১৪ জুলাই ২০২৪, ৩০ আষাঢ় ১৪৩১, ৭ মহররম ১৪৪৬
`

বগুড়ায় মুদি দোকানি হত্যা মামলায় ২ জনের যাবজ্জীবন

বগুড়ায় মুদি দোকানি হত্যা মামলায় ২ জনের যাবজ্জীবন - প্রতীকী ছবি

বগুড়ায় চাঁদার টাকা না পেয়ে মুদি দোকানি রফিকুল হত্যা মামলায় দুই আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। একই সাথে তাদের ৫০ হাজার টাকা জরিমানা এবং অনাদায়ে আরো ছয় মাসের জেল দেয়া হয়েছে।

সোমবার বিকেল ৩টার দিকে বগুড়ার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালত-১ এর বিচারক হাবিবা মণ্ডল এ রায় দেন।

দণ্ডিতরা হলেন সারিয়াকান্দি উপজেলার ডোমকান্দি গ্রামের মোজ্জামেল হকের ছেলে তুহিন মিয়া ও দৌলতজ্জামানের ছেলে সুলতান মাহমুদ। রায় ঘোষণার সময় তারা আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি অ্যাডভোকেট নাসিমুল করিম জানান, ২০১৫ সালের ২৮ আগস্ট রাত সোয়া ৮টার দিকে তুহিন ও সুলতান ডোমকান্দি গ্রামের রফিকুলের মুদী দোকানে যান। সেখান থেকে তারা এক প্যাকেট সিগারেট নেয়ার পর চাঁদা হিসেবে ৫০ টাকা দাবি করেন। রফিকুল তাদের টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানিয়ে সিগারেটের পাওনা টাকা দাবি করেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে তুহিন ও সুলতান দোকানের মধ্যেই ধারাল অস্ত্র দিয়ে রফিকুলের পেটে ছুরিকাঘাত করেন। তার চিৎকার শুনে গ্রামবাসীরা দৌড়ে এলে আসামিরা পালিয়ে যান। পরে আহত রফিকুলকে প্রথমে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ ও পরে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

তিনি আরো জানান, ১ সেপ্টেম্বর তুহিন ও সুলতানের বিরুদ্ধে হত্যাচেষ্টার মামলা করেন রফিকুলের ভাই ছায়েদ আলী। পরে চিকিৎসাধীন ১৫ সেপ্টেম্বর রাতে রফিকুলের মৃত্যু হয়। পরে হত্যাচেষ্টা মামলাটি হত্যামামলা হিসেবে পুলিশ গ্রহণ করে। তদন্ত শেষে ২০১৬ সালের ৩০ মে আদালতে অভিযোগপত্র দেয়া হয়। দীর্ঘ আট বছর বিচারিক প্রক্রিয়ায় ১৬ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে সোমবার দুপুরে আদালত রায় ঘোষণা করে।

তিনি বলেন, রায় ঘোষণার পর দুই আসামিকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।


আরো সংবাদ



premium cement