২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮

দক্ষিণ সুনামগঞ্জে ভূমি খেকো চক্রের বিচারের দাবীতে মানববন্ধন

-

সুনামগঞ্জের দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার পাথারিয়া ইউনিয়নের হরিপুর গ্রামের ভূমিখেকো ফকির আব্দুর রহমান ও তার ছেলে নজরুল ইসলাম গংদের বিরুদ্ধে গ্রামের মানুষের যাতায়াতের সরকারী জায়গা দখল, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন প্রকল্পের, কবরস্থানের টাকা আত্মসাধ ও গ্রামের মানুষকে মিথ্যা মামলায় হয়রানির প্রতিবাদে এবং দোষীদের গ্রেফতারের দাবীতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।
শুক্রবার দুপুরে নির্যাতিত হরিপুর গ্রামবাসীর আয়োজনে হরিপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এতে গ্রামে দুই-তিন শতাধিক কৃষক শ্রমিক ও মেহনতি মানুষজন অংশ নেন। হরিপুর গ্রামের আঙ্গুর মিয়ার সভাপতিত্বে ও আওয়ামীলীগ নেতা জুলহাস উদ্দিনের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে এ সময় বক্তব্য রাখেন, হরিপুর গ্রামের প্রবীন মুরুব্বী ও আওয়ামীলীগ নেতা হাজী তালেব আলী, যুবলীগ নেতা মোঃ শাহাব উদ্দিন,আব্দুল মজিদ, মণির উদ্দিন, আব্বাস মিয়া,শাহিন মিয়া,মোঃ জয়নাল আবেদীন,জিয়াউল হক,জামাল মিয়া,আব্দুল জাহিদ,আব্দুল মছব্বির,সাজুল মিয়া,সাক্কত আলী,আছকর আলী,মাসুক মিয়া,নবাব মিয়া,মান্নান মিয়া,মছুলিম উদ্দিন,আব্দুল্লাহ ও বুরহান উদ্দিনসহ প্রমুখ। এছাড়াও গ্রামের বিভিন্ন শ্রেণীপেশার লোকজন অংশ নেন।
বক্তারা বলেন, হরিপুর গ্রামের মৃত তম্বাই মিয়ার ছেলে ভূমিখেকো ফকির আব্দুর রহমান পেশীশক্তির জোরে সরকারের নীতিমালা উপেক্ষা করে অগনতান্ত্রিকভাবে দীর্ঘদিন ধরে জোরপূর্বক হরিপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি পদে থেকে সরকারের দেয়া মাটি কাটা ও প্রতিষ্ঠানের সংস্কারের বরাদ্দকৃত টাকা ও কবরস্থানের গাছ বিক্রির লাখ লাখ টাকা আত্মসাধ করেছেন। আত্মসাধকৃত টাকা ফেরত দেয়ার কথা বলায় ভূমিখেকো ও তার ছেলে নজরুল ইসলাম গংরা গ্রামের মানুষকে শারীরিক নির্যাতনসহ একাধিক মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করছেন বলে অভিযোগ করেন। তিনি বিভিন্ন সময় গ্রামের অসহায় হতদরিদ্র লোকজনের উপর হুমকি দামকীসহ শারীরিকভাবে নির্যাতন করেন। অবিলম্বে গ্রামের মানুষজনের দখলকৃত চলাচলের রাস্তা এবং প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন প্রকল্পের টাকা উদ্ধারসহ মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে দ্রুত আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও জেলা প্রশাসকের নিকট জোর দাবী জানান।
এদিকে গত ৬ সেপ্টেম্বর হরিপুর গ্রামবাসীর পক্ষে মৃত চাঁন মিয়ার ছেলে মোঃ আঙ্গুর মিয়া গ্রামের ভূমিখেকো ফকির আব্দুর রহমান ও তার ছেলে নজরুল ইসলাম গংদের বিরুদ্ধে গ্রামবাসীর জায়গা দখল,শিক্ষা প্রতিষ্ঠান,কবরস্থানের জমাকৃত টাকা আত্মসাধসহ প্রায় ২০টি মিথ্যা মামলা দিয়ে গ্রামবাসী হয়রানিসহ তাদের নানান অপকর্মের বিরুদ্ধে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য জেলা প্রশাসক বরাবরে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। 

 

 


আরো সংবাদ