২০ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩০, ১৩ জিলহজ ১৪৪৫
`

চড় খাওয়া নিয়ে যা বললেন কঙ্গনা

কঙ্গনা রানাওয়াত - ফাইল ছবি

বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে আলোচনায় বলিউড স্টার এবং সদ্য লোকসভার সদস্য নির্বাচিত কঙ্গনা রানাওয়াত। শোনা গেছে, চন্ডিগড় বিমানবন্দরে এক সিআইএসএফ জওয়ানের হাতে তার হেনস্থা হয়েছে। ওই মহিলা জওয়ান নাকি তাকে চড় মেরেছেন। কিন্তু ঘটনাটি নিয়ে নানা মহলে সন্দেহ ছিল। এর পিছনে কী কারণ থাকতে পারে, তা নিয়েও নানা তত্ত্ব উড়ছিল বাতাসে। দিল্লি পৌঁছে এক ভিডিও বার্তায় সে সম্পর্কে বললেন খোদ নব নির্বাচিত এমপি। কী বললেন তিনি?

কঙ্গনা বলেছেন, তার কাছে প্রচুর ফোন আসছে। শুভানুধ্যায়ীরা, সংবাদমাধ্যমের বন্ধুরা জিজ্ঞাসা করছেন, তিনি কেমন আছেন। তাদের সবাইকে প্রথমেই তিনি জানিয়েছেন, যে ভালো আছেন, সুস্থ আছেন। এর পরে কঙ্গনা বলেন, ‘আজ চন্ডিগড় বিমানবন্দরে যে ঘটনাটি ঘটেছে, সেটি সিকিওরিটি চেকের সময়ে ঘটেছে। সিকিওরিটি চেক করে যেই বেরিয়েছি, তখন অন্য কেবিনে যে মহিলা ছিলেন, যিনি ওই কেবিনের নিরাপত্তাকর্মী হিসাবে কাজ করছিলেন, সেই সিআইএসএফ জওয়ান মহিলা, উনি পাশ থেকে এসে আমার মুখে মারেন। গালি দিতে শুরু করেন।’

কঙ্গনার বক্তব্য, এর পরে তিনি জিজ্ঞাসা করেন, এমন কাণ্ড কেন ঘটাচ্ছেন? উত্তরে ওই জওয়ান নাকি বলেন, তিনি কৃষক আন্দোলনের সমর্থক। এর পরে কঙ্গনা জুড়ে দেন, ‘আমি নিরাপদে আছি ঠিকই, কিন্তু আমার চিন্তা, যে আতঙ্কবাদ এবং উগ্রবাদ পাঞ্জাবে বাড়ছে, সেটি আমরা কী করে নিয়ন্ত্রণ করব।’

যত দূর শোনা গেছে, কঙ্গনা বৃহস্পতিবার চন্ডিগড় বিমানবন্দরে এসেছিলেন বিমানে উঠতে। দিল্লি যাওয়ার জন্য বিমানবন্দরে হাজির হয়েছিলেন তিনি। সেই সময়ে এক মহিলা সিআইএসএফ জওয়ান তার সঙ্গে বাকবিতন্ডায় জড়িয়ে পড়েন এবং তিনি নাকি তাকে চড় মারেন। এর পরে কঙ্গনার সাথে থাকা একজন পালটা চড় মারেন ওই জওয়ানকে।

ওই মহিলা জওয়ানের ছবি বলে দাবি করে একটি ফটো সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছেন কেউ কেউ। যদিও আদৌ সেটি ওই জওয়ানের ছবি কি না, তা খতিয়ে দেখেনি হিন্দুস্তান টাইমস বাংলা। এর পরে দিল্লি পৌঁছেছেন কঙ্গনা। সেখানে বিমানবন্দরে তাকে প্রশ্ন করেন সাংবাদিকরা। তবে সেখানেও পরিষ্কার করে কিছু বলেননি তিনি। তার পরেই এই ভিডিওবার্তাটি দেন তিনি।

শোনা যাচ্ছে, একটি তদন্ত কমিটি ইতিমধ্যেই তৈরি হয়েছে বিষয়টি জানার উদ্দেশ্যে। অভিযুক্ত জওয়ানকেও প্রশ্ন করা হচ্ছে বলে জানা গেছে।
সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস


আরো সংবাদ



premium cement