২০ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩০, ১৩ জিলহজ ১৪৪৫
`

ট্রান্সজেন্ডারিজম নিয়ে যা বললেন ড. আজহারী

- নয়া দিগন্ত

ট্রান্সজেন্ডারিজমকে বিকৃত যৌনাচার সমকামিতার নতুন ভার্সন বলে মন্তব্য করেছেন জনপ্রিয় ইসলামি স্কলার শায়েখ ড. মিজানুর রহমান আজহারী।

তিনি বলেছেন, এটা একটা নতুন ভাঁওতাবাজি। আল্লাহর দেয়া ফিতরাতকে ধ্বংস করার শয়তানি অ্যাজেন্ডা। পৃথিবীতে যত অসৎ কর্ম আছে ট্রান্সজেন্ডারিজমের মত ভণ্ডামি ও গাঁজাখুরি কারবার আর একটিও নেই। শরিফ থেকে কনভার্ট হয়ে শরিফা হওয়ার কোনো বিধান নেই।

রোববার সন্ধ্যায় মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুরের আমপাং এলাকার উইসমা এমসিএ-এর গ্র্যান্ড বলরুমে বাংলাদেশ মুসলিম কমিউনিটি মালয়েশিয়ার উদ্যেগে ইসলামী মহাসম্মেলন-২০২৪ এর ইফতার ও দোয়া মাহফিলে প্রধান বক্তা হিসেবে তিনি এ মন্তব্য করেন।

ড. আজহারী বলেন, ‘আল্লাহর রাব্বুল আলামিনের সৃষ্টিকে মানুষ চাইলে জেন্ডার পরিবর্তন করে তার নতুন সত্তা দিতে পারে না। আসমান জমিনে সকল সৃষ্টির একমাত্র আল্লাহ পাক। আল্লাহর সমকক্ষ কেউ নন। আল্লাহ সকল মাখলুকাতকে জোড়ায় জোড়ায় সৃষ্টি করেছেন। আপনি মনে মনে নারী আর মনে মনে পুরুষ হওয়ার সুযোগ নেই। আমাকে আল্লাহ সৃষ্টি করেছে পুরুষ হিসেবে। আমার মনে মনে নারী ভাবার কোনো সুযোগ নেই। সার্জারি এবং হরমোন পরিবর্তন করে পুরুষ থেকে নারী, আবার নারী থেকে পুরুষ হওয়া ইসলামে সম্পূর্ণভাবে নিষিদ্ধ। এর পরিণতি ভয়াবহ হতে পারে।’

তিনি আরো বলেন, ‘পবিত্র কুরআনে বর্নিত আছে, যারা এসব করবে তাদের জন্য আল্লাহ কঠিন শাস্তির বিধান রেখেছেন। তারা যদি এসব বিকৃত যৌনাচারকে স্বীকৃতি দেয় তাহলে মানবসভ্যতা ধ্বংস হয়ে যাবে। যেমন কালের সাক্ষী হয়ে আছে ইতালির পম্পেই নগরী ও জর্ডানের ডেড সি। এটাকে কেন্দ্র করে আত্মহত্যার প্রবনতা বেড়ে যাবে। পাশ্চাত্যের দেশগুলোতে তাদেরকে স্বীকৃতি দিতে আন্দোলন করা হচ্ছে। এই অনাচার ও পাপাচারের বিরুদ্ধে মুসলিম জাহানকে শক্তিশালী প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে।’

এ ইসলামি কনফারেন্স ও ইফতার মাহফিলের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন মো: মোরাদ হোসেন। অনুষ্ঠানের শুরুতে কুরআন তেলাওয়াত করেন ২০১৭ সালে বিশ্বজয়ী ক্বারি হাফেজ মো: তরিকুল ইসলাম।

আলোচনা শেষে বিশেষ মোনাজাত পরিচালনা করেন ড. আজহারী। এ সময় গ্র্যান্ড বলরুমে আট শতাধিক রোজাদার মুসল্লি ইফতার করেন।


আরো সংবাদ



premium cement
রেমিট্যান্স বাড়ায় দেশের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ১৯.৫৩ বিলিয়ন ডলার চট্টগ্রামে ঝুঁকিপূর্ণ পাহাড় ছাড়তে বিদ্যুৎ-পানি-গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্নের সিদ্ধান্ত রায়গঞ্জে দাদপুর সাহেবগঞ্জ দ্বি-মুখী উচ্চবিদ্যালয়ে ঈদ পূর্ণমিলনী ইসরাইলি কারাগারে নিহত ফিলিস্তিনি বন্দীর সংখ্যা বেড়ে ৫৪ : কমিশন খুলনায় বজ্রপাতে ২ যুবকের মৃত্যু শেখ হাসিনার দিল্লি সফরে যেসব বিষয় আলোচনায় আসতে পারে বাজেট এখনো পাস হয়নি, অনেক কিছু সংশোধন হতে পারে : অর্থমন্ত্রী রামাফোসা দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্ট পুনর্নির্বাচিত হওয়ায় প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন জামায়াতের দায়িত্বশীলদের দেশ পরিচালনার যোগ্যতা অর্জন করতে হবে : মিয়া গোলাম পরওয়ার বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় মিয়ানমার থেকে গুলি এলে পাল্টা গুলি চালানো হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

সকল