২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৬ ফাল্গুন ১৪৩০, ১৮ শাবান ১৪৪৫
`

বর্ণাঢ্য আয়োজনে ডিআরইউর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন

ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর শোভাযাত্রা -


বর্ণাঢ্য আয়োজনে উদযাপিত হলো পেশাদার সাংবাদিকদের বৃহৎ সংগঠন ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) ২৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। গতকাল শুক্রবার সকালে ডিআরইউ চত্বরে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর বর্ণ্যাঢ্য আয়োজনের উদ্বোধন করা হয়। বিকেলে কেক কাটা ও প্রতিষ্ঠাতা সদস্যদের সম্মাননা প্রদান করা হয়।
সম্মাননা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জাতীয় সংসদের উপনেতা ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী এমপি। ডিআরইউ সভাপতি মুরসালিন নোমানীর সভাপতিত্বে এবং উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক ও সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফুল ইসলামের সঞ্চালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মঈনুল আহসান, উদযাপন কমিটির সদস্য সচিব, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক কামাল উদ্দিন সুমন।

এসময় কার্যনির্বাহী কমিটির নেতাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- অর্থ সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন সুমন, দফতর সম্পাদক কাওসার আজম, নারী বিষয়ক সম্পাদক মরিয়ম মনি সেঁজুতি, ক্রীড়া সম্পাদক মো: মাহবুবুর রহমান, সাংস্কৃতিক সম্পাদক মিজান চৌধুরী, আপ্যায়ন সম্পাদক মোহাম্মদ নঈমুদ্দীন, কল্যাণ সম্পাদক মো: তানভীর আহমেদ, কার্যনির্বাহী সদস্য কিরণ শেখ, মোস্তাফিজুর রহমান সুমন ও মো: ইব্রাহিম আলী।
অনুষ্ঠানে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি প্রতিষ্ঠার ইতিহাস তুলে ধরে স্মৃতিচারণমূলক বক্তব্য রাখেন- ডিআরইউর প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ও সাবেক সভাপতি আজমল হোসেন খাদেম ও রফিকুল ইসলাম আজাদ, প্রতিষ্ঠাতা সদস্য আজিজুল ইসলাম ভূঁইয়া, কাজী আবদুল হান্নান, সৈয়দ আখতার ইউসুফ, অজিত কুমার সরকার, জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শ্যামল দত্ত, বিএফইউজের একাংশের মহাসচিব নুরুল আমিন রোকন, ডিইউজের দুই অংশের সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম ও আকতার হোসেন।
অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন- জাতীয় প্রেস ক্লাবের সভাপতি ফরিদা ইয়াসমিন, বিএফইউজের সভাপতি এম আবদুল্লাহ, ডিআরইউর সাবেক সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন বাদশা ও ইলিয়াস হোসেন।

এর আগে সকালে ডিআরইউ চত্বরে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে ২৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর বর্ণাঢ্য আয়োজনের উদ্বোধন করেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী এবং বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।
ডিআরইউর সভাপতি মুরসালিন নোমানীর সভাপতিত্বে ২৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক ও সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফুল ইসলামের পরিচালনায় এতে বক্তব্য রাখেন- সংগঠনের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মঈনুল আহসান, সহসভাপতি দীপু সারোয়ার, ২৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন কমিটির সদস্য সচিব এবং প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক কামাল উদ্দিন সুমন। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- সংগঠনের অর্থ সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন সুমন, দফতর সম্পাদক কাওসার আজম, নারী বিষয়ক সম্পাদক মরিয়ম মনি সেঁজুতি, ক্রীড়া সম্পাদক মো: মাহবুবুর রহমান, সাংস্কৃতিক সম্পাদক মিজান চৌধুরী, আপ্যায়ন সম্পাদক মোহাম্মদ নঈমুদ্দীন, কল্যাণ সম্পাদক মো: তানভীর আহমেদ, কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য ইসমাঈল হোসাইন রাসেল, মহসিন বেপারী, মোজাম্মেল হক তুহিন, কিরণ শেখ, মোস্তাফিজুর রহমান সুমন ও আলী ইব্রাহিম।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন- ডিআরইউর সাবেক সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন বাদশা, ইলিয়াস হোসেন, রফিকুল ইসলাম আজাদ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ আলম খান তপু, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি কাদের গণি চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম।
ডিআরইউ প্রাঙ্গণ থেকে কার্যনির্বাহী কমিটির নেতারাসহ সংগঠনের সদস্য, সাবেক নেতাদেরকে নিয়ে বের করা র্যালি রাজধানীর সেগুনবাগিচা এলাকা প্রদক্ষিণ করে। এ সময় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী টি-শার্ট, রঙ-বেরঙের ব্যানার ফেস্টুন, বাদ্যযন্ত্র ও ঘোড়ার গাড়ি র্যালিকে বর্ণাঢ্য রূপ দেয়।
এ ছাড়া প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ডিআরইউ সদস্য ও পরিবারের জন্য সন্ধানী জাতীয় চক্ষুদান সমিতির সহযোগিতায় দিনব্যাপী চক্ষু সেবা ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয়। তিন শতাধিক সদস্য ও পরিবারের সদস্যরা এ সেবা নেন।
প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ডিআরইউ চত্বর বেলুন দিয়ে সাজানো এবং আলোকসজ্জা করা হয়।


আরো সংবাদ



premium cement