই ইভেন্টে স্বর্ণ জিতেছে চীন।
দাবায় ৭ রাউন্ডের খেলা শেষে গ্র্যান্ডমাস্টার এনামুল হোসেন রাজীব ও আন্তর্জাতিক মাস্টার মোহাম্মদ ফাহাদ রহমান ৪ পয়েন্ট করে অর্জন করেছেন। মহিলা এককের সপ্তম রাউন্ডের খেলা শেষে মহিলা ফিদে মাস্টার নোশিন আঞ্জুম ৭ খেলায় ২ পয়েন্ট পেয়েছেন। গতকাল পঞ্চম রাউন্ডের রাজীব, ফাহাদ, নোশিন আঞ্জুম হেরে যান। ষষ্ঠ রাউন্ডে রাজীব ও ফাহাদ জয় পেলেও হার নোশিনের। সপ্তম রাউন্ডে রাজীব ড্র করেন। ফাহাদ তাইপের ফিদেমাস্টার বাই এডিলার্ডকে পরাজিত করেন এবং নোশিন আঞ্জুম হেরে যান।


আরো সংবাদ



premium cement

সকল