২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০, ১৩ শাবান ১৪৪৫
`

স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়াকে বিদায় করে সেমিফাইনালে ইংল্যান্ড

স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়াকে বিদায় করে সেমিফাইনালে ইংল্যান্ড - ছবি : সংগৃহীত

অবশেষে নিশ্চিত হলো গ্রুপ এ- থেকে সেমিফাইনালে যাওয়া দুই দলের নাম। স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়াকেই বিশ্বকাপ থেকে বিদায় করে সেমিতে পা রাখলো ইংল্যান্ড। সহজ ম্যাচ কঠিন করে শ্রীলঙ্কাকে ৪ উইকেটে হারিয়েছে থ্রি লায়ন্সরা। ফলে গত আসরের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা এবার বিদায় নিলো সুপার টুয়েলভ থেকেই।

জিতলেই সেমিফাইনাল নিশ্চিত, হারলেই নিশ্চিত বিদায়; এমনি সমীকরণ সামনে রেখে শনিবার শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে মাঠে নামে ইংল্যান্ড। সিডনিতে ডু অর ডাই ম্যাচে টসে হেরে বল হাতে তুলে নেয় ইংলিশ বোলাররা। শুরুটা ভালো হয়নি স্টোকস, ওকস, উডদের। দলীয় ৪ চতুর্থ ওভারে যখন লঙ্কানদের প্রথম উইকেটের পতন ঘটে, ততক্ষণে স্কোরবোর্ডে ৩৯ রান।

ব্যক্তিগত ১৪ বলে ১৮ রানে ফিরেন কুশল মেন্ডিস। দ্বিতীয় উইকেটের দেখা মেলে ৮.২ ওভারে। ৯ রান করে ধনঞ্জয়া ডি সিলভা ফিরলে পাথুম নিশানাকার সাথে ভাঙে ৩৩ রানের জুটি। ৯ ওভারের আগেই দলীয় ৭২ রানে মাত্র ২ উইকেট হারানো দলটা তবুও শেষ পর্যন্ত ৮ উইকেট হারিয়ে ১৪১ রান তুলতে পারে স্কোরবোর্ডে। শেষ ১১.৪ ওভারে করে ৬ উইকেট হারিয়ে সংগ্রহ করে মাত্র ৬৯ রান।

মূলত ইংলিশ বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিং আর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়ে ফেলায় বড় সংগ্রহের সম্ভাবনা জাগিয়েও আর তা সম্ভব হয়নি।লঙ্কান ওপেনার পাথুম নিশানাকা ছাড়া ব্যাট হাতে ইনিংস বড় করতে পারেননি কোনো ব্যাটার। ১৫.৩ ওভারে যখন ফেরেন নিশানাকা, দলের অর্ধেক রানেরও বেশি এসেছে তার ব্যাটে। দলীয় ১১৮ রানের ৬৭ রানই এসেছে নিশানাকার ব্যাটে ৪৫ বলে।

নিশানাকা ফেরার আগে ৯ বল থেকে ৮ করে ফেরেন চারিথা আসালাঙ্কাও। অধিনায়ক দাসুন শানাকার ব্যাটে আসে ৮ বলে ৩ রান। আর শেষ ওভারে মার্ক উডের শিকার ২২ রান করা ভানুকা রাজাপাকশে ও চামিকা করুনারত্নে। একই ওভারে রান আউট হয়ে ফিরেন ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গাও। হাসারাঙ্গা করেন ৯ রান। ২৬ রানে ৩ উইকেট শিকার করেন মার্ক উড, ১টি করে উইকেট বেন স্টোকস, ক্রিস ওকস, স্যাম কুরান ও আদিল রাশিদের।

১৪২ রানের লক্ষ্যে ব্যাটিংয়ে নেমে ৭ ওভারেই ৭৪ রানে তোলে ফেলে এলেক্স হেলস ও জশ বাটলার জুটি। অষ্টম ওভারে হারাঙ্গার শিকার হয়ে ২৩ বলে ২৮ করে ফিরেন জশ বাটলার। এক ওভার পর হাসারাঙ্গার দ্বিতীয় শিকার ৩০ বল থেকে ৪৭ রান করে ফেলা এলেক্স হেলস। হেলস ফেরার পর এবার নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে ইংলিশরাও।

১১তম ওভারে ৫ বল থেকে ৪ রান করে ফিরেন হ্যারি ব্রক, দাঁড়াতে পারেননি লিয়াম লিভিংস্টোনও। তিনিও ফিরেছেন ৬ বল থেকে ৪ রানে। ব্যাক্তিগত ১ রানে মইন আলি ফিরেন সিলভার দ্বিতীয় শিকার হয়ে। ১৮ তম ওভারে ১১ বল থেকে মাত্র ৫ রান করে স্যাম কুরান ফিরলে শেষ ২ ওভারে ইংলিশ প্রয়োজন দাঁড়ায় ২ ওভারে ১৩ রান। ভরসা হয়ে তখনো মাঠে বেন স্টোকস।

শেষ পর্যন্ত স্টোকসের ব্যাটেই জয় নিশ্চিত হয় ইংল্যান্ডের। ৪ উইকেট হাতে রেখে জয়ের বন্দরে নোঙর ফেলে ইংলিশরা। ৩৬ বলে ৪৪ রানে অপরাজিত ছিলেন স্টোকস। ৩ বলে ৫ রান করে তার সাথী ক্রিস ওকস। প্রথম ৭ ওভারে বিনা উইকেটে ৭৪ রান সংগ্রহের পরও পরের ১৩ ওভারে ৬৮ রান তুলতে গিয়ে ৬ উইকেট হারিয়ে ফেলে ইংল্যান্ড। ৪ উইকেটের জয় নিশ্চিত হয় মাত্র ২ বল হাতে থাকতে। দুটো করে উইকেট নেন হাসারাঙ্গা, লাহিরু কুমারা ও ধনঞ্জয়া ডি সিলভা।


আরো সংবাদ



premium cement
চকরিয়ায় মাদরাসা শিক্ষক ও খতিবসহ ২ আলেমকে মারধর করল ইউপি সদস্য মিয়ানমারে বিপুল পরিমাণ ভোগ্য পণ্য ও অষুধসহ ৩ পাচারকারী আটক শরণখোলায় সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে যুবক আটক কাবা শরিফে ইফতার নিয়ে বিশেষ নির্দেশনা ফের বিমান ও মর্টার শেলের শব্দে কেঁপে ওঠছে শাহপরীরদ্বীপ আফরিন আকতারের সাথে বিএনপির বৈঠক নিয়ে যা বললেন আমীর খসরু বাউফল উন্নয়ন ফোরামের ‘রমাদানে আত্মশুদ্ধি ও অর্থশুদ্ধি শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত’ ধর্ষণ মামলায় আলভেজের ক্ষতিপূরণের টাকা দিয়ে তোপের মুখে নেইমার ঈশ্বরগঞ্জে মাদক কারবারিদের গ্রেফতারের দাবিতে মানববন্ধন চারিদিকে সর্দি কাশি জ্বর, সাথে বাড়ছে কোভিড সংক্রমণ এপ্রিলে দলে ফেরার আশা করছেন কোর্তোয়া

সকল