১৮ মে ২০২৪, ০৪ জৈষ্ঠ ১৪৩১, ০৯ জিলকদ ১৪৪৫
`


ইরানের উদ্ভাবিত ক্ষেপণাস্ত্রকে ‘ভয়ঙ্কর হুমকি’ হিসেবে দেখছে যুক্তরাষ্ট্র

ইরানের উদ্ভাবিত ক্ষেপণাস্ত্রকে ‘ভয়ঙ্কর হুমকি’ হিসেবে দেখছে যুক্তরাষ্ট্র। - ছবি : সংগৃহীত

ইরান দূর পাল্লার একটি নতুন মডেলের ক্ষেপণাস্ত্র উন্মোচনের পর যুক্তরাষ্ট্র বৃহস্পতিবার দেশটির ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচিকে ‘ভয়ঙ্কর হুমকি’ বলে অভিহিত করেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দফতরের মুখপাত্র ম্যাথিউ মিলার সাংবাদিকদের বলেন, ‘ইরানের উন্নয়ন ও ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের বিস্তার আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক নিরাপত্তার জন্য একটি ভয়ঙ্কর হুমকি এবং এটি পরমাণু অস্ত্র নিরস্ত্রীকরনের ক্ষেত্রে একটি উল্লেখযোগ্য চ্যালেঞ্জ হিসেবে রয়ে গেছে।’

ইরানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, খাইবার ক্ষেপণাস্ত্রের পাল্লা হবে দুই হাজার কিলোমিটার এবং এটি এক টন ওজনের ওয়ারহেড বহন করতে সক্ষম হবে।

পরমাণু সমঝোতা পুনরুদ্ধারের বিষয়ে আলোচনার অচলাবস্থার পর এই ক্ষেপণাস্ত্র উন্মুক্ত করা হয়। সমঝোতা উদ্যোগে ইরান দেশটির ওপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের বিনিময়ে তাদের পরমাণু কার্যক্রম কমানোর প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল।
সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ২০১৫ সালে ওই সমঝোতা চুক্তি বাতিল করেন।

প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের প্রশাসন বিশেষ করে ইরানে ধর্মীয় নেতৃত্বের বিরুদ্ধে দেশটিতে বড় ধরনের প্রতিবাদের পর একটি চুক্তির অধীনে নিষেধাজ্ঞা প্রশমনের চিন্তাভাবনা ত্যাগ করেছে।

মিলার বলেন, ‘পরমাণু অস্ত্রধারী ইরান সম্ভবত আরো উস্কানিমূলক কাজ করবে এবং তার জন্য আমরা ইরানকে পরমাণু অস্ত্র মজুত রাখা থেকে বিরত রাখতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।’
সূত্র : বাসস


আরো সংবাদ



premium cement