১৮ জুলাই ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১, ১১ মহররম ১৪৪৬
`

গাজীপুরে কেক ও পেটিস খেয়ে ২ বোনের মৃত্যু, গ্রেফতার ৪

নিহত দুই শিশু - ছবি : নয়া দিগন্ত

গাজীপুরে দোকান থেকে কেক ও পেটিস খেয়ে শিশু দুই বোনের মৃত্যু এবং তাদের ৬ মাস বয়সের ফুপাতো বোন অসুস্থ হওয়ার ঘটনায় দোকান মালিক ও বেকারির কর্মচারীসহ চারজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (৩১ জানুয়ারি) তাদেরকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। এর আগে ওই ঘটনায় নিহতদের বাবা সদর থানায় মামলা করেন।

গ্রেফতাররা হলেন- গাজীপুর মহানগরীর সদর থানার দক্ষিণ সালনা এলাকার লাবু মিয়ার ছেলে সাইফুল ইসলাম (৪৮), ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলার মিশু মিয়ার ছেলে সোহেল রানা (৪৮), একই জেলার নবীনগর উপজেলার কোনাউর গ্রামের দানু মিয়ার ছেলে শহিদুল ইসলাম (২৫) এবং একই গ্রামের মরহুম চান মিয়ার ছেলে মোহাম্মদ হোসেন (৪৫)। তাদের মধ্যে সাইফুল ইসলাম দোকান মালিক এবং অন্যরা বেকারির কর্মকর্তা ও কর্মচারী।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের (জিএমপি) সদর থানার ওসি জিয়াউল ইসলাম ও স্থানীয়রা জানান, শেরপুরের দীঘলদী গ্রামের আশরাফুল ইসলাম গাজীপুর মহানগরের সালনা এলাকার ভাড়া বাসায় থাকেন। দুই শিশু সন্তান আশামনি (৬) ও তার ছোট বোন আলিফা আক্তারকে (দেড় বছর) তাদের নানি মনোয়ারার কাছে রেখে স্থানীয় পোষাক কারখানায় চাকরি করেন আশরাফুল ও তার স্ত্রী সফুরা বেগম।

গত রোববার (২৯ জানুয়ারি) সকালে সফুরা কর্মস্থলে যান, তবে তার স্বামী বাসায় ছিলেন। সকাল সাড়ে ১০টার দিকে দু’মেয়ের বায়না মেটাতে বাবা আশরাফুল স্থানীয় সাইফুল ইসলামের দোকান থেকে কেক ও পেটিস কিনে তাদের খেতে দেন। খাওয়ার কিছুক্ষণ পরই বড় মেয়ে আশামনি বমি করতে থাকে। তাকে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। বড় বোনের মৃত্যুর এক ঘণ্টা ব্যবধানে ছোট বোন আলিফা আক্তারও অসুস্থ্য হয়ে মারা যায়।

এ ঘটনায় তাদের তাদের প্রতিবেশী ও ফুফাতো ভাই শিশু সিয়াম (৬ মাস) অসুস্থ্ হলে তাকেও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তবে একই সময়ে তাদের সাথে অপর এক শিশু আলপনা আক্তার (১২) কেক খেলেও তার কিছুই হয়নি।

ওসি জিয়াউল ইসলাম আরো জানান, নিহত দুই বোনের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে। এ ঘটনায় সোমবার দুপুরে নিহতদের বাবা আশরাফুল ইসলাম সদর থানায় মামলা করেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে ওইদিন রাতেই অভিযান চালিয়ে দোকান মালিক ও বেকারির কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ মোট চারজনকে গ্রেফতার করা হয়। পুলিশ পারিবারিক কলহ ও পূর্বশত্রুতা এবং খাদ্যে বিষক্রিয়ার উৎসসহ কয়েকটি বিষয় নিয়ে তদন্ত করছে। তবে প্রকৃত ঘটনা নির্ণয়ের জন্য কিছুটা সময় লাগবে।

গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক মেডিসিন বিভাগের প্রধান সহকারী অধ্যাপক শাফি মোহাইমেন বলেন, ময়নাতদন্তে প্রাথমিকভাবে নিশ্চিত হওয়া গেছে খাদ্যে বিষক্রিয়ায় দু’বোনের মৃত্যু হয়েছে।


আরো সংবাদ



premium cement