২০ জুলাই ২০১৯

গণতান্ত্রিক ব্যবস্থাকে ধ্বংস করা হয়েছে : মির্জা ফখরুল

বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা বিএনপির কর্মী সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর - ছবি : নয়া দিগন্ত

দেশের গণতান্ত্রিক ব্যবস্থাকে ধ্বংস করা হয়েছে অভিযোগ করে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, বর্তমান ব্যবস্থায় সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়। তিনি বলেন, ‘আমরা নির্বাচনে অংশ নিয়েছিলাম। এবারেও তারা ভিন্ন পদ্ধতিতে গায়ের জোরে বন্দুক পিস্তল ব্যবহার করে রাষ্ট্রযন্ত্রকে দিয়ে ফলাফল ছিনিয়ে নিয়ে গেছে। আওয়ামী লীগ আবারো ক্ষমতায় বসেছে। তারা দুর্নীতির মাধ্যমে আবারো জুলুম শুরু করেছে। আর জনগণ হারিয়েছে তার ক্ষমতা ‘

বুধবার সকালে ঠাকুরগাঁওয়ে বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা বিএনপির কর্মী সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্য তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, আসন্ন ২০১৯-২০ অর্থবছরের জন্য প্রস্তাবিত বাজেট বড় ও ব্যবসায়ীদের স্বার্থ রক্ষার। সরকারের হাজার হাজার কোটি টাকা ঋণের বাজেট লুটেরাদের পকেটে যাচ্ছে। 

তিনি বলেন, দেশ আজ ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত হয়েছে। দেশে কোথাও কোনো জবাবদিহিতা নেই। সরকারের কাউকে কেউ কোনো প্রশ্ন করতে পারেন না। তারা যা খুশি তাই করে যাচ্ছেন, তিন তিন বারের সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে অন্যায়ভাবে জেলে আটক করে রাখা হয়েছে। ৭২ বছর বয়সী একজন মানুষ, তিনি নানা অসুখে আক্রান্ত। তাকে ঠিকমত চিকিৎসা দেয়া হয় না। কোন আত্মীয়-স্বজনের সাথে দেখা করতে দেয়া হয় না।

তিনি কর্মীসভায় নেতা-কর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, বিএনপির জন্ম আন্দোলনের মাধ্যমে। কঠোর আন্দোলন করেই দেশকে উদ্ধার করতে হবে। আমরা গণতন্ত্রে বিশ্বাস করি। এই কালো অন্ধকার ও একদলীয় শাসন ব্যবস্থার পতন ঘটিয়ে খুব শীঘ্রই দেশনেত্রীকে মুক্ত করা হবে। তাই ত্ত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে অবিলম্বে নির্বাচন দিতে হবে।

বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা বিএনপির সভাপতি রাজিউর রহমান চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক ড. টিএম মাহবুবুর রহমানের সঞ্চালনায় কর্মী সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সভাপতি তৈয়মুর রহমান, সহ-সভাপতি ওবায়দুল্লাহ মাসুদ, কাজী ফাহিম, জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক আবু হায়াত নুরুন নবী, উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক খোরশেদ আলম, এ্যাডঃ আবেদুর রহমান, উপজেলা যুবদলের সভাপতি ইউসুফ আলী, উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক, উপজেলা সেচ্ছাসেবক দলের আহব্বায়ক জুলফিকার আলীসহ দলের বিভিন্ন অংঙ্গসংগঠনের শীর্ষস্থানীয় ও জেলা, উপজেলা পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।


আরো সংবাদ




gebze evden eve nakliyat instagram takipçi hilesi