২০ আগস্ট ২০১৯

‘শ্রমিকদের ওপর জুলুম অতীতের সব রেকর্ড ছাড়িয়েছে’

-

গার্মেন্টস শ্রমিক নেতরা বলেছেন, আন্দোলন দমনে এবং প্রতিহিংসা চরিতার্থ করতে শ্রমিকদের ওপর চরম দমন-পীড়ন চালানো হচ্ছে। তারা বলেন, শ্রমিকদের ওপর জুলুম-নির্যাতনের মাত্রা অতীতের সকল রেকর্ডকে অতিক্রম করেছে। প্রতিদিন নতুন নতুন মামলার সন্ধান মিলছে। এসকল মামলায় হাজার হাজার শ্রমিক ও ট্রেড ইউনিয়ন নেতাকর্মীকে আসামী করা হয়েছে।

গ্রেফতার-নিখোঁজদের মুক্তি, ছাঁটাই নির্যাতন বন্ধের দাবিতে বৃহস্পতিবার বিক্ষোভ সমাবেশে তারা এসব কথা বলেন। গার্মেন্ট টিইউসি’র দপ্তর সম্পাদক জয়নাল আবেদীনসহ গ্রেফতার-নিখোঁজ শ্রমিক ও নেতৃবৃন্দের অবিলম্বে মুক্তি এবং ছাঁটাই নির্যাতন বন্ধের দাবিতে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়। পুলিশ সমাবেশে মাইক ব্যবহারে বাধা দিলে মাইক ছাড়াই সমাবেশ করে তারা।

শ্রমিকনেতা সাদেকুর রহমান শামীমের সভাপতিত্বে ও ইকবাল হোসেনের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক জলি তালুকদার সহ গ্রেফতার শ্রমিকনেতা জয়নাল আবেদীনের মাতা জায়েদা বানু এবং সংগঠনের কোষাধ্যক্ষ এমএ শাহীন।

জলি তালুকদার বলেন, অন্তত ৯ জন কারখানা শ্রমিক এখনও নিখোঁজ, যাদের পুলিশ পরিচয়ে তুলে নেয়া হয়েছে। তিনি বলেন, শ্রমিকদের মজুরি বৃদ্ধির কথা বলে গত নভেম্বর মাসে বস্তুত শ্রমিকদের মজুরি কমিয়ে দেয়ার প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। সেসময় শ্রমিক সংগঠনসমূহের পক্ষ থেকে জোড়ালো আপত্তি করা হলেও সরকার ও মালিকপক্ষ কর্ণপাত করেনি। বাধ্য হয়ে শ্রমিকরা আন্দোলনে নামে। শ্রমিকদের আন্দোলনের মুখে বিভিন্ন গ্রেডে নামমাত্র মজুরি বৃদ্ধি করে চরম দমন-পীড়ন, নির্যাতনের মাধ্যমে সে আন্দোলন বন্ধ করা হয়েছে।

গ্রেফতার শ্রমিকনেতা জয়নালের মা জায়েদা বলেন, আমার সন্তান কোনো অপরাধ না করা সত্ত্বেও কেন কারা নির্যাতনের শিকার তার জবাব সরকারকে দিতে হবে। তিনি পুত্রের আশু মুক্তি দাবি করেন।

সাদেকুর রহমান শামীম বলেন, শিল্পের স্থিতিশীলতার স্বার্থে অব্যাহত শ্রমিক ছাঁটাই, মামলা, গ্রেফতার বন্ধ করতে হবে। জুলুম-নির্যাতন বন্ধ না করলে শিল্পের উৎপাদনশীলতা ব্যাহত হয়। তিনি শ্রমিকদের বাঁচার মত মজুরি এবং অবাধ ট্রেড ইউনিয়ন অধিকারের দাবি জানান।
সমাবেশ থেকে বলা হয়, অবিলম্বে শ্রমিকনেতা জয়নাল আবেদীনসহ গ্রেফতার শ্রমিক ও নেতৃবৃন্দের মুক্তি, সকল ছাঁটাই আদেশ ও মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার এবং জুলুম-নির্যাতন বন্ধ না করা হলে আন্দোলনের নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে।

এদিকে সুমন মিয়া হত্যার বিচার, শ্রমিক ও নেতৃবৃন্দের নামে করা হয়রানিমূলক মামলা প্রত্যাহার, শ্রমিকদের ওপর নির্যাতন, গ্রেফতার ও হয়রানি বন্ধের দাবিতে শুক্রবার মানববন্ধন ডেকেছে গার্মেন্ট শ্রমিক সংহতি। সংগঠনটির উদ্যোগে বিকাল ৪ টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এ মানববন্ধন হবে।


আরো সংবাদ

স্ত্রীর ছলচাতুরীতে ফতুর প্রবাসী স্বামী (৩৬৭২৪)পুলিশ হেফাজতে বাসর রাত কাটলেও ভেঙ্গে গেল বিয়ে (২৩৯০৭)ইমরানকে ‘পেছন থেকে ছুরি মেরেছেন’ মোদি (২১৩৩১)ভারতের পরমাণু অস্ত্রভাণ্ডার এখন ফ্যাসিস্ট মোদির হাতে : ইমরান খানের হুঁশিয়ারি (১৭৪৫৮)সন্ধ্যায় বাবার কিনে দেয়া মোটর সাইকেল সকালে কেড়ে নিল ছেলের প্রাণ (১৪৯৫২)নুরকে ‘খালেদা জিয়ার মতো পরিণতির’ হুমকি (১৩৯০০)স্বামীর সাথে ঘুরতে বেরিয়ে ধর্ষণের শিকার গৃহবধূ, ধর্ষক আটক (১২৫৭৯)সীমান্তে ফের পাল্টাপাল্টি গুলি, দুই ভারতীয় সেনাসহ নিহত ৪ (১১৩১৮)ব্যাগে টাকা আছে ভেবে শারমিনকে হত্যা করে রিকশা চালক রাজু উড়াও (১০৯৫০)গ্রীনল্যান্ড বিক্রির প্রস্তাব হাস্যকর : ড্যানিশ প্রধানমন্ত্রী (১০৫২৩)



bedava internet