২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১, ১৩ শাওয়াল ১৪৪৫
`

জলবায়ু ইস্যুতে দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে ঐকমত্য হতে পারে

জলবায়ু ইস্যুতে দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে ঐকমত্য হতে পারে - ছবি : সংগ্রহ

পাকিস্তানের সাবেক পররাষ্ট্র সচিব ও রাষ্ট্রদূত আইজাজ আহমদ চৌধুরী বলেছেন, এই অঞ্চলের সব দেশই বৈশ্বিক উষ্ণতার শিকার। আর এ কারণে জলবায়ু ইস্যুতে দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্য ঐকমত্য হতে পারে। বৃহস্পতিবার ঢাকাস্থ পাকিস্তান হাউসে বর্তমান বৈশ্বিক ও আঞ্চলিক প্রেক্ষাপটে এক মিডিয়া মতবিনিময় অনুষ্ঠানে এ মন্তব্য করেছেন তিনি। ইরান ও সংযুক্ত আরব আমিরাতে নিযুক্ত পাকিস্তানের সাবেক রাষ্ট্রদূত রাষ্ট্রদূত আসিফ দুররানি এবং বাংলাদেশে নিযুক্ত পাকিস্তানের হাইকমিশনার ইমরান আহমেদ সিদ্দিকী উপস্থিত ছিলেন।
গত ২১-২৩ নভেম্বর অনুষ্ঠিত সেন্টার ফর গভর্ন্যান্স স্টাডিজ আয়োজিত বে অফ বেঙ্গল কনভারসেশন ২০২২-এ অংশ নিতে আইজাজ আহমদ চৌধুরী ও রাষ্ট্রদূত আসিফ দুররানি ঢাকায় এসেছিলেন। অনুষ্ঠানে সফরকারী প্রতিনিধিরা বৈশ্বিক চলমান ঘটনা প্রবাহ এবং গতিবিধির পাশাপাশি উন্নয়নশীল দেশগুলোর জন্য চ্যালেঞ্জ ও সুযোগের রূপরেখা তুলে ধরেন।

আইজাজ আহমদ চৌধুরী বলেন, ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে অগ্রাধিকার নিয়ে মতানৈক্য আছে। তবে পাকিস্তানের প্রতিটি সরকারই চেয়েছে ভারতের সাথে সম্পর্ক ভালো করতে।

তিনি বলেন, চীনের সাথে পাকিস্তানের সম্পর্ক প্রশ্নাতীত। তবে চীনের সাথে সম্পর্ক অটুট রেখেও যুক্তরাষ্ট্রের সাথে সম্পর্ক বহাল রাখা সম্ভব। আর পাকিস্তান তাই করছে। এক দেশের সাথে সম্পর্ক উন্নয়ন করা মানে অপর দেশের সাথে সম্পর্ক খারাপ করা নয়। বরং নিজেদের স্বার্থকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিয়ে স্বাধীনভাবে সিদ্ধান্ত নিতে হবে।

তিনি বলেন, নিজের দেশের উন্নতির কথা মাথায় রেখে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। এখানে অন্য দেশের দিকে তাকিয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা ঠিক নয়। তিনি জানান, পাকিস্তান ও বাংলাদেশের উচিত হবে তাদের সম্পর্কের মধ্যে অন্য দেশকে হস্তক্ষেপ করার সুযোগ না দেয়া। বর্তমান বৈশ্বিক পরিস্থিতিতে কোনো দেশের উচিত হবে না নিজেকে অসহায় মনে করা। বিশ্ব এখন একমেরুতে নেই, এখানে বহুমেরুর আত্মপ্রকাশ ঘটেছে। কাজেই ভারসাম্যপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রাখা জরুরি বিষয়।

তিনি আরো বলেন, সার্ক তার উদ্দেশ্য পূরণ করতে পারছে না । বর্তমান প্রেক্ষাপটে সার্কের অ্যাজেন্ডা নতুন করে মূল্যায়ন করা উচিত।

তিনি মনে করেন, জলবায়ু ইস্যুতে আঞ্চলিক ঐকমত্য হতে পারে। এখানকার সব দেশই উষ্ণতার পরিবর্তনের শিকার। ফলে জলবায়ু পরিবর্তনকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিতে হবে।


আরো সংবাদ



premium cement
প্রথম ধাপের উপজেলা ভোটে ২৬ প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী বিখ্যাত চালকবিহীনবিমানের আবিষ্কারক কটিয়াদীতে আসছেন গাজার গণকবরের ‘বিশ্বাসযোগ্য ও স্বাধীন’ তদন্তের আহ্বান জাতিসঙ্ঘের চতুর্থ ধাপের উপজেলা নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা পেকুয়ায় জমি নিয়ে সংঘর্ষে আহত ১৪ তড়িঘড়ি ও জোরপূর্বক একীভূতকরণ ব্যাংকিং খাতে অব্যাহত দায়মুক্তির নতুন মুখোশ : টিআইবি লেবাননে ইসরাইলি হামলায় ইরান সমর্থিত যোদ্ধা নিহত জিম্বাবুয়ে সিরিজের জন্য ক্যাম্পে ডাক পেলেন ১৭ ক্রিকেটার, নেই সাকিব-মোস্তাফিজ উত্তর গাজায় আবারো ইসরাইলের গোলাবর্ষণ ধামরাইয়ে তাপদাহে জনজীবন কাহিল, ডায়রিয়াসহ জ্বরে আক্রান্ত হচ্ছে মানুষ মিয়ানমার থেকে দেশে ফিরছেন ১৭৩ বাংলাদেশী

সকল