১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯

হুয়াওয়ে স্মার্টফোনে অ্যান্ডয়েড ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা

-

হুয়াওয়ে স্মার্টফোনের এর সাথে সব ধরনের হার্ডওয়্যার, সফটওয়্যার ও টেকনিকাল সার্ভিস বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল গুগল এর প্যারেন্ট কোম্পানি অ্যালফাবেট। তবে ওপেন সোর্স লাইসেন্সের সফটওয়্যার ব্যবহার করতে পারবে চীনের কোম্পানিট। রোববার এক রিপোর্টে এই খবর জানিয়েছে রয়টার্স। বিশ্বব্যাপী চীনকে ধরাশায়ী করতে ডোনাল্ড ট্রাম্পের সিদ্ধান্তের প্রতি সমর্থন জানিয়ে এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে মার্কিন কোম্পানি অ্যালফাবেট।

গুগলের এর এই সিদ্ধান্তের ফলে চীনের বাইরে হুয়াওয়ের স্মার্টফোন ব্যবসা বিরাট ধাক্কা খেল। এর ফলে আর কোন হুয়াওয়ে স্মার্টফোনে অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম দেখা যাবে না। অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করলেও গুগল প্লে স্টোর, জিমেইল, ইউটিউব, গুগল ম্যাপস এর মতো জনপ্রিয় পরিষেবা ব্যবহার করা যাবে না হুয়াওয়ে স্মার্টফোন থেকে।

তবে এখন যে সব হওয়াওয়ে ও অনার স্মার্টফোনে গুগল অ্যাপ ইনস্টল রয়েছে সেই গ্রাহকরা নিজের ফোনে সব গুগল অ্যাপ আপডেট ডাউনলোড করতে পারবেন। গুগলের এক প্রতিনিধি এই কথা জানিয়েছেন।

তিনি বলে, ‘আমাদের পক্ষ থেকে বর্তমানে বাজারে থাকা হুয়াওয়ে সব ফোনে গুগল প্লে, ও কোম্পানির সুরক্ষার সব আপডেট পাঠানো হবে।’

গত বৃহস্পতিবার ব্যবসায়িক ব্ল্যাকলিস্টে হুয়াওয়ের নাম অন্তর্ভূক্ত করে ট্রাম্প সরকার। এর ফলে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ব্যবসা করা অসম্ভব হয়ে পড়ল চীনের কোম্পানিটির।

এই সিদ্ধান্তের ফলে ঠিক কোন সার্ভিসগুলি বন্ধ হবে এই বিষয়ে এখনও কোম্পানির অভ্যন্তরে আলোচনা চলছে। এছাড়াও এই সিদ্ধান্তের ফলে কোম্পানির ঠিক কত ক্ষতি হবে সেই হিসাব করতে ব্যস্ত হুয়াওয়ে।

হুয়াওয়ে ব্যবহারকারীদের কী হবে?

যারা ইতোমধ্যেই হুয়াওয়ে স্মার্টফোন ব্যবহার করছেন, তারা যথারীতি অ্যাপ ইনস্টল ও আপডেট তাদের ফোনে নিতে পারবেন। তবে, গুগল যখন এ বছরের শেষের দিকে নতুন সংস্করেণর অ্যান্ড্রয়েড বাজারে ছাড়বে, সেটি হুয়াওয়ে ফোনে ব্যবহার করতে না পারার আশঙ্কা থেকে যাচ্ছে। এমনকি ভবিষ্যতের হুয়াওয়ে ফোনগুলোতে গুগল ম্যাপস বা ইউটিউব অ্যাপ ব্যবহার না-ও করা যেতে পারে।


আরো সংবাদ