১৯ এপ্রিল ২০১৯

যৌনতার বিনিময়ে বাড়ি ভাড়া দিচ্ছেন মালিকরা!

যৌনতার বিনিময়ে বাড়ি ভাড়া দিচ্ছেন মালিকরা! - সংগৃহীত

বিবিসির একটি অনুসন্ধানে বেরিয়ে এসেছে, যুক্তরাজ্যের কোন কোন বাড়ি মালিকরা যৌনতার বিনিময়ে বাসা ভাড়া দিতে চাইছেন। সেই সঙ্গে তাদের বিনামূল্যের ইউটিলিটি আর ওয়াইফাই ব্যবহারের সুযোগও থাকছে।

অনলাইনে দেয়া এরকম বেশ কয়েকটি বিজ্ঞাপনের খোঁজ পেয়েছে বিবিসি এবং ছদ্মবেশে বিজ্ঞাপনদাতা কয়েকজনের সাক্ষাৎকারও নিয়েছে।

কিভাবে বাড়ি ভাড়া করতে গিয়ে মেয়েরা হয়রানি ও অপব্যবহারের শিকার হচ্ছে, সেটি প্রকাশ করতে ওই প্রতিবেদনটি করা হয়েছে।

যুক্তরাজ্যের বিচার বিভাগ বলছে, এটা পুরোপুরি অবৈধ। এ রকম বিজ্ঞাপন দেয়াটাও আইন বিরোধী যার জন্য সাত বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড হতে পারে।

কিন্তু তারপরেও এরকম ঘটনা ঘটছে।

যে দুজনের সাক্ষাৎকার নিয়েছে বিবিসির ইনসাইড আওয়ার ওয়েস্ট প্রোগ্রামের সংবাদদাতা, তারা দুজনেই ব্রিস্টলে থাকেন।

বিজ্ঞাপনে তারা বাড়ি ভাড়া মওকুফের পাশাপাশি বিল দেয়া, এমনকি অন্যান্য খরচ দেয়ারও প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। শর্ত একটাই, সপ্তাহে অন্তত একদিন তাদের সঙ্গে বিছানায় যেতে হবে।

বাড়ি ভাড়া নিতে ইচ্ছুক এমন একজন নারী হিসাবে তাদের সঙ্গে একটি বারে দেখা করেন বিবিসির সংবাদদাতা।

মাইক নামের একজন বাড়ি মালিক ছদ্মবেশী সাংবাদিককে বলেন, তিনি দুই বেডরুমের একটি চমৎকার বাড়ি পেতে পারেন, যেখানে সব কিছুই থাকবে। যতদিন তিনি 'বন্ধুত্বে সুবিধার সম্পর্ক' বজায় রাখবেন।

এই সুবিধা বলতে তিনি বোঝান, সপ্তাহে অন্তত একদিন তার সাথে বিছানায় যেতে হবে।

তবে এই প্রোগ্রামের কথা জানার পর মাইক দাবি করেন, তিনি একজন বাড়ি মালিক হিসাবে ভান করেছিলেন কারণ, তিনি যুক্তরাজ্যে মেয়েদের হয়রানির ওপর গবেষণা করছেন।

টম নামের আরেকজন মালিক, যার বয়স ৬০ বছর, বিবিসির ছদ্মবেশী নারী সাংবাদিককে বলেন, তিনি যদি তার ফ্লাটে উঠে আসেন, তাহলে ভাড়া তো দিতেই হবে না। সেই সাথে গ্যাস, বিদ্যুৎ এবং ওয়াইফাই সুবিধা পাবেন।

তবে যখন তাকে জানানো হয় যে, বিবিসির ক্যামেরায় এসব রেকর্ড করা হয়েছে, তিনি কোন জবাব দিতে রাজি হননি।

অনলাইনে এরকম আরো বিজ্ঞাপন দেখা গেছে।

একটি বিজ্ঞাপনে একজন লিখেছেন, হাই, আমি ৩৫ বছরের একজন পুরুষ। আমার নিজের বাড়ি আছে যেখানে বাড়তি একটি রুম আছে। আমি একজন নারী ভাড়াটিয়া চাই, তার সেবার ওপর ভাড়া নাও লাগতে পারে। একটি ছবি এবং আপনার সম্পর্কে কিছু তথ্যসহ যোগাযোগ করুন।

যুক্তরাজ্যের বিচার বিভাগ বলছে, এটা পুরোপুরি অবৈধ। এ রকম বিজ্ঞাপন দেয়াটাও আইন বিরোধী যার জন্য সাত বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড হতে পারে।

কিন্তু এরকম বিজ্ঞাপন দেয়ার জন্য কাউকে বিচারের ঘটনা ঘটেনি।

 

যৌন সম্পর্কের বিনিময়ে ডিগ্রি!
আনন্দবাজার ও ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস, ১৮ এপ্রিল ২০১৮

বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শীর্ষ কর্তার সঙ্গে যৌন সম্পর্ক গড়ে তুললে আর্থিক সুবিধার সঙ্গে মিলবে ডিগ্রি লাভও। পরীক্ষায় ৮৫ শতাংশ নম্বর পেতে শিক্ষা বিভাগের উচ্চপদস্থ কিছু কর্মকর্তার সাথে ঘনিষ্ঠ হওয়ার জন্য ছাত্রীদের পরামর্শ দিয়েছেন তামিলনাড়ুর বিরুদ্ধনগর শহরের দেভাঙ্গা আর্ট  কলেজের গণিতের অধ্যাপিকা নির্মলা দেবী।

বিশেষ সুবিধা পাইয়ে দেয়ার পরিবর্তে যৌন প্রস্তাব দেয়ার অভিযোগে ওই অধ্যাপিকার বিরুদ্ধে পুলিশের কাছে নালিশ জানিয়েছেন ওই চার ছাত্রী। 

ওই ছাত্রীরা অভিযোগ করেন, অধ্যাপিকা নির্মলা দেবী তাদের প্রস্তাব দেন- মাদুরাই বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শীর্ষ কর্তার জন্য ‘বিশেষ কিছু’ করলে অর্থ ও ডিগ্রি পাওয়ার জন্য সুবিধা পাওয়া যাবে।

শিক্ষাগত ক্ষেত্রে অনেক দূর যাওয়ার বিষয়েও সাহায্য পাওয়া যাবে। যদিও সেই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ওই অধ্যাপিকা।

এরপর থেকে তুমুল অস্বস্তিতে কলেজ কর্তৃপক্ষ। ঘটনার পর সোমবার ওই অধ্যাপিকাকে আটক করেছে পুলিশ।

ছাত্রীদের যৌন প্রস্তাব দেয়ার কথা অস্বীকার করেছেন মাদুরাই কামরাজ বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষও। তাদের মতে, বিশ্ববিদ্যালয়ের বদনাম করানোর জন্যই এমন বিতর্ক তৈরি করা হয়েছে।


আরো সংবাদ

iptv al Epoksi boya epoksi zemin kaplama Daftar Situs Agen Judi Bola Net Online Terpercaya Resmi

Hacklink

Bursa evden eve nakliyat
arsa fiyatları tesettür giyim
Canlı Radyo Dinle hd film izle instagram takipçi satın al ofis taşıma Instagram Web Viewer

canli radyo dinle

Yabanci Dil Seslendirme

instagram takipçi satın al