২৩ মে ২০২৪, ০৯ জৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৪ জিলকদ ১৪৪৫
`

এতিম প্রতিপালন

-

মোহময় দুনিয়ার আলো সবাই হারিয়ে ফেলবে অন্ধত্বের অন্ধকারে এটিই প্রতীয়মান। দুনিয়ার সবাই অস্থায়ী জীবনযাত্রার পৃথিবীতে এসেছি। মৃত্যুবরণ করতে হবে সবাইকেই। আল্লাহ সুবহানাহু ওয়া তায়ালা পবিত্র কুরআনে ইরশাদ করেন, ‘প্রতিটি প্রাণীকেই মৃত্যুর স্বাদ গ্রহণ করতে হবে।’ (সূরা আল-ইমরান-১৮৫)
তবে, কেউ আগে, কেউ পরে। বাবা-মা ছেড়ে হয়তো সন্তান আগে দুনিয়া ছেড়ে চলে যায়। অথবা সন্তান ছেড়ে বাবা-মা চলে যান। এতিম সবাই হয়ে যাবে। আমাদের প্রিয় নবী হজরত মুহাম্মাদ সা:-ও ‘এতিম’ ছিলেন। শিশুকাল থেকেই এতিম ছিলেন। তিনি দুনিয়ার পদার্পণ করার আগেই পিতাকে হারান। অসহায়, এতিমদের জন্য নবী করিম সা: জীবনভর কাজ করে গেছেন। আল্লাহ তায়ালা ইরশাদ করেন, ‘তারা তোমাকে এতিম সম্পর্কে জিজ্ঞেস করে। বলে দাও, তাদের ইসলাহ তথা সুব্যবস্থা (পুনর্বাসন) করা উত্তম।’ (সূরা বাকারা, আয়াত-২২০) অর্থাৎ, সমাজে এতিমদের জন্য সুব্যবস্থা করা মুসলমানদের দায়িত্ব।
আল্লাহ তায়ালা অন্য জায়গায় ইরশাদ করেন, ‘তারা আহার্যের প্রতি আসক্তি সত্ত্বেও (আল্লাহর ভালোবাসায়) অভাবী, এতিম ও বন্দীকে আহার্য দান করে। (এবং তারা বলে) শুধু আমরা আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্যই তোমাদের আহার্য দান করি। বিনিময়ে তোমাদের থেকে কোনো প্রতিদান চাই না।’ (সূরা দাহর : ৮-৯)
এতিমের সম্পদ ভক্ষণের ভয়াবহতা সম্পর্কে আল্লাহ তায়ালা ইরশাদ করেন, ‘যারা এতিমদের অর্থ-সম্পদ অন্যায়ভাবে খায়, তারা নিজেদের পেটে আগুনই ভর্তি করে এবং শিগগিরই তারা অগ্নিতে প্রবেশ করবে।’ (সূরা আন নিসা-১০)
এতিমের জন্য যে সম্পদ ব্যয় হবে তা একমাত্র আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্যই হতে হবে। আবু হুরায়রা রা: বলেন, রাসূলুল্লাহ সা: বলেছেন, ‘তোমরা সাতটি ধ্বংসাত্মক কাজ পরিহার করো’। সাহাবায়ে কিরাম রা: বললেন, হে আল্লাহর রাসূল, সেগুলো কী? রাসূলুল্লাহ বললেন, ‘আল্লাহর সাথে কাউকে শরিক করা, জাদু, অন্যায়ভাবে কোনো প্রাণ সংহার করা, সুদ খাওয়া, এতিমের সম্পদ গ্রাস করা, যুদ্ধের মাঠ থেকে পলায়ন করা এবং মুমিনা পবিত্র নারীকে মিথ্যা অপবাদ দেয়া।’ (বুখারি-২৭৬৬)
এতিমের সম্পদ ধূলিসাৎ করা এবং তাদের প্রতি হস্তক্ষেপ করার ব্যাপারে আল্লাহ তায়ালা ইরশাদ করেন, ‘আর তোমরা এতিমের সম্পদের কাছেও যেয়ো না, সুন্দরতম পন্থা ছাড়া, যতক্ষণ না সে বয়সের পূর্ণতায় উপনীত হয়। আর অঙ্গীকার পূর্ণ করো, নিশ্চয় অঙ্গীকার সম্পর্কে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।’ (সূরা বনি ইসরাইল-৩৪)
সমাজে নির্যাতিত নিপীড়িত মানুষের মধ্যে অন্যতম এতিম, মিসকিন। গোটা সমাজে ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে অসহায়, অভাবী মানুষ। এতিমের প্রতি জুলুমের ঘটনাও অনেক। যারা এতিমওে সাথে খারাপ ব্যবহার করে, হীনম্মন্যতা দেখায়, আল্লাহ তায়ালা তাদেরকে তিরস্কার করে বলেন, ‘আপনি কী দেখেছেন তাকে, যে বিচার দিবসকে মিথ্যা বলে? সে তো সে-ই, যে এতিমকে রূঢ়ভাবে তাড়িয়ে দেয় এবং মিসকিনকে অন্ন দিতে উৎসাহিত করে না।’ (সূরা মাউন : ১-৩)
আল্লাহ তায়ালা আরো ইরশাদ করেন, ‘নবী আপনি এতিমের প্রতি কঠোর হবেন না’। (সূরা আদ-দুহা-৮) তাদের প্রতি কঠোর ও দৃঢ় ব্যবহার করতে নিষেধ করেছেন। হাদিস শরিফে এসেছে, সাহল বিন সাদ রা: থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ সা: ইরশাদ করেছেন, ‘আমি ও এতিম প্রতিপালনকারী জান্নাতে এভাবে থাকব (তিনি তর্জনী ও মধ্য অঙ্গুলি দিয়ে ইঙ্গিত করেন এবং এ দু’টির মধ্যে তিনি সামান্য ফাঁক করেন)’ (বুখারি-৫৩০৪) এতিমদের আল্লাহ তায়ালা মর্যাদায় মর্যাদাবান করেছেন দুনিয়া ও আখিরাতে।
এতিমদের ভালোবাসায় যারা নিজেদেরকে বিলিয়ে দেবে আল্লাহপাক তাদের জান্নাতে যাওয়া ওয়াজিব করে দেবেন। হাদিস শরিফে ইরশাদ হয়েছে, ‘যে ব্যক্তি কোনো এতিমকে আপন মাতা-পিতার সাথে নিজেদের পারিবারিক খাবারের আয়োজনে বসায় এবং তাকে এই পরিমাণ আহার্য দান করে যে, সে পরিতৃপ্ত হয়ে আহার করে। তবে তার জন্য জান্নাত ওয়াজিব হয়ে যাবে।’ (মুসনাদে আহমাদ-১৮২৫২)
রাসুল সা. ইরশাদ করেন, ‘যে বাড়িতে এতিম আছে এবং তার সাথে ভালো ব্যবহার করা হয়। আর সবচেয়ে নিকৃষ্ট ওই বাড়ি, যে বাড়িতে এতিম আছে অথচ তার সাথে খারাপ ব্যবহার করা হয়।’ অতঃপর তিনি তাঁর অঙ্গুলির মাধ্যমে বলেন, ‘আমি ও এতিম প্রতিপালনকারী জান্নাতে এমনভাবে অবস্থান করব।’ (ইবনে মাজাহ, হাদিস নং-৩৬৭৯)
এতিমের ব্যাপারে রাসূলুল্লাহ সা: বলেন, ‘বিধবা, এতিম ও গরিবের সাহায্যকারী ব্যক্তি আল্লাহর পথে মুজাহিদের সমতুল্য। অথবা তার মর্যাদা সে-ই (নামাজের জন্য) রাত জাগরণকারীর মতো, যে কখনো ক্লান্ত হয় না। অথবা তার মর্যাদা সেই রোজাদারের মতো, যে কখনো ইফতার (সাহরি খেয়ে ইফতার আসার আগেই রোজা ভঙ্গ না করনেওয়ালা ব্যক্তি) করে না।’ (মুসলিম-৫২৯৫)
সমাজটা ভরে উঠুক এতিম, অসহায়ের হাসি-খুশিতে। উবে যাক সকল হীনম্মন্যতা, মানুষের কৃত্রিম দেয়াল। নিখাঁদ ভালোবাসায় সমাজটা পরিচালিত হোক এতিমের পাশে দাঁড়িয়ে এবার ভিন্নভাবে।
শিক্ষার্থী, দত্তবাড়ী দারুল হিফজ ইসলামিয়া মাদরাসা, সিরাজগঞ্জ।


আরো সংবাদ



premium cement
যুক্তরাজ্যে সংসদ ভেঙে হঠাৎ নির্বাচনের ঘোষণা ভারতের কোচের পদে গম্ভীরকে এগিয়ে রাখছেন আকরাম ইউরোপীয় তিন দেশের ফিলিস্তিনি রাষ্ট্রের স্বীকৃতিকে প্রত্যাখ্যান করলেন নেতানিয়াহু মোরেলগঞ্জ বিষাক্ত খাবারে মারা গেল কৃষকের ৩ গরু মিয়ানমারে যুদ্ধের গতিপথ পরিবর্তন করে দিচ্ছে তরুণ বিদ্রোহীরা রাণীনগরে অগ্নিকাণ্ডে স-মিলসহ ৬ দোকান পুড়ে ছাই রাইসির জানাজায় ২০ লাখ মানুষ, আয়াতুল্লাহ খামেনির ইমামতি ওআইসি ও যুক্তরাষ্ট্রের উদ্বেগ বন্ধু রাষ্ট্রের কাছে তথাকথিত এমপিরাও নিরাপদ নয় : ফখরুল হত্যার শিকার এমপির নিখোঁজ হওয়া নিয়ে ধোঁয়াশা আছে : কাদের দুই রাষ্ট্রের বিষয় নয় : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

সকল